কাবুলে বিয়ের আনন্দ ভাসল রক্তের স্রোতে

বোমা হামলায় নিহত ৬৩ আহত ১৮২

  যুগান্তর ডেস্ক ১৯ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৬৩ জন নিহত এবং দেড় শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন। শিয়া মুসলিম অধ্যুষিত পশ্চিম কাবুলের একটি হোটেলে স্থানীয় সময় শনিবার রাত পৌনে ১১টার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে।
ছবি: সংগৃহীত

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৬৩ জন নিহত এবং দেড় শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন। শিয়া মুসলিম অধ্যুষিত পশ্চিম কাবুলের একটি হোটেলে স্থানীয় সময় শনিবার রাত পৌনে ১১টার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

এতে মুহূর্তের মধ্যে বিয়ের আনন্দ রক্তের স্রোতে ভেসে যায়। আগত পুরুষরা প্রায় সবাই নিহত বা আহত হন। এ হামলার দায় স্বীকার করে রোববার রাতে বিবৃতি দিয়েছে ইসলামিক স্টেট (আইএস)। খবর বিবিসি, সিএনএন, আলজাজিরা ও রয়টার্সের।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাসরাত রাহিমি বোমা হামলায় বহু হতাহতের খবর নিশ্চিত করলেও সঠিক সংখ্যা জানাতে পারেননি। পুলিশ জানায়, এ ঘটনায় ৬৩ জন নিহত ও ১৮৫ জন আহত হয়েছেন। কোনো কোনো সূত্রে অবশ্য নিহতের সংখ্যা আরও বেশি বলে দাবি করা হচ্ছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পশ্চিম কাবুলের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের শাহরে দুবাই হোটেলে এক আত্মঘাতী হামলাকারী নিজের শরীরে থাকা বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে বহু মানুষ হতাহত হন। হতাহতের মধ্যে অধিকাংশই পুরুষ। আফগানিস্তানে বিয়েতে সাধারণত নারী ও শিশুদের থেকে পুরুষদের আলাদা স্থানে রাখা হয়।

শনিবার রাতে পুরুষদের ওপরই হামলা করা হয়। বিয়েতে আসা অতিথি মোহাম্মদ ফারহাদ জানান, পুরুষরা যেখানে অবস্থান করছিলেন সেখানে যখন প্রচণ্ড বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায় তখন তিনি ছিলেন নারী ও শিশুদের অবস্থানের কাছে। সবাই চিৎকার করে কাঁদতে কাঁদতে বাইরে দৌড়ে বেরিয়ে যান। প্রায় ২০ মিনিট ধরে পুরো হলরুমটি ছিল ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন।

বিয়ের অনুষ্ঠানের ওয়েটার সৈয়দ আগা শাহ বলেন, হামলায় বেশ কয়েকজন ওয়েটার নিহত বা আহত হয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিতে দেখা যাচ্ছে বিয়ের অনুষ্ঠানস্থলে মৃতদেহগুলো ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে।

এ হামলার দায় অস্বীকার করে তালেবান নিন্দা জানিয়েছে। গণমাধ্যমে পাঠানো এক বার্তায় তালেবান মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেন, নারী ও শিশুদের টার্গেট করে এ ধরনের নিষ্ঠুর হত্যাকাণ্ডের কোনো যৌক্তিকতা নেই। এখন পর্যন্ত এ ঘটনার দায় অন্য কোনো গোষ্ঠী স্বীকার করেনি।

যদিও কথিত ইসলামিক স্টেট ও তালেবানসহ সুন্নি মুসলিম জঙ্গিরা প্রায় আফগানিস্তান ও পাকিস্তানে সংখ্যালঘু শিয়া সম্প্রদায়কে লক্ষ্য করে হামলা চালায়। এ হামলার মাত্র ১০ দিন আগে কাবুল পুলিশ স্টেশনের কাছে বোমা বিস্ফোরণে ১৪ জন নিহত হন। অবশ্য সেই হামলার দায় স্বীকার করে তালেবান।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×