যুক্তরাষ্ট্রে বসেই ফাইলে স্বাক্ষর ওয়াসার এমডির

কীভাবে দায়িত্ব পালন করছেন, তা বোধগম্য নয় -অতিরিক্ত সচিব

  মতিন আব্দুল্লাহ ২০ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী তাকসিম এ খান।
ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী তাকসিম এ খান। ফাইল ছবি

এক মাসের ছুটিতে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করেও অফিসের সব ফাইলপত্রে স্বাক্ষরসহ সব কার্যক্রম পরিচালনা করছেন ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী তাকসিম এ খান। ভারপ্রাপ্ত এমডি পদে যাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে, তিনি শুধু চিঠিপত্র আদান-প্রদানের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রয়েছেন।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, প্রযুক্তির এ যুগে এ ধরনের কর্মকাণ্ড চালানো সম্ভব হলেও এটা প্রশাসনিক শৃঙ্খলাবিরোধী। এটি স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রণালয়ের অফিস আদেশ অমান্যের পর্যায়ে পড়ে। ঘটনাটি ‘টক অব দ্য ওয়াসা’য় পরিণত হয়েছে।

জানা যায়, গত ১০ জুন এলজিআরডি মন্ত্রণালয় ঢাকা ওয়াসার এমডির এক মাসের ছুটি মঞ্জুর করে। চিঠিতে বলা হয়েছে, পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সময় কাটানো এবং চিকিৎসার জন্য ঢাকা ওয়াসার এমডি ১১ জুন থেকে ১০ জুলাই পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করবেন।

আর এ সময়ে ঢাকা ওয়াসার রুটিন দায়িত্ব পালন করবেন ঢাকা ওয়াসার উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক (প্রশাসন)। কিন্তু, অবিশ্বাস্য হলেও সত্য যে, মন্ত্রণালয়ের ওই আদেশের পর ঢাকা ওয়াসা থেকে সংস্থার এমডি প্রকৌশলী তাকসিম আরেকটি অফিস আদেশ জারি করেন।

ওই আদেশে তিনি বলেছেন, ‘আমার ছুটিকালীন সময়েও আমি নিজে যে কোনো পলিসি বা অন্যান্য বিষয়ে ইমু, হোয়াটসআপ, ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব পালন করব।

আর এই ছুটিকালীন সময়ে ঢাকা ওয়াসার স্ব স্ব উইংয়ের প্রধানগণ নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করবে এবং সরাসরি আমার সঙ্গে যোগাযোগ রাখবে। আর এই সময়ে ঢাকা ওয়াসার উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক (প্রশাসন) ঢাকা ওয়াসার কাজের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে বিভিন্ন সভায় উপস্থিত থেকে ঢাকা ওয়াসার প্রতিনিধিত্ব করবেন। অথবা সেসব সভায় উপস্থিত থাকার জন্য কোনো প্রতিনিধি নিযুক্ত করবেন।’

এ বিষয়ে জানতে ঢাকা ওয়াসার ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মাহমুদ হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করতে তার ব্যক্তিগত ফোন নম্বরে একাধিকবার কল করেও তার সাড়া মেলেনি।

তবে ঢাকা ওয়াসার উপ-প্রধান জনতথ্য কর্মকর্তা এমএ মোস্তফা তারেক যুগান্তরকে বলেন, ‘ঢাকা ওয়াসার এমডি প্রকৌশলী তাকসিম এ খান যুক্তরাষ্ট্রে ছুটিতে থেকেও সব ফাইলে স্বাক্ষর করছেন এবং ইমু, হোয়াটসআপ ও ভিডিও কনফারেন্সে প্রশাসনিক সব নির্দেশনা প্রদান করছেন।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় সরকার বিভাগের এক অতিরিক্ত সচিব যুগান্তরকে বলেন, ‘এটা সাধারণ কমনসেন্স। মন্ত্রণালয় একজনকে দায়িত্ব দিয়েছে, ঢাকা ওয়াসার এমডির ছুটিকালীন সময়ে তিনি দায়িত্ব পালন করবেন। এখন এমডি নিজে কীভাবে দায়িত্ব পালন করছেন, সেটা আমার বোধগম্য নয়।’

এ প্রসঙ্গে স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ যুগান্তরকে বলেন, ‘ঢাকা ওয়াসার এমডির অফিস আদেশে কী লেখা আছে, সেটা আমার জানা নেই। আমি বৃহস্পতিবার তার ছুটি সংক্রান্ত ফাইলপত্র দেখে আপনাকে জানাব।’

এ ব্যাপারে এলজিআরডি মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম যুগান্তরকে বলেন, ‘ছুটিতে থেকে সংস্থার কার্যক্রম মনিটরিং করা মন্দ নয়, তবে ফাইলপত্রে স্বাক্ষর করা আইনসম্মত কি না, সেটা যাচাই-বাছাই করে দেখতে হবে।’

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×