দেশব্যাপী বিএনপির বিক্ষোভ আজ

ব্যবসায়ীদের পকেট ভারি করতেই গ্যাসের দাম বৃদ্ধি : ফখরুল

৭ জুলাই আধা বেলা হরতাল গণতান্ত্রিক বাম জোটের

  যুগান্তর রিপোর্ট ০২ জুলাই ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, প্রতি চুলায় গ্যাসের দাম ১৭৫ টাকা বাড়ানো হয়েছে। সরকার শুধু তাদের এলএনজি গ্যাস আমদানিকারক ব্যবসায়ীদের সুবিধা দিতে ও তাদের পকেট ভারি করতেই এটা করেছে। এ সরকার নিজেই লুণ্ঠনকারী। অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে লুট করা অর্থ দিয়ে তারা তাদের ভবিষ্যৎ নির্মাণ করছে। এদিকে জনমত উপেক্ষা করে গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে গণতান্ত্রিক বাম জোট আগামী ৭ জুলাই সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত হরতালের ঘোষণা দিয়েছে। তারা বলেছে, দুর্নীতিবাজ, ঋণখেলাপি ও অর্থপাচারকারীদের সুবিধা দিতেই এ আয়োজন।

রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সোমবার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে মির্জা ফখরুল গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে মন্তব্য করেন। মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (এ্যাব)। এছাড়া গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে আজ মঙ্গলবার দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি।

মানববন্ধনে অংশ নিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, বাজেটের নামে সরকার ট্যাক্স আরোপ করছে। মধ্যবিত্ত, নিম্নবিত্ত ও সাধারণ মানুষের পকেট কেটে নিয়ে তারা তাদের লুণ্ঠনের সম্পদ বৃদ্ধি করছে। একদিকে বিদেশে সম্পদের পাহাড় গড়ে তোলা হচ্ছে অন্যদিকে সাধারণ মানুষ আরও গরিব হচ্ছে। এখন আবার গ্যাসের দাম বাড়িয়ে মানুষকে আরও সংকটে ফেলে দিয়েছে। মির্জা ফখরুল বলেন, আদালতের অজুহাত দেখিয়ে খালেদা জিয়াকে আটক করে রাখা হয়েছে। ২৬ লাখ মানুষের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা আছে, দেড় হাজারের ওপরে মানুষকে গুম করে ফেলা হয়েছে, হত্যা করা হয়েছে অসংখ্য। তারা ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করতে চায়। প্রকৌশলী মহসিন আলীর সভাপতিত্বে ও প্রকৌশলী রিয়াজুল ইসলাম রিজুর পরিচালায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন-জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি শওকত মাহমুদ, সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের রুহুল আমিন গাজী, অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, সিনিয়র সাংবাদিক সৈয়দ আবদাল আহমেদ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের কাদের গনি চৌধুরী, অধ্যক্ষ সেলিম ভুঁইয়া প্রমুখ।

আজ দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচি বিএনপির : গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে আজ ঢাকাসহ দেশব্যাপী জেলা সদর ও মহানগরগুলোতে বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষণা করেছে বিএনপি। সোমবার বিকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কর্মসূচির ঘোষণা দেন দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, মূলত ক্ষমতাসীনদের আত্মীয়স্বজনের লুটপাটের জন্যই গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি করেছে সরকার। গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি পেলে বিদ্যুতের দামও বাড়বে। বাড়বে কলকারখানার উৎপাদন খরচও। এর ফলে অবশ্যই জনজীবনে বিরূপ প্রভাব পড়বে। যারা সীমিত আয়ের লোক তাদের ওপর এর প্রভাব বেশি পড়বে। জীবনযাত্রার ব্যয় বেড়ে যাবে।

রিজভীর নেতৃত্বে বিক্ষোভ : গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ এবং খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিএনপি। মিছিলে নেতৃত্ব দেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। দুপুরে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠন সমূহ’র ব্যানারে মিছিলটি নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। মিছিলে অংশ নেন- বিএনপির প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুল ইসলাম হাবিব, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোশারফ হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদির ভুইয়া জুয়েল, মৎস্যজীবী দলের আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম মাহতাব, সদস্য সচিব আবদুর রহিম, স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদরেজ জামান প্রমুখ।

প্রেস ক্লাবের সামনে বাম গণতান্ত্রিক দলের বিক্ষোভ : গণতান্ত্রিক বাম জোট সোমবার প্রেস ক্লাবের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন। বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ), গণসংহতি আন্দোলন এবং তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির নেতাকর্মীরা বিক্ষোভে অংশ নেন। রোববার বিকালে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) গ্যাসের মূল্য প্রায় ৩৩ শতাংশ বৃদ্ধির ঘোষণা দেয়। রান্নার গ্যাসের এক চুলার মূল্য ৭৫০ টাকা থেকে বৃদ্ধি করে ৯২৫ টাকা।

দুই চুলার মূল্য ৮০০ টাকা থেকে ৯৭৫ টাকা হয়েছে। বাসাবাড়ির গ্যাসের পাশাপাশি যানবাহনে ব্যবহার করা সিএনজির (সংকুচিত প্রাকৃতিক গ্যাস) দামও বেড়েছে। সিএনজি গ্যাসের দাম ৩৮ থেকে বৃদ্ধি করে ৪৩ টাকা করা হয়েছে। সমাবেশে সিপিবির নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্স বলেন, গ্যাসের দাম বাড়ানোর আগে গণশুনানির আয়োজন করেছিল বিইআরসি। গ্যাস খাতের দুর্নীতিতে প্রতিবছর সরকারের ৮ হাজার ৪শ’ কোটি টাকা লোকসান হয়। এই দুর্নীতি বন্ধ করলে বাড়ানো তো দূরের কথা, দাম আরও কমাতে পারবে। তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, গ্যাসের দাম বাড়ানোর পেছনে সরকার যে যুক্তির কথা বলছে, তা হল বিদেশ থেকে এলএনজি (তরল প্রাকৃতিক গ্যাস) আমদানি। প্রশ্ন হল, এলএনজি আমদানির প্রয়োজন হল কেন। কারণ আমদানিকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, ঋণখেলাপি ও অর্থপাচারকারীদের সুবিধা দিতে এই আয়োজন। এলপিজির কোম্পানিগুলোকে সুবিধা দিতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সিপিবির সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ আলম বলেন, সরকার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছে, যা অযৌক্তিক। এর প্রতিবাদে ৭ জুলাই সকাল ৬টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত হরতাল পালন করা হবে। ৬ জুলাই পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। তিনি হরতাল সফল করতে দেশপ্রেমিক সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রেসিডেন্ট জোনায়েদ সাকি, সংগঠনটির নেতা জুলফিকার আলী এবং বাসদের বজলুর রশিদ ফিরোজ প্রমুখ। প্রতিবাদ সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল প্রেস ক্লাবের সামনের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি অযৌক্তিক-গণফোরাম : গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধিকে অযৌক্তিক বলে তা প্রত্যাহারের জন্য সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছে গণফোরাম। সোমবার এক বিবৃতিতে গণফোরাম বলেছে, যে হারে গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ অযৌক্তিক। সরকার দেশ পরিচালনায় ব্যর্থ। গ্যাসের দাম বাড়িয়ে জনগণের ওপর নতুন বোঝা চাপিয়ে দেয়া হচ্ছে।

দাম না বাড়িয়ে গ্যাস সংকট দূর করুন- বাংলাদেশ ন্যাপ : দাম না বাড়িয়ে গ্যাসের সংকট দূর করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ। গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে দলটির পক্ষ থেকে এ দাবি জানানো হয়।

জনমতকে উপেক্ষা করে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতিতে ন্যাপের চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া বলেন, আবাসিক গ্রাহকদের চুলায় নিয়মমতো গ্যাস সরবরাহ ও সারা দেশে ন্যায্যমূল্যে নিরাপদ গ্যাস সিলিন্ডার দেয়ার পরিবর্তে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি কার স্বার্থে? তারা বলেন, দেশের জনগণকে গ্যাস থেকে বঞ্চিত করবেন না।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×