নেদারল্যান্ডসে ট্রামে বন্দুক হামলা, নিহত ৩

সন্দেহভাজন হামলাকারী আটক

  যুগান্তর ডেস্ক ১৯ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

নেদারল্যান্ডসে বন্দুক হামলা
নেদারল্যান্ডসে বন্দুক হামলা। ছবি-সংগৃহীত

নেদারল্যান্ডসের উত্রেচ শহরে একটি যাত্রীবাহী ট্রামে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে এক বন্দুকধারী। সোমবার সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে এ হামলা হয়। এতে ৩ জন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। এটাকে সন্ত্রাসী হামলা হিসেবে অভিহিত করে দেশটির সন্ত্রাস দমন বিভাগ। পরে অভিযান চালিয়ে গোকমেন তানিস নামে ৩৭ বছর বয়সী এক তুর্কি নাগরিককে আটক করে পুলিশ।

এর আগে শনিবার যুক্তরাজ্যের লন্ডনে হিথ্রো বিমানবন্দরের পাশে এক কিশোরের ওপর হামলা চালায় এক সন্ত্রাসী। ‘সব মুসলিমকে হত্যা কর’ বলে চিৎকার করেই ছুরি ও বেসবল ব্যাট নিয়ে হামলা করে সে।

এতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে ১৯ বছরের এক কিশোর। হামলাকারীকে আটক করা হয়েছে। লন্ডন পুলিশ বলছে, উগ্র কট্টর ডানপন্থীদের দ্বারা উদ্বুদ্ধ হয়ে এই হামলা চালানো হয়েছে।

এটাকেও সন্ত্রাসী হামলা হিসেবে বিবেচনা করে তদন্ত করছে তারা। খবর বিবিসি ও দ্য সানের। শুক্রবার ‘শান্তির দেশ’খ্যাত নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে ভিডিও গেম স্টাইলে সন্ত্রাসী হামলা চালায় অস্ট্রেলীয় নাগরিক খ্রিস্টান শ্বেতাঙ্গ সন্ত্রাসী ব্রেনটন টেরেন্ট।

মুসলিমদের বিরুদ্ধে ইতিহাসের অন্যতম ভয়াবহ এ হামলায় নিহত হন জুমার নামাজরত ৫০ মুসল্লি। এ ঘটনার পর নিন্দার ঝড় বইছে বিশ্বজুড়ে। ফুঁসে ওঠে মুসলিম বিশ্ব। এর পরদিনই লন্ডনে এক মুসল্লির ওপর হাতুড়ি নিয়ে হামলা চালায় এক শ্বেতাঙ্গ সন্ত্রাসী। শনিবার রাতে লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দরের পাশে কিশোরের ওপর ছুরি ও বেসবল ব্যাট নিয়ে হামলা চালানো হয়।

সোমবার নেদারল্যান্ডসে হয় আরেক সন্ত্রাসী হামলা। দ্য গার্ডিয়ান জানিয়েছে, উত্রেচ শহরের ট্রামস্টেশনে একটি ট্রাম লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়ে দ্রুতই ঘটনাস্থল ত্যাগ করে বন্দুকধারী।

খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তিনটি হেলিকপ্টারে করে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় নিরাপত্তা বাহিনী। ঘিরে ফেলে পুরো এলাকা। জনসাধারণকে ওই এলাকা এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। পুলিশের মুখপাত্র বার্নহার্ড জেন্স বলেন, ‘ধারণা করা হচ্ছে প্রাইভেট কার নিয়ে সন্দেহভাজন হামলাকারী পালিয়ে থাকতে পারে। যত দ্রুত সম্ভব আমরা ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করতে চাই।’ হামলায় একাধিক হামলাকারী জড়িত থাকতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি।

সন্দেহভাজন হামলাকারীর একটি ছবি প্রকাশ করে ডাচ পুলিশ। সিসিটিভি থেকে নেয়া ছবিটি প্রকাশ করে উত্রেচ পুলিশ জানিয়েছে, সন্দেহভাজনের নাম গোকমেন তানিস। তিনি একজন তুর্কি নাগরিক ও বয়স ৩৭ বছর। একই সঙ্গে প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছে যদি সন্দেহভাজনের ছবি তাকে তা পাঠানোর আহ্বান জানানো হয়।

অভিযানের এক পর্যায়ে তাকে আটক করা গেছে বলে জানায় পুলিশ। ডাচ সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত ফুটেজে এক ব্যক্তিকে মাটিতে পড়ে থাকতে দেখা যায়। সাংবাদিকরা জানিয়েছেন অন্তত ২০ জনকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হামলার পর উত্রেচ প্রদেশের জন্য সন্ত্রাসী হামলার সতর্কতা সর্বোচ্চ পর্যায়ে নিয়ে গেছে ডাচ সরকার। সারা দেশের মসজিদ, স্কুল ও পরিবহনের কেন্দ্রস্থলগুলোতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় প্রতিক্রিয়া জানিয়ে ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট বলেছেন, হামলার ঘটনায় তিনি ‘গভীর মর্মাহত এবং বিষয়টি নিয়ে আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে।’ সন্ত্রাস দমন বিভাগের সমন্বয়কারী পিয়েটার-জাপ আলবার্সবার্গ এক বিবৃতিতে বলেছেন, উত্রেচ প্রদেশের জন্য হুমকির আশঙ্কার সতর্কতা সর্বোচ্চ ৫-এ নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

হামলাকারী এখনও পলাতক। সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মোটিভ বাদ দেয়া যাচ্ছে না। টুইটারে দেয়া বার্তায় তিনি নাগরিকদের স্থানীয় পুলিশের নির্দেশনা মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×