১১৬ দিনে ঝরল ১১০৭ প্রাণ

সড়কে চাচা ভাতিজাসহ নিহত ১১

দিনাজপুরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আহত

  যুগান্তর ডেস্ক ২৪ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সড়ক দুর্ঘটনা

সড়ক দুর্ঘটনায় বিভিন্ন স্থানে ১১ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে রাজধানীতে পৃথক দুর্ঘটনায় দু’জন, চট্টগ্রামে দু’জন, টাঙ্গাইলে চাচা-ভাতিজা, চাঁদপুরের কচুয়ায় শিশু, জামালপুরের মাদারগঞ্জে গৃহবধূ, নাটোরের বড়াইগ্রামে ট্রাক হেলপার, কক্সবাজারের পেকুয়ায় কাঠুরিয়া এবং গাজীপুরে অজ্ঞাত ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

এ ছাড়া দিনাজপুরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আবু সালেহ মো. মাহফুজুল আলমসহ আটজন আহত হয়েছেন। এ নিয়ে ১১৬ দিনে প্রাণ গেল ১১০৭ জনের। ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

রাজধানী : রামপুরায় রাজধানী পরিবহনের বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেল চালক আবদুল কাদের (৬০) ও যাত্রাবাড়ীতে মিনি ট্রাকের ধাক্কায় নিহত হন পথচারী মোস্তাক (৫৮)। শুক্রবার সকালে দুর্ঘটনা দুটি ঘটে। তাদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

আবদুল কাদের সুপ্রিমকোর্টের গাড়ি চালক। মেরুল বাড্ডা আনন্দনগর এলাকায় পরিবার নিয়ে থাকেন। তার বাবার নাম আদম তালুকদার।

অপর দিকে যাত্রাবাড়ী মাতুয়াইল মেডিকেল হাসপাতালের সামনে দিয়ে রাস্তা পার হওয়ার সময় ধাক্কা খান মোস্তাক। তার গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরে। থাকতেন ঢাকার মাতুয়াইল কোনাপাড়ায়।

টাঙ্গাইল ও দেলদুয়ার : দেলদুয়ার উপজেলার ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে শুক্রবার সকালে মাইক্রোবাসের চাকা ফেটে ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কায় নিহতরা হলেন চাচা আবদুর রাজ্জাক ও ভাতিজা আবদুল কাদের। ডুবাইলের পুলিশ লাইন রোড এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতদের বাড়ি পাবনা জেলার আটঘরিয়া উপজেলায়। পাবনা থেকে মাইক্রোবাস ভাড়া করে এক পরিবারের ৫ সদস্য ঢাকার উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। পথে মাইক্রোবাসটি দুর্ঘটনায় পড়ে। আহতদের হাসপাতালে নেয়া হলে ডাক্তার দু’জনকে মৃত ঘোষণা করেন।

চট্টগ্রাম : নগরীতে ট্রাক্টর ও সিএনজি অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহতরা হলেন কুয়াইশ বড় পুকুরপাড় এলাকার মো. শরিফের ছেলে সুমন (২২) ও ব্যাটারি গলির আবেদ আলীর ছেলে মো. আনিছ (৩৩)।

শুক্রবার সকালে চান্দগাঁও থানার কাপ্তাই রাস্তার মাথা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা সিএনজিচালিত অটোরিকশার যাত্রী। দুর্ঘটনার পর আহতদের চমেক হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

কচুয়া (চাঁদপুর) : কচুয়া-গুলবাহার সড়কে বালিয়াতলী এলাকায় শুক্রবার নিহত শিশু প্রিয়া আক্তার (৮) বিতারা গ্রামের আবুল খায়েরের মেয়ে।

শিশুটি তার মায়ের সঙ্গে কচুয়া থেকে সিএনজিযোগে ফতেপুর আত্মীয় বাড়ি যাচ্ছিল। পথে তাকে বহনকারী সিএনজির সঙ্গে আরেকটি সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। হাসপাতালে নেয়া হলে শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন ডাক্তার।

মাদারগঞ্জ (জামালপুর) : মাদারগঞ্জ-জামালপুর সড়কে ভেলামারী এলাকায় বৃহস্পতিবার সিএনজি অটোরিকশা ও পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। তার নাম বীনা। তিনি একজন গৃহবধূ। ওই দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই রিপন নামে এক যুবক মারা যায়।

বড়াইগ্রাম (নাটোর) : বড়াইগ্রামে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত হেলপারের নাম জয় কুমার (৩২)। শুক্রবার বিকাল ৪টার দিকে নাটোর-পাবনা মহাসড়কের কাছুটিয়া খেজুরতলা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। জয় কুমার কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার নওদাপাড়া গ্রামের বরুণ কুমারের ছেলে ও পাবনাগামী ট্রাকের হেলপার।

চকরিয়া (কক্সবাজার) : পেকুয়ায় সিএনজিচালিত বেবিটেক্সির ধাক্কায় নিহত কাঠুরিয়ার নাম আহম্মদ মিয়া (১৮)। তিনি শুক্রবার সকালে রাজাখালীর আরব শাহ বাজারে কাঠ বিক্রি করে পেকুয়া চৌমুহনী হয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। তিনি টৈটং ইউনিয়নের বটতলী পাড়ার কবির আহমদের ছেলে।

গাজীপুর : গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কড্ডা বাজার এলাকায় গাড়িচাপায় নিহত ব্যক্তির পরিচয় পাওয়া যায়নি। তিনি তুরাগ নদীতে গোসল করে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন। এ সময় একটি গাড়ি তাকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়।

দিনাজপুর : দিনাজপুরে ট্রাক-জিপ মুখোমুখি সংঘর্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আবু সালেহ মো. মাহফুজুল আলমসহ আটজন আহত হয়েছেন। শুক্রবার বিকালে দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কে পার্বতীপুর উপজেলার আমবাড়ী নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×