সাতকানিয়া উপজেলার রূপকানিয়া

এবার শিশু অপহরণ করে ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ আদায়

  চট্টগ্রাম ব্যুরো ১১ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

অপহরণের শিকার শিশু ঈদ চৌধুরী
অপহরণের শিকার শিশু ঈদ চৌধুরী

একের পর এক অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায় করার ঘটনায় অপহরণকারীদের স্বর্গরাজ্য হয়ে উঠেছে চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার রূপকানিয়া এলাকা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে লোহাগাড়া থানা থেকে বালু ব্যবসায়ী ইছমাইল চৌধুরীর দেড় বছরের সন্তান ঈদ চৌধুরীকে অপহরণ করে রূপকানিয়ায় নিয়ে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা। পরে ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণের বিনিময়ে ওইদিন বিকালে অপহরণকারীদের কাছ থেকে শিশুটিকে ছাড়িয়ে আনা হয়।

এসব তথ্য জানিয়ে অপহৃত শিশুর ফুফা জাকারিয়া জানান, মুক্তিপণের ৩ লাখ টাকা অপহরণকারী চক্রের দুই সদস্য মানিক (২৪) ও গিয়াস উদ্দিন (২৭) নামে দু’জনকে দেয়া হয়েছে। মুক্তিপণ নেয়া দু’জনের বাড়ি সাতকানিয়ার গারাঙ্গিয়া এলাকায়।

এ বিষয়ে সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান মোল্লা যুগান্তরকে বলেন, লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া এলাকা থেকে অপহরণকারী চক্র এক শিশুকে অপহরণ করে নিয়ে গিয়েছিল। পরে সাতকানিয়া থানার গারাঙ্গিয়া এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। মুক্তিপণের বিষয়টি আমার জানা নেই।

এর আগে গত ৪ মে রাতে সাতকানিয়া উপজেলার সোনাকানিয়া ইউনিয়নের জমাদার পাড়া এলাকা থেকে অস্ত্রের মুখে ধনাঢ্য ব্যবসায়ী মোস্তাক আহমদকে তার কিশোর ছেলেসহ অপহরণ করা হয়। এক কিলোমিটার পর ছেলেকে ছেড়ে দেয়া হয়।

অপহরণের ২৮ ঘণ্টা পর ৬ মে ভোররাত ৩টার দিকে রূপকানিয়া ইউনিয়নের ছড়ারকূল এলাকায় অপহরণকারীরা তাকে রেখে যায়। এছাড়া গত বছরের শুরুর দিকে সৈয়দ নূর নামে এক ব্যক্তি এবং বছরের শেষের দিকে আবু তাহের ও মোহাম্মদ আলী নামে দুই ভাইকে অপহরণ করে রূপকানিয়ায় নিয়ে আটকে রাখে অপহরণকারীরা।

পরে তাদের মুক্তিপণের বিনিময়ে ছেড়ে দেয়া হয়। সেই একই অপহরণকারী চক্র এবার শিশু ঈদ চৌধুরীকে অপহরণ করেছে বলে ধারণা স্থানীয়দের।

শিশুটির পরিবারের সদস্যরা জানান, বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে দুটি মোটরসাইকেলযোগে লোহাগাড়া থানার পদুয়া ইউনিয়নের মল্লিক সোবহান এলাকার ইছমাইল চৌধুরীর বাড়িতে যায় কয়েক যুবক। তারা ইছমাইল চৌধুরীকে খুঁজতে থাকে। পরে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে বাড়ির সামনে খেলতে থাকা তার ছেলে ঈদ চৌধুরীকে মোটরসাইকেলে করে সাতকানিয়ার রূপকানিয়া এলাকায় নিয়ে যায়।

এরপর অপহরণকারী চক্র ইছমাইলের কছে মোবাইল ফোনে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। টাকা না দিলে শিশুটিকে হত্যা করবে বলে হুমকি দেয়। অপহরণকারীরা ইছমাইল চৌধুরীকে আরও বলে, মুক্তিপণের টাকা নিয়ে একা আসতে হবে।

পরে তিনি এক বন্ধুর কাছ থেকে ৩ লাখ টাকা ধার নিয়ে রূপকানিয়া এলাকার গারাঙ্গিয়া ব্রিজ এলাকায় যান। এ সময় ইছমাইল চৌধুরীকে মারধর করে অপহরণকারী চক্র। পরে মুক্তিপণের ৩ লাখ টাকা নিয়ে গারাঙ্গিয়া ব্রিজে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশায় শিশুটিকে ছেড়ে দেয়া হয়।

শিশুটির ফুফা জাকারিয়া আরও বলেন, কোনোরকমে ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। পরিবারটি এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।

এদিকে স্থানীয়রা জানায়, রূপকানিয়া সরকারি আশ্রয়ণ প্রকল্পে একটি সংঘবদ্ধ অপহরণকারী চক্র রয়েছে। নিরীহ লোকজনকে ধরে নিয়ে এখানকার ছোট ছোট খুপরি ঘরে আটকে রাখে অপহরণকারীরা। এরপর পরিবারের কাছ থেকে আদায় করা হয় মুক্তিপণ। পুলিশ বেশ কয়েকবার এ এলাকায় অভিযান চালালেও অপহরণকারী চক্রের সদস্যদের ধরতে পারেনি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×