উত্তাল যমুনায় নৌকাডুবি

৭০ কিমি. ভেসে জীবিত ফিরেছে নিখোঁজ শিশু

  মদনমোহন ঘোষ, দেওয়ানগঞ্জ (জামালপুর) ১০ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জামালপুর

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে ইঞ্জিনচালিত নৌকাডুবিতে নিখোঁজ হয়েছিল শিক্ষার্থীসহ ৬ যাত্রী। এদের মধ্যে দুই শিক্ষার্থী অলৌকিকভাবে বেঁচে ফিরেছে। উত্তাল যমুনায় প্রায় ৭০ কিমি. ভেসে থেকে বেঁচে থাকার সংগ্রামে জয়ী হয়েছে তারা।

এ ঘটনায় লাশ উদ্ধার করা হয়েছে ২ জনের। এখনও নিখোঁজ রয়েছে ২ যাত্রী।

জানা গেছে, শুক্রবার বগুড়ার সারিয়াকান্দি থেকে উদ্ধার করা হয় নয়ন নামে এক ছাত্রকে। সাহসী এ শিশু উত্তাল যমুনায় ভেসেছিল দু’দিন। শুক্রবার সারিয়াকান্দিতে একটি কাশবনে প্রায় অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করেন স্থানীয় পাট শ্রমিকরা। পরে কিছুটা সুস্থ হলে সে সাংবাদিকদের জানিয়েছে চিত হয়ে দীর্ঘ সময় সাঁতার কেটে বেঁচে ফিরেছে সে।

এর আগে বৃহস্পতিবার উদ্ধার করা হয় মমতা বিথি নামে এক ছাত্রীকে। ওই ছাত্রীও উত্তাল যমুনায় সাহসের সঙ্গে বেঁচে থাকার সংগ্রাম করেছে। প্রায় ৭০ কিমি. পথ কাঠের টুকরো ধরে ভেসে থেকেছে। তাকে সারিয়াকান্দির চন্দন বাইসা ঘুঘুমারি থেকে জীবিত উদ্ধার করা হয়।

এদিকে নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ আরও দুই যাত্রীর লাশ শুক্রবার উদ্ধার হয়েছে। এর মধ্যে দুপুরে দেওয়ানগঞ্জ থেকে ৭০ কিমি. ভাটিতে পাতালবাড়ি থেকে উদ্ধার রেজিয়া খাতুনের (৪৫) লাশ উদ্ধার করা হয়।

এছাড়া বিকালে পার্শ্ববর্তী উপজেলা ইসলামপুরের জিগাবাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে তৈয়ব আলীর ছেলে দুলালের (৩০) লাশ। এখনও ওই নৌকার দুই যাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন।

জানা যায়, গাইবান্ধার পলাশবাড়ি উপজেলার বেদকা গ্রামের শাহনূরের ছেলে নয়ন বড়ভাই সেলিমের শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে এসেছিল। ত্রাণ নিয়ে ফেরার সময় নৌকাটি ডুবে যাওয়ার পর সারা রাত যমুনায় ভাসতে ভাসতে বৃহস্পতিবার সকালে সারিয়াকান্দির তীরে আসে।

একই দিন ভোরে মমতা বিথী নামে ৭ বছরের এক মেয়ে শিশুকে উদ্ধার করেছেন পারভিন বেগম নামের এক গৃহবধূ। সারিয়াকান্দির চন্দনবাইশার শেখপাড়া থেকে তাকে জীবিত উদ্ধার করা হয়।

সারিয়াকান্দি থানার ওসি আল আমিন জানান, শুক্রবার দুপুরে মমতাকে তার মায়ের কাছে ও নয়নকে তার ভাইয়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

দেওয়ানগঞ্জের চরহলকা গ্রামের ময়েন উদ্দিনের স্ত্রী ফিরোজা বেগম জানান, তার মেয়ে মমতা বিথী স্থানীয় হাবরাবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণির ছাত্রী। তারা বুধবার রাতে চুকাইবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ভিজিএফের চাল নিয়ে নৌকায় চরহলকা গ্রামের বাড়িতে ফিরছিলেন। ঝড়ের কবলে ২৭ যাত্রীসহ নৌকাটি মাঝ নদীতে ডুবে যায়। এলাকাবাসী ২১ জনকে উদ্ধার করতে সক্ষম হন। নিখোঁজ হয় বিথী ও নয়নসহ ৬ জন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×