ফেনীতে ১০ টাকা হাতে দিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

শেরপুরে খেজুর দেয়ার লোভ দেখিয়ে ধর্ষণ * চাঁদপুর ও ফরিদপুরে ধর্ষণের শিকার আরও দুই শিশু * সাতক্ষীরায় গৃহকর্মীকে ধর্ষণ

  যুগান্তর ডেস্ক ১৯ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ফেনি

ফেনীর ছাগলনাইয়ায় ৭ বছরের এক শিশুর হাতে ১০ টাকা ধরিয়ে দিয়ে তাকে ধর্ষণ করেছে এক লম্পট। পরে পুলিশ অভিযুক্ত বাহারকে গ্রেফতার করেছে। শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে খেজুর দেয়ার লোভ দেখিয়ে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ সুফিয়ান নামে একজনকে গ্রেফতার করে। চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ ও ফরিদপুরের ভাঙ্গায় ধর্ষণের শিকার হয়েছে আরও দুই শিশু। এছাড়া সাতক্ষীরার কলারোয়ায় কিশোরী গৃহকর্মীকে ধর্ষণ করেছে বাড়ির গৃহকর্তা। এসব ঘটনায় গৃহকর্তাসহ আরও দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

ছাগলনাইয়া (ফেনী) : পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ওই শিশুর (৭) গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জ জেলায়। তার বাবা পরিবার নিয়ে ছাগলনাইয়ার শিলুয়া গ্রামে ভাড়া বাসায় থাকেন। শুক্রবার দুপুরে শিশুটির বাবা-মায়ের অনুপস্থিতে বখাটে বাহার (২৫) তার হাতে ১০ টাকার একটি নোট দিয়ে কোলে করে পাশের একটি দোকানঘরে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধর্ষণ করে। দোকানঘরে শিশুর কান্নার শব্দ শুনে শিশুটির মা সেখানে গিয়ে বাহারকে দেখতে পান। সে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় লোকজন তাকে ধাওয়া করেন। তবে তখন তাকে ধরা যায়নি। রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। বাহার শিশুকে টাকা দিয়ে দোকানে এনে ধর্ষণ করেছে বলে সে তার মাকে জানায়। এ ঘটনায় শনিবার শিশুটির বাবা বাদী হয়ে ছাগলনাইয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেন। এদিনই পুলিশ অভিযুক্ত বাহারকে আদালতে পাঠায়। অভিযুক্ত বাহার ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার পূর্ব শিলুয়া নাপিতঘাটা এলাকার রুহুল আমিনের ছেলে। সে পেশায় হকার।

শেরপুর : ঝিনাইগাতী উপজেলায় ৫ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে সুফিয়ান (১৬) নামে এক কিশোরকে শুক্রবার রাতে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সুফিয়ান ঝিনাইগাতী উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের দুপুরিয়া গ্রামের সাহেব আলীর ছেলে। ঝিনাইগাতী থানার ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস জানান, ১৬ মে সকাল ১০টায় দুপুরিয়া গ্রামের ওই শিশুর মা বাড়িতে না থাকার সুযোগে খেজুর দেয়ার লোভ দেখিয়ে সুফিয়ান তাকে ধর্ষণ করে। পরে ঘটনাটি জানাজানি হলে সুফিয়ান গা ঢাকা দেয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় সুফিয়ান বাড়ি ফিরে এলে গ্রামবাসী তাকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেন। এ ব্যাপারে থানায় একটি মামলা হয়েছে। শনিবার সুফিয়ানকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিম ওই শিশুকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) : ১৬ মে সন্ধ্যায় উপজেলার রাজারগাঁও ইউনিয়নের পশ্চিম রাজারগাঁও গ্রামে প্রথম শ্রেণীর এক শিশুকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। পুলিশ ধর্ষক কিশোরকে আটক করেছে। তার নাম মো. রাব্বি (১৭)। সে পশ্চিম রাজারগাঁও গ্রামের গিয়াস উদ্দিন বেপারী বাড়ির জাফর আহম্মদের ছেলে। রাব্বি এলাকায় টাইলস মিস্ত্রির কাজ করে। শিশুটির পরিবার সূত্রে জানা যায়, ৩ মাস আগে তার মা মারা গেছে। পরে বাবা আরেকটি বিয়ে করেন। শিশুটি দাদি ও সৎ মায়ের কাছে থাকে। বাবা ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। শিশুটির বাবা ও মামা জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাড়ির পাশে নির্জন স্থানে নিয়ে রাব্বি শিশুটিকে ধর্ষণ করে। পরে শিশুটি কাঁদতে কাঁদতে বাড়িতে ফিরে দাদিকে ঘটনাটি বলে। পরিবারের সদস্যরা তাকে গ্রাম্য চিকিৎসকের কাছে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা করায়। হাজীগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মুহাম্মদ আবদুর রশিদ যুগান্তরকে বলেন, শিশুটির মেডিকেল পরীক্ষার জন্য ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এ ব্যাপারে মামলারও প্রস্তুতি চলছে।

ফরিদপুর : ভাঙ্গা উপজেলার নুরুল্যাগঞ্জ ইউনিয়নের দক্ষিণ আকনবাড়িয়া গ্রামে ১০ বছরের এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। স্থানীয়রা জানান, এলাকার বখাটে মুরাদ শিশুকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে শিশুটি রক্তাক্ত অবস্থায় বাড়ি ফিরে এলে তাকে প্রথমে সদরপুরের বিশ্ব জাকের মঞ্জিল হাসপাতালে নেয়া হয়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চিকিৎসকরা তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। এ ঘটনায় ভাঙ্গা থানায় একটি মামলা হলেও অভিযুক্ত মুরাদকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

কলারোয়া (সাতক্ষীরা) : কলারোয়া উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামে এক গৃহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ গৃহকর্তা ইমান আলীকে গ্রেফতার করেছে। জানা গেছে, বাড়িতে ইমান আলী ও তার স্ত্রী থাকতেন। তাদের দুই ছেলে বিদেশে থাকেন। ওই গৃহকর্মী রান্নাবান্নাসহ সংসারের অন্যান্য কাজ করতেন। ১০ জানুয়ারি স্ত্রী বাড়িতে না থাকায় ইমান আলী ওই গৃহকর্মীকে ধর্ষণ করে। পরে সুযোগ বুঝে ভয় দেখিয়ে তাকে আরও কয়েকবার ধর্ষণ করে। বিষয়টি এলাকার রাজনৈতিক নেতা ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের জানানো হলেও তারা কোনো ব্যবস্থা নেনি। অবশেষে বৃহস্পতিবার ধর্ষিতা স্থানীয় সরসকাটি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জকে বিষয়টি জানান। ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ ধর্ষিতাকে সঙ্গে নিয়ে কলারোয়া থানায় গিয়ে মামলা করেন। এরপর ইমান আলীকে গ্রেফতার করা হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×