বিলম্বে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া জটিল হতে পারে : ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ঢাকা-লন্ডন সরাসরি কার্গো ফ্লাইট পুনরায় চালু হবে * আজ রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যাবেন

  বাসস ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

Prime minister
গণভবনে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসনের সৌজন্য সাক্ষাৎ -পিআইডি

ব্রিটেনের পররাষ্ট্র ও কমনওয়েলথ বিষয়কমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় বিলম্ব হলে রোহিঙ্গা ইস্যুতে আরও জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। রোহিঙ্গাদের জীবন বাঁচাতে তাদের পাশে দাঁড়ানোয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তিনি ভূয়সী প্রশংসা করেন। এদিকে, শুক্রবার ঢাকায় পৌঁছে এক বিবৃতিতে রোহিঙ্গা সমস্যাকে ‘মনুষ্যসৃষ্ট বিপর্যয়’ আখ্যায়িত করে বরিস জনসন বলেন, সংশ্লিষ্টদের ‘রাজনৈতিক সদিচ্ছা, সহনশীলতা ও সহযোগিতার’ মাধ্যমে এ সংকটের অবসান হতে পারে।

সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তার সরকারি বাসভবন গণভবনে সাক্ষাৎ করেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জনসন। বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের জানান, বৈঠকে তারা পারস্পরিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় বিশেষ করে রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে আলোচনা করেন। বৈঠকে বরিস জনসনের মন্তব্যের সঙ্গে একমত পোষণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের দ্রুত প্রত্যাবাসনের জন্য মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সুচিকেই উদ্যোগী হতে হবে। তিনি আরও বলেন, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের পর তাদের দেখভাল করার জন্য ইউএনসিএইচআর এবং অন্যসব আন্তর্জাতিক সংস্থাকে অনুমতি দিতে হবে। রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশের জন্য একটি বড় ধরনের বোঝা হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশ মানবিক কারণে ১০ লাখের অধিক রোহিঙ্গাকে অস্থায়ী আশ্রয় দিয়েছে। রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফিরিয়ে নেয়া প্রয়োজন। তারা এখানে মানবেতর জীবনযাপন করছে। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বুধবার লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনে এক দল উচ্ছৃঙ্খল লোকের হামলার ঘটনাটি ব্রিটিশমন্ত্রীর নজরে আনেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন বলে প্রধানমন্ত্রীকে বরিস জনসন আশ্বস্ত করেন। বৈঠকে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনে তার সরকারের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা আরও বলেন, সরকার সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রচারণা চালাচ্ছে এবং সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিয়েছে।

১৯৪৮ সালে ফিলিস্তিনে ঘটে যাওয়া ঘটনার সঙ্গে রোহিঙ্গা সমস্যাকে তুলনা করে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জনসন বলেন, তখন ছয় লাখ মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছিল। দ্রুত রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের ওপর গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় বিলম্ব হলে রোহিঙ্গা ইস্যুতে আরও জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। বৈঠকে বরিসের সঙ্গে ঢাকায় নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার অ্যালিসন ব্লেক উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব মো. নজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, বিকালে ঢাকার হযরত শাহজালাল (রহ.) বিমানবন্দরে পৌঁছে এক বিবৃতিতে বরিস জনসন বলেন, রোহিঙ্গারা যে ভয়াবহতার মধ্য দিয়ে গেছে সেই অভিজ্ঞতা আমি নিজ কানে শুনতে এবং তাদের অবস্থা সচক্ষে দেখতে চাই। এ মানবিক সংকটের সুরাহায় সবাই মিলে কিভাবে কাজ করা যায় সে বিষয়ে আমি স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চি ও অন্য আঞ্চলিক নেতাদের সঙ্গে কথা বলব। তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের দুর্দশা এবং তাদের যে দুঃখ-কষ্ট সইতে হয়েছে তা আমাদের সময়ের সবচেয়ে বেদনাদায়ক মানবিক বিপর্যয়গুলোর অন্যতম। এটা একটা মনুষ্যসৃষ্ট বিপর্যয়, যা সংশ্লিষ্ট সব পক্ষের সঠিক রাজনৈতিক সদিচ্ছা, সহনশীলতা ও সহযোগিতার মাধ্যমে সমাধান করা সম্ভব। বরিস জনসন আজ কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যাবেন। রোহিঙ্গাদের কষ্টের কথা তাদের মুখ থেকে তিনি শুনবেন। সেখান থেকে ফিরে রাতেই মিয়ানমারের উদ্দেশে তিনি রওনা হবেন। এরপর তিনি থাইল্যান্ডে যাবেন।

ঢাকা-লন্ডন সরাসরি কার্গো ফ্লাইট পুনরায় চালু হবে : ঢাকা-লন্ডন সরাসরি কার্গো ফ্লাইট শিগগিরই পুনরায় চালু হচ্ছে বলে আশা করা যাচ্ছে। ২০১৬ সালের মার্চে আরোপিত এ সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা ব্রিটেনের প্রত্যাহার করতে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে এ আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়। সফররত ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন সন্ধ্যায় বলেন, বাংলাদেশ সরকার এ ব্যাপারে যথেষ্ট পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে এবং এই অগ্রগতিতে আমরা সন্তুষ্ট। বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলীর সঙ্গে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জনসন।

 
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

E-mail: [email protected], [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter