বাড়িওয়ালার বিদ্যুতের ফাঁদে প্রাণ গেল এক পরিবারের ৩ জনের

  রংপুর ব্যুরো ০৪ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রংপুর ম্যাপ
রংপুর ম্যাপ

রংপুরে চুরি ঠেকাতে বাড়ির মালিকের পেতে রাখা ফাঁদে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে এক ভাড়াটিয়া পরিবারের শিশুসহ তিনজনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের সবাই নারী। তাদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

শুক্রবার বেলা সোয়া ১টায় রংপুর মহানগরীর চারতলা মোড় বনানীপাড়ায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় বাড়ির মালিক সৈয়দ আলীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, নগরীর বনানীপাড়ায় সৈয়দ আলীর দোতলা বাড়িতে ভাড়া থাকতেন চাকরিজীবী রুবেল ইসলামের পরিবার। ওই বাড়িতে বেশ কয়েকবার চুরি হওয়ায় বাড়ির মালিক সৈয়দ আলী বাড়ির ছাদে বিদ্যুতের তারে ফাঁদ তৈরি করে রাখেন। শুক্রবার দুপুরে ভাড়াটিয়া তানিয়া আকতার (২৫) তার শিশুকন্যা তাজনিয়াকে (৭) নিয়ে কাপড় শুকানোর জন্য ছাদে গিয়ে ফাঁদ পাতা তারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। এ সময় তাদের চিৎকারে ছুটে গিয়ে তানিয়ার মা বৃদ্ধা তাজমহল বেগম (৬০) সেখানেই বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মারা যান। তানিয়া আকতার ও তার মেয়ে তাজনিয়াও এ সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মারা যান।

খবর পেয়ে এলাকাবাসী বাড়ির মালিক সৈয়দ আলীকে বাড়িতে আটকে রেখে পুরো বাড়ি ঘিরে রাখে। পরে পুলিশ এসে ঘটনাস্থল থেকে লাশ তিনটি উদ্ধার করে।

এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে বাড়ির মালিকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন স্থানীয়রা।

এ ঘটনায় রংপুর সিটি কর্পোরেশনের সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ড কাউন্সিলর মনোয়ারা সুলতানা মলি বলেন, চোর ধরতে এভাবে মানুষ মারার ফাঁদ পেতে রাখা অন্যায়। আজ চুরি ঠেকানোর জন্য বাড়ির মালিকের তৈরি করা ফাঁদে ভাড়াটিয়াদের জীবন দিতে হল। এটি দুঃখজনক ঘটনা। আমি চাই সুষ্ঠু তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হোক।

এ ব্যাপারে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার (কোতোয়ালি জোন) জমির উদ্দিন জানান, আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। লাশগুলো ময়নাতদন্তের জন্য রমেক হাসপাতালের মর্গে নেয়া হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাড়ির মালিক সৈয়দ আলীকে থানায় নেয়া হয়েছে। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

হাজীগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে যুবকের মৃত্যু : হাজীগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শরীফুল ইসলাম (২৪) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার বিল্ডিংয়ে পানি দিতে গিয়ে ওই যুবক বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। শরীফুল হাটিলা পূর্ব ইউনিয়নের বলিয়া গ্রামের মিয়াজী বাড়ির মাহবুবুল আলম মিয়াজীর বড় ছেলে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মিরন মেম্বার জানান, শরীফুল পার্শ্ববর্তী ছৈয়াল বাড়ির আমির হোসেনের নির্মাণাধীন বিল্ডিংয়ে লেবার হিসেবে কাজ করত। শুক্রবার বিল্ডিংয়ে পানি দেয়ার সময় অসতর্কতাবশত বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে পড়ে যায়। এতে তার মাথা ফেটে যায়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ডাক্তারের কাছে নিলে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

এ ব্যাপারে হাজীগঞ্জ থানার ওসি আলমগীর হোসেন রনি যুগান্তরকে জানান, তার মাথায় গুরুতর আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাই তার লাশ ময়নাতন্তের জন্য চাঁদপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×