আলোচনায় বক্তারা

শেখ হাসিনাকে সভাপতি করার সিদ্ধান্ত ঠিক ছিল

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৮ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি

আওয়ামী লীগের দুর্দিনে শেখ হাসিনাকে দলের সভাপতি নির্বাচিত করাটা যে সঠিক ছিল পরে তার দূরদর্শী নেতৃত্বের মধ্য দিয়ে আজ তা প্রমাণিত- এমন মন্তব্য করেছেন দলের শীর্ষ নেতারা। তারা বলেছেন, শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল।

নেতারা বলেন, দীর্ঘ নির্বাসন জীবন শেষে অনেক প্রতিকূল পরিবেশে ১৯৮১ সালে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা দেশে ফিরে অন্ধকারে নিমজ্জিত রাজনীতিতে আশার আলো ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। তার আগমনে আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক সংকট থেকে মুক্তি পেয়েছিল।

শুক্রবার বিকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে আলোচনা সভায় দলের কেন্দ্রীয় নেতারা এসব কথা বলেন। শেখ হাসিনার ৩৯তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করে আওয়ামী লীগ।

বক্তব্য দেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বাহাউদ্দিন নাসিম, এনামুল হক শামীম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, শিক্ষা সম্পাদক শামসুন্নাহার চাঁপা, সদস্য মির্জা আজম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল হাসনাত। উপস্থিত ছিলেন- দলের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক আবদুস ছাত্তার, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ।

দলের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু বলেন, সেদিন আওয়ামী লীগ যে কারণেই সভাপতি নির্বাচিত করুক না কেন পরে তার দূরদর্শী নেতৃত্ব, রাষ্ট্রনায়কোচিত নেতৃত্ব প্রমাণ করে দিয়েছে শেখ হাসিনাকে সভাপতি নির্বাচিত করার মধ্য দিয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছিল।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা বাংলাদেশের মানুষের মুক্তির অগ্রদূত। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের স্বাধীনতা এনে দিয়েছিলেন তার কন্যা শেখ হাসিনা দেশের সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক মুক্তি এনে দিয়েছেন।

শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন বলেন, শেখ হাসিনার দেশে ফেরার তিনটি মাত্রা আছে। প্রথম মাত্রা তার ব্যক্তিগত, তার নেতৃত্ব। দ্বিতীয় মাত্রা হল তিনি না ফিরলে আওয়ামী লীগের সংকট দূর হতো না। তৃতীয় মাত্রা হল বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর যে বাংলাদেশ হারিয়ে গিয়েছিল সেই বাংলাদেশকে ফিরিয়ে এনেছেন। শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের এ তিন মাত্রা সবাইকে মনে রাখতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেন, শুধু পিতৃহত্যার বিচার, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য নয় শেখ হাসিনা দেশে ফিরে এসে বাংলাদেশে নতুন একটা কথা যোগ করেন সেটা হল মানুষের ভোট ও ভাতের অধিকার নিশ্চিত করা। শেখ হাসিনা বাংলাদেশের মানুষের ভোট ও ভাতের অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন, শুধু তাই নয় বাংলাদেশকে উন্নয়নের উৎকর্ষের দিকে নিয়ে গেছেন।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, আজ যারা আইনের শাসনের কথা বলেন তাদের নেতা খুনি জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার বন্ধ করে আইনের শাসন ভূলুণ্ঠিত করেছিলেন। শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচার করে দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন। পাকিস্তানের এজেন্ট পাকিস্তানের সহযোগী শক্তি বিএনপি-জামায়াত আবারও গণতন্ত্রের কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×