গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদ বিএনপির

বিভিন্ন স্থানে মিছিলে বাধা, পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি

কথায় কথায় মানুষের পকেট কাটা সরকারের অভ্যাস : আলাল

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৩ জুলাই ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদ বিএনপির
গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদ বিএনপির, ছবি: সংগৃহীত

গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে মঙ্গলবার রাজধানীসহ দেশজুড়ে বিক্ষোভ করেছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা। মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি তারা পালন করেন।

মিছিল-সমাবেশে নেতারা বলেন, কথায় কথায় সাধারণ মানুষের পকেট কাটা এ সরকারের অভ্যাসে পরিণত হয়ে গেছে। তারা বলেন, জনগণের ওপর জুলুম ও শোষণ-নির্যাতন চালিয়ে ক্ষমতা দখলের মাধ্যমে দেশের সম্পদ লুটপাট করাই এ সরকারের একমাত্র লক্ষ্য। গ্যাসের দাম বৃদ্ধি তারই বহিঃপ্রকাশ।

ময়মনসিংহ ও নাটোরসহ কয়েকটি স্থানে বিএনপির বিক্ষোভ-মিছিলে পুলিশের বাধা দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। কোথাও কোথাও পুলিশের সঙ্গে দলটির নেতাকর্মীদের ধস্তাধস্তির ঘটনাও ঘটেছে।

দুপুরে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির উদ্যোগে এক মিছিল নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। এতে নেতৃত্ব দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

মিছিলে বিএনপির প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুল ইসলাম হাবিব, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার, সহসভাপতি ইউনুস মৃধা, নবী উল্লাহ নবী, মোশারফ হোসেন খোকন, মীর হোসেন মীরু, যুগ্ম সম্পাদক আরিফুর রহমান নাদিম, সাংগঠনিক সম্পাদক তানভীর আহমেদ রবিন, পল্টন থানা বিএনপির সভাপতি লোকমান হোসেন ফকির, বংশাল থানা বিএনপির সভাপতি তাইজুদ্দিন আহমেদ তাইজু, চকবাজার থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বাবুল প্রমুখ।

মিছিল শেষে কাজী আবুল বাশারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে রুহুল কবির রিজভী বলেন, বর্তমান মধ্যরাতের ভোটের সরকার জনগণকে কষ্টে ফেলতেই ভোক্তা পর্যায়ে গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি করেছে।

অপর এক অনুষ্ঠানে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, কথায় কথায় গ্যাসের দাম বাড়ানো সরকারের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। তিতাস গ্যাস একটি পূর্ণ লাভজনক প্রতিষ্ঠান। এ প্রতিষ্ঠানের কাছে সরকারের রাজস্ব পাওনা রয়েছে ২০ হাজার কোটি টাকা। ডেসা, ডেসকো মিলে আরও কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের কাছে এনবিআরের পাওনা প্রায় ২৫ হাজার কোটি টাকা।

৪৫ হাজার কোটি টাকা ফাঁকি দিয়ে সেখান থেকে আওয়ামী লুটেরাদের সুবিধা দিচ্ছে সরকার। দুর্নীতি, লুট না থামিয়ে গ্যাসের দাম বাড়িয়ে সাধারণ মানুষের ওপর বোঝা চাপিয়ে দিচ্ছে সরকার। রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী চালক দল আয়োজিত মানববন্ধনে আলাল আরও বলেন, অন্যদিকে গ্যাসের অপচয় রোধ না করে উল্টো সাধারণ মানুষের ওপর বাড়তি দাম চাপানো হয়েছে। এভাবে গ্যাসের দাম বাড়ানো শেখ মুজিবের আওয়ামী লীগকে মানায় না।

এটা শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগকে মানালেও শেখ মুজিবের আওয়ামী লীগের ধ্যান-ধারণার সঙ্গে যায় না। কথায় কথায় সাধারণ মানুষের পকেট কাটা এ সরকারের অভ্যাসে পরিণত হয়ে গেছে।

জসিম উদ্দীন কবিরের সভাপতিত্বে ও কেএম রকিবুল ইসলাম রিপনের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য দেন বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, মানিক তালুকদার, মুক্তার আকন্দ প্রমুখ।

গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে কেন্দ্র ঘোষিত বিক্ষোভের অংশ হিসেবে রাজশাহী, বরিশাল, ময়মনসিংহ, যশোরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে মিছিল করেছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা। এ সম্পর্কে ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

রাজশাহী : নগরীর মালোপাড়ায় মহানগর বিএনপি কার্যালয়ের নিচে আয়োজিত সমাবেশে বিএনপি এবং এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেন। সমাবেশে মহানগর বিএনপির সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলনসহ নেতারা বক্তব্য দেন।

বরিশাল : নগরীর সদর রোডের দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিএনপির বরিশাল উত্তর ও দক্ষিণ জেলা শাখা সমাবেশের আয়োজন করে। দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি এবায়দুল হক চানের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন উত্তর জেলা বিএনপির সভাপতি মেজবাহ উদ্দিন ফরহাদ, দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম শাহিন প্রমুখ।

ময়মনসিংহ : নগরীর নতুনবাজার দলীয় কার্যালয়ের সামনে দক্ষিণ জেলা বিএনপি বিক্ষোভ মিছিল বের করতে চাইলে পুলিশ বাধা দেয়। পরে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য দেন দক্ষিণ জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক একেএম শফিকুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক আবু ওয়াহাব আকন্দ। অপরদিকে ময়মনসিংহ প্রেস ক্লাবের সামনে উত্তর জেলা বিএনপির সমাবেশে বক্তব্য দেন ময়মনসিংহ উত্তর জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মোতাহার হোসেন তালুকদার, যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুল বাসার আকন্দ ও যুবদলের নেতা কামারুজ্জামান লিটন। তারাকান্দায় বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলের নেতৃত্ব দেন জেলা (উ.) বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন তালুকদার।

যশোর : শহরের লালদীঘির পাড়ে জেলা বিএনপি কার্যালয় চত্বরে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যাপক নার্গিস বেগমের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট সাবেরুল হক সাবু, যুগ্ম আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকন, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

গাইবান্ধা : দলীয় কার্যালয়ের সামনে জেলা বিএনপির সভাপতি অধ্যাপক ডা. মঈনুল হাসান সাদিকের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাহামুদুন্নবী টিটুল, বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

নাটোর : জেলা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল পুলিশি বাধায় পণ্ড হয়ে গেছে। শহরের আলাইপুরে অস্থায়ী কার্যালয় থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করার চেষ্টা করলে পুলিশ বাধা দেয়। পরে দলের অস্থায়ী কার্যালয়ে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সহসভাপতি শহিদুল ইসলাম বাচ্চু, খবির উদ্দীন শাহ, বিএনপি নেতা রহিম নেওয়াজ, প্রচার সম্পাদক ফরহাদ আলী দেওয়ান শাহীন প্রমুখ।

নরসিংদী : বিএনপির নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে ঢাকা-সিলেট মাহসড়কে উঠতে গেলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়। এ সময় বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে পুলিশ। জেলখানা মোড়ে প্রতিবাদ সমাবেশে জেলা বিএনপির সভাপতি খায়রুল কবির খোকন, যুগ্ম সম্পাদক হারুনুর রশিদ প্রমুখ বক্তব্য দেন।

মানিকগঞ্জ : কোট চত্বরে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট জামিলুর রশিদ খানের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ কর্মসূচিতে বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আতাউর রহমান আতা, সাবেক সহসভাপতি আবদুল বাতেন, যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট মাকসুদুর রহমান মুকুল প্রমুখ।

টাঙ্গাইল : শহরের ভিক্টোরিয়া রোডে দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে মিছিল বের করতে চাইলে পুলিশ বাধা দেয়। পরে সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ ইকবাল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সহসভাপতি আতাউর রহমান জিন্নাহ, যুগ্ম সম্পাদক আবুল কাসেম, জেলা যুবদলের আহ্বায়ক আশরাফ পাহেলী, জেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক একেএম মনিরুল হক মনির, প্রমুখ।

খাগড়াছড়ি : শহরের মিল্লাত চত্বর থেকে জেলা বিএনপি মিছিল নিয়ে আদালত সড়কের দিকে যেতে চাইলে পুলিশ বাধা দেয়। পরে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এমএন আফসার।

পটুয়াখালী : জেলা আইনজীবী সমিতি প্রাঙ্গণে জেলা বিএনপির মানববন্ধন পুলিশের বাধায় পণ্ড হয়ে গেছে। ব্যানার ছিনিয়ে নেয়ায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতাকর্মীদের ধস্তাধস্তির ঘটনাও ঘটে।

ফরিদপুর : জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ জুলফিকার হোসেনের নেতৃত্বে একটি মিছিল শহরের কোর্টপাড়া থেকে শুরু হয়ে স্টেশন রোড মোড়ে শেষ হয়। সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান হাফিজ, প্রচার সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন দিলা, আইনবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট জসিম উদ্দিন মৃধা প্রমুখ।

সুনামগঞ্জ : জেলা বিএনপির সহসভাপতি ওয়াকিফুর রহমান গিলমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম নূরুলের পরিচালনায় বিক্ষোভ-পরবর্তী সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য নজির হোসেন, সহসভাপতি আ ত ম মিসবাহ, নাদির আহমদ, আবুল কালাম, যুগ্ম সম্পাদক নুর হোসেন প্রমুখ।

বগুড়া : শহরের দলীয় কার্যালয়ের সামনে জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট একেএম সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য দেন যুগ্ম আহ্বায়ক ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল, জয়নাল আবেদীন চান, রেজাউল করিম বাদশা প্রমুখ।

জামালপুর : দলীয় কার্যালয়ের সামনে জেলা বিএনপির সহসভাপতি লিয়াকত আলীর সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আইনজীবী ওয়ারেছ আলী মামুন, আইনজীবী মনজুর কাদের বাবুল খান, লোকমান আহমেদ খান লোটন প্রমুখ।

সিলেট : নগরীর কোর্ট পয়েন্ট থেকে শুরু হয়ে মহানগর বিএনপির মিছিলটি চৌহাট্টায় শহীদ মিনারের সামনে গিয়ে শেষ হয়। মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইনের সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আজমল বখত চৌধুরী সাদেকের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মিছিল-পূর্ব সমাবেশে বক্তব্য দেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-ক্ষুদ্রঋণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রাজ্জাক, বিএনপি নেতা হুমায়ুন কবির শাহীন, সালেহ আহমদ খসরু প্রমুখ।

রংপুর : নগরীর গ্র্যান্ড হোটেল মোড়ে দলীয় কার্যালয়ে বিএনপির কেন্দ্রীয় ক্ষুদ্র কুটির শিল্প সম্পাদক ও মহানগর বিএনপির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর হোসেনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিজু, জেলা বিএনপির সহসভাপতি সাহিদা রহমান জোসনা, মামুনুর রশিদ মামুন, মহানগর বিএনপির সহসভাপতি রুহুল আমিন বাবলু, মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম প্রমুখ।

গাজীপুর : জেলা কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী সাইয়েদুল আলম বাবুল বলেন, বন্দুকের ভয় দেখিয়ে কেউ আজীবন ক্ষমতায় থাকতে পারেনি, আওয়ামী লীগও পারবে না। শ্রীপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি শাজাহান ফকিরের সভাপতিত্বে এবং জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সবুজের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন আবদুল মোত্তালিব, সাখাওয়াত হোসেন সেলিম, ফজলুল হক, কুতুব উদ্দিন আহমেদ, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×