একনেকে প্রধানমন্ত্রী

ডেমু ট্রেন আর নয়

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৭ জুলাই ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ডেমু ট্রেন আর নয়
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি: সংগৃহীত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘এর আগে কেনা ডেমু ট্রেনগুলো যেহেতু যাত্রীদের উপকারে আসেনি এবং অনেকগুলো নষ্ট হয়ে আছে। সেহেতু আর নতুন করে এই ট্রেন কেনা হবে না। বরং অন্য ট্রেন কিনুন।’

‘বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক এবং ঢাকার মধ্যে শাটল ট্রেন চালুর জন্য ডেমু সংগ্রহ’ প্রকল্প নাকচ করে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী সংশ্লিষ্টদের উদ্দেশে এ কথা বলেন। জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় মঙ্গলবার ওই প্রকল্প উপস্থাপন করা হয়।

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে সভা শেষে পরিকল্পনা সচিব নুরুল আমিন এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, গরুসহ অন্যান্য পশুর চামড়া যাতে সঠিকভাবে সংগৃহীত হয় সেজন্য কসাইদের প্রশিক্ষণ দেয়ার নির্দেশনাসহ বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। প্রত্যেক উপজেলায় একটি করে মিনি স্টেডিয়াম তৈরি করতে বলেছেন তিনি।

নুরুল আমিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী ডেমু সংগ্রহ প্রকল্প সংশোধন করে অন্য কোনো ট্রেন কেনার নির্দেশনা দিয়েছেন। তিনি ঢাকা থেকে কালিয়াকৈর পর্যন্ত সকালের অফিস সময়ের ট্রেনটি বিরতিহীন করারও নির্দেশ দেন।

তবে পরের ট্রেনগুলোকে সব স্টেশনে বিরতি রাখতে বলেন। সূত্র জানায়, ডেমু সংগ্রহের প্রকল্পটি বাস্তবায়নে ব্যয় প্রস্তাব করা হয়েছিল ৪১৫ কোটি ৭১ লাখ টাকা।

এর আওতায় ৬ সেট ব্রডগেজ ডিজেল ইলেকট্রিক মাল্টিপল ইউনিট (ডেমু) সংগ্রহের কথা ছিল। ৬৫৫ কোটি টাকা খরচে ২০১৩ সালে কেনা ২০ সেট ট্রেনের অর্ধেকই এখন অকেজো হয়ে আছে।

পরিকল্পনা সচিব জানান, ‘এক্সপোর্ট কম্পিটিটিভনেস ফর জবস’ নামের একটি প্রকল্প অনুমোদন দিতে গিয়ে চামড়াজাত পণ্য রফতানির বিষয়টি আলোচনায় আসলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রতিবছর আমাদের দেশে অনেক চামড়া নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। তাছাড়া এর সংগ্রহ এবং সংরক্ষণ পদ্ধতি অনেক সময় সঠিক হয় না। এজন্য গরুসহ অন্যান্য পশুর চামড়া যাতে সঠিকভাবে সংগ্রহ করা হয় সেজন্য কসাইদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে।

নুরুল আমিন বলেন, পর্যটন নগরী কক্সবাজারকে পরিকল্পিতভাবে সাজাতে একটি মাস্টারপ্ল্যান তৈরির জন্য কক্সবাজার উন্নয়ন কর্র্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

এছাড়া আলাদাভাবে জেলা প্রশাসনকে আরও একটি মাস্টারপ্ল্যান তৈরি করতে বলেছেন। এক্ষেত্রে শেখ হাসিনা বলেছেন, আগে মাস্টারপ্ল্যান, তারপরেই উন্নয়ন প্রকল্প নিতে হবে। সেসব প্রকল্পের মানসম্মত বাস্তবায়ন করতে হবে। যেখানে-সেখানে স্থাপনা তৈরি করা যাবে না। প্রাকৃতিক দুর্যোগের হাত থেকে কক্সবাজারকে রক্ষা করতে ঝাউবন সৃজনেরও নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি।

সচিব জানান, কালিয়াকৈরে বঙ্গবঙ্গু হাইটেক পার্কে খেলাধুলা, বিনোদন এবং শপিংমল তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া প্রত্যেক উপজেলায় একটি করে মিনি স্টেডিয়াম তৈরি করতে বলেছেন। সেসব স্টেডিয়াম কোনো স্কুল, কলেজ বা মাদ্রাসার মাঠে নয়, আলাদা স্থানে তৈরি করতে হবে।

প্রয়োজনে উপজেলা শহরের একটু বাইরে হলেও কোনো খোলা স্থানে স্টেডিয়ামগুলো নির্মাণ করতে হবে। এসব স্টেডিয়ামের একদিকে গ্যালারি থাকবে। বাকি তিন দিক খোলা রাখতে হবে।

যাতে মাঠের ভেতর কী হচ্ছে তা সাধারণ মানুষ দেখতে পারেন। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আমরা উন্নয়ন চাই, তবে তা যেন ভালো কাজ হয়। ‘নির্বাচিত ছয়টি উপজেলায় স্টেডিয়াম নির্মাণ’ নামের একটি প্রকল্প অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করা হলে প্রধানমন্ত্রী এসব নির্দেশনা দিয়েছেন। এ প্রকল্পটি অনুমোদন দেয়া হয়নি।

‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ ট্রেনের উদ্বোধন আজ : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে বেনাপোল-ঢাকা-বেনাপোল রুটে নতুন আন্তঃনগর ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ ট্রেনের উদ্বোধন করবেন। দ্রুতগতির বিরতিহীন আধুনিক এ ট্রেন সপ্তাহে পাঁচ দিন চলবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×