১০৭ দিনে নিহত ৯৮৫

ঈদের ছুটিতে সড়কে গেল ৩৮ প্রাণ

  যুগান্তর ডেস্ক ১৫ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঈদের ছুটিতে সড়কে গেল ৩৮ প্রাণ

ঈদের ছুটিতে দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেছে ৩৮ জনের। এর মধ্যে রাজধানী, দিনাজপুর ও কুমিল্লায় চারজন করে; বগুড়ায় ও কুষ্টিয়ায় তিনজন করে; গাইবান্ধা, নারায়ণগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, লক্ষ্মীপুর ও গোপালগঞ্জে দু’জন করে; নাটোর, রংপুর, পটুয়াখালী, ময়মনসিংহ, ভোলা, টাঙ্গাইল, নওগাঁ, মাদারীপুর, মৌলভীবাজার ও খুলনায় একজন করে নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে ১০৭ দিনে সড়কে প্রাণহানি হয়েছে ৯৮৫ জনের।

যুগান্তর রিপোর্ট, ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

ঢাকা : মঙ্গলবার বিমানবন্দর এলাকায় বাসচাপায় নিহত হন ময়মনসিংহের সেলিম। সোমবার রাতে উত্তর বাড্ডার ফুজি টাওয়ারের সামনে পিকআপ ভ্যানের ধাক্কায় নিহত হন রিমভি নামে এক গৃহবধূ।

আহত হয়েছেন রিমভির স্বামী বাবুল ও তার শিশু ছেলে। একই রাতে শান্তিনগরে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নিহত হন সোহেল নামে এক যুবক। এছাড়া মঙ্গলবার মেয়র হানিফ ফ্লাইওভার টোলপ্লাজার কাছে বাসের ধাক্কায় নিহত হয়েছেন এক মোটরসাইকেল আরোহী। তার পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

দিনাজপুর ও বিরামপুর : মঙ্গলবার জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলা থেকে একটি পিকনিকের বাস দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার স্বপ্নপুরী যাচ্ছিল। পথে নবাবগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুরে ছাদ থেকে বুলবুল হোসেন ও আলিফ হোসেন নামে দু’জন নিচে পড়ে গিয়ে নিহত হন। নিহত বুলবুল হোসেন পাঁচবিবি উপজেলার ফেসকারহাটের আপিল উদ্দীনের ছেলে।

একই উপজেলায় বুধবার মোটরসাইকেলের ধাক্কায় আবেদ আলী নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। তিনি উপজেলার গাজীপুরের ইসমাঈল হোসেনের ছেলে। এ সময় মোটরসাইকেলের চালকসহ দু’জন আহত হন। নবাবগঞ্জ-পীরগঞ্জ সড়কের গাজীপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

সোমবার চিরিরবন্দর উপজেলার আলোকডিহি ইউনিয়নের রাসডাঙ্গায় মাইক্রোবাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী আবদুর রফের ছেলে শাহারিয়ার সাব্বির ও একই গ্রামের ওয়েদ মাস্টারের ছেলে আসাদুল ইসলাম নিহত হয়েছেন।

বগুড়া : শাজাহানপুরে আড়িয়াবাজারে বুধবার দুপুরে দুটি কোচের মুখোমুখি সংঘর্ষে এক দম্পতিসহ তিনজন নিহত ও ১৫ যাত্রী আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- রংপুর সদরের কামার কাছনা গ্রামের আবদুল্লাহেল কাফীর ছেলে খায়রুল আনাম, তার স্ত্রী রানু বেগম ও বাসের চালক। বাসচালকের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এছাড়া সোমবার শাজাহানপুর উপজেলার নয়মাইল এলাকায় বগুড়া-ঢাকা মহাসড়ক পার হওয়ার সময় অজ্ঞাত যানবাহনের ধাক্কায় মানিক নামে এক ভ্যানচালক নিহত হন। তিনি উপজেলার জামালপুর গ্রামের আবু জাফরের ছেলে।

কুষ্টিয়া ও দৌলতপুর : কুমারখালী উপজেলার কাজিপাড়া মোড়ে রোববার বাসের ধাক্কায় সাইকেলআরোহী বৃদ্ধ আবদুল গফুর শেখ নিহত হয়েছেন। এছাড়া সোমবার মিরপুর উপজেলায় দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে যুবক খোকন বিশ্বাস নিহত হন। তিনি উপজেলার নওদাপাড়ার সলেমান বিশ্বাসের ছেলে।

বাসের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন মোটারসাইকেল আরোহী মহিলা অধিদফতরের কর্মচারী আবদুল বারেক মণ্ডল। তিনি কুমারখালী উপজেলা মহিলা অধিদফতরে কর্মরত ছিলেন।

তিনি উপজেলার কয়া মণ্ডলপাড়ার হোসেন মণ্ডলের ছেলে এবং মাই টিভির কুষ্টিয়া প্রতিনিধি আবদুর রাজ্জাকের ভাই। বুধবার কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী সড়কের আলাউদ্দিননগর কালুর মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

চান্দিনা ও দেবিদ্বার (কুমিল্লা) : ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মুন্সীগঞ্জের ভবেরচরে মঙ্গলবার মাইক্রোবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসের মধ্যে ঢুকে যায়। এতে মাইক্রোবাসের যাত্রী দেবিদ্বার উপজেলা বিএনপির সভাপতি আয়কর আইনজীবী মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ উদ্দিন আহমেদ ও তার দেড় বছর বয়সী নাতনি মাসকুরা আক্তার নিহত হয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ফরিদ উদ্দিন আহমেদের স্ত্রী, ছেলে, ছেলের স্ত্রী ও ড্রাইভারকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চান্দিনা উপজেলার হাড়িখোলা-কাবিলপুলে মঙ্গলবার বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। এতে অন্তত ১০ যাত্রী আহত হন। এছাড়া রোববার চান্দিনা পালকি সিনেমা হল সংলগ্ন স্থানে মাইক্রোবাস দুর্ঘটনায় দু’জন নিহত হন। আহত হন অন্তত পাঁচ যাত্রী।

নিহতরা হলেন- লক্ষীপুরের চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়নের আবদুল মতিন মিয়ার ছেলে ইব্রাহীম ও ঢাকার ধামরাই উপজেলার ভরাটিয়া গ্রামের ইসমাইল হোসেনের ছেলে গাড়িচালক জাহাঙ্গীর।

গাইবান্ধা : গাইবান্ধা-সুন্দরগঞ্জ সড়কে সদর উপজেলার খোলাহাটী ইউনিয়নের ঠাকুরেরদীঘি এলাকায় মঙ্গলবার অটোরিকশার সঙ্গে মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে দু’জন নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- অটোরিকশার ড্রাইভার খোরশেদ আলম ও যাত্রী রোমান মিয়া। এ ঘটনায় আরও চার যাত্রী আহত হয়েছেন।

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) : রূপগঞ্জে ট্রাক ও অটোরিকশার সংঘর্ষে পুলিশ কনস্টেবলসহ দু’জন নিহত হয়েছেন। রোববার এশিয়ান হাইওয়ে বাইপাস সড়কের কালাদী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত পুলিশ কনস্টেবল সায়মন ইসলাম দুর্জয় ঢাকার উত্তরখান চাঁনপুরের আবদুস সালামের ছেলে ও মেরুল বাড্ডার স্বর্ণ ব্যবসায়ী নিশি কান্ত দাসের ছেলে শিপন চন্দ্র দাস।

মানিকগঞ্জ : ঢাকা-আরিচা মহসড়কের মানিকগঞ্জের জোকা এলাকায় ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে পানিতে ডুবে যায়। ওই ট্রাকের নিয়ে চাপা পড়ে ট্রাকে থাকা দুই গরু ব্যবসায়ী নিহত হন। এ দুর্ঘটনায় আহত হন আরও সাত ব্যবসায়ী। সোমবার ভোরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানার উজান গ্রামের দাউদ আলীর ছেলে উজুল আলী ও একই এলাকার হাউজ আলীর ছেলে মনোয়ার হোসেন মানু।

লক্ষ্মীপুর : মোটরসাইকেল চালক ও এক পথচারী নিহত হয়েছেন। সোমবার রাতে রায়পুর-চাঁদপুর সড়কের চরপাতা ইউনিয়নের বোর্ডার বাজারে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় মো. ফয়সাল নামে এক পথচারী আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন মোটরসাইকেল চালক রায়পুর পৌরসভার দেনায়েতপুরের খোকন মিয়ার ছেলে জাহিদ হোসেন ও পথচারী ফরিদগঞ্জ উপজেলার নলগাঁ গ্রামের মো. সোলেমানের ছেলে মো. অন্তর।

কাশিয়ানী (গোপালগঞ্জ) : কাশিয়ানীতে দুই স্থানে বাসচাপায় বৃদ্ধাসহ দুই পথচারী নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে কাশিয়ানী উপজেলার ফুকরা ও মাঝিগাতি এলাকায় এ দুটি দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতদের একজন হলেন কাশিয়ানী উপজেলার সাহেবের চরের মোসলেম শেখের স্ত্রী কুলসুম বেগম ও অপর নিহতের পরিচয় জানা যায়নি।

মধুপুর (টাঙ্গাইল) : মধুপুরে বনের রাস্তায় গাড়িচাপায় অজ্ঞাতনামা এক মানসিক প্রতিবন্ধী ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। বুধবার সকালে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ সড়কের মধুপুর উপজেলার বনাঞ্চলের বিমান ঘাঁটি এলাকার টেলকিতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নওগাঁর মান্দায় ভটভটিচাপায় গৃহবধূ আকলিমা খাতুন নিহত হয়েছেন। টেকেরহাট-কবিরাজপুর সড়কের মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার আনার ভাঙ্গা এলাকায় সোমবার মোটরসাইকেল গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে চালক সোহাগ মুন্সি নিহত হন। মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় মঙ্গলবার মোটরসাইকেলের ধাক্কায় নিহত হয়েছেন রশিদ মিয়া। তার বাড়ি কাড়েরা গ্রামে।

খুলনার পাইকগাছায় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় ফায়েক নামে এক কিশোর নিহত হয়েছে। সে উপজেলার লক্ষ্মীখোলা গ্রামের আবদুল মান্নান মোল্যার ছেলে। নাটোরের বড়াইগ্রামে পুলিশ পিকআপ ভ্যানের সঙ্গে মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে শাহজাহান আলী নামে এক ব্যক্তি নিহত ও এডিশনাল এসপি হারুন অর রশিদসহ তিনজন আহত হয়েছেন। রংপুরের কাউনিয়ার শিবু কানিপাড়ায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাসের সঙ্গে সংঘর্ষে অটোরিকশার যাত্রী আবদুর রশিদ নিহত ও ১০ যাত্রী আহত হয়েছেন।

ভোলার ইলিশা সড়ক পার হওয়ার সময় ট্রলির ধাক্কায় মঙ্গলবার বৃদ্ধ আবু তাহের নিহত হয়েছেন।

বুধবার দুপুরে ময়মনসিংহ-শেরপুর সড়কের ফুলপুর উপজেলার ইমাদপুরে আটোরিকশার সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে সাতজন গুরুতর আহত হন। তাদের ময়মনসিংহ হাসপাতালে নেয়ার পর বিকালে ইমাদপুর গ্রামের নির্মাণ শ্রমিক আবুল হোসেনের মৃত্যু হয়।

কলাপাড়া-কুয়াকাটা সড়কের শেখ কামাল সেতুসংলগ্ন নীলগঞ্জে মঙ্গলবার রাতে অটোরিকশার ধাক্কায় মোটরসাইকেলের যাত্রী মনির হোসাইন আহত হন। বুধবার সকালে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×