জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা

খালেদা জিয়ার প্রোডাকশন ওয়ারেন্টের বিষয়ে শুনানি আজ

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজিরের আবেদনের (প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট) শুনানির জন্য আজকের দিন ধার্য করেছেন আদালত। রোববার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫-এর বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান এ আদেশ দেন।

এদিন মামলার যুক্তি-তর্কের জন্য দিন ধার্য ছিল। বেলা ১১টার পর মামলার কার্যক্রম শুরু হলে খালেদা জিয়া কারাগারে আছে জানিয়ে তার পক্ষে জামিন বর্ধিত করার আবেদন করেন আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া। দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, গত বৃহস্পতিবার খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির করতে প্রোডাকশন ওয়ারেন্টের আবেদন করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি কারাগারে আছেন। ওই দিন কোনো আদেশ দেয়া হয়নি। খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজিরের বিষয়টি পরিষ্কার হওয়া প্রয়োজন। তাকে কারাগার থেকে আদালতে হাজিরের জন্য কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেয়া যেতে পারে।

এরপর খালেদা জিয়ার আইনজীবী আবদুর রেজ্জাক খান বলেন, সোমবার দুপুরে (আজ) হাইকোর্টে অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন শুনানির দিন ধার্য রয়েছে। এ জন্য আমরা মামলার কার্যক্রম আজকের (রোববার) জন্য মুলতবি রাখার আবেদন করছি। হাইকোর্ট যদি অনুগ্রহ করে খালেদা জিয়াকে জামিন দেন তাহলে আর এ প্রোডাকশন ওয়ারেন্টের প্রয়োজন হবে না। তিনি সশরীরে আদালতে হাজির হবেন। যদি তিনি জামিন পান তাহলে আগামীকাল (আজ) তিনি সশরীরে আদালতে উপস্থিত হতে পারবেন। সেখানে কোনো প্রতিবন্ধকতা হবে না। আর প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট দিলে খালেদা জিয়া বের হতে পারবেন না।

এর আগে ২২ ফেব্রুয়ারি এ মামলায় খালেদা জিয়ার প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট জারির আবেদন করেন দুদকের আইনজীবী। এরও আগে চলতি বছরের ৩০ জানুয়ারি এ মামলায় খালেদা জিয়াসহ সব আসামির সর্বোচ্চ সাজা অর্থাৎ ৭ বছর কারাদণ্ড দাবি করে দুদক প্রসিকিউশন। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে ২০১০ সালের ৮ আগস্ট রাজধানীর তেজগাঁও থানায় মামলাটি করে দুদক।

ভুয়া জন্মদিন পালনের মামলায় গ্রেফতার সংক্রান্ত প্রতিবেদন ২৫ মার্চ : মিথ্যা তথ্যের ভিত্তিতে ১৫ আগস্ট জন্মদিন পালনের মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতার তামিল প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ২৫ মার্চ দিন ধার্য করেছেন আদালত। রোববার এ প্রতিবেদন দেয়ার দিন ধার্য ছিল। কিন্তু গুলশান থানা পুলিশ তা দাখিল না করায় ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. খুরশীদ আলম ওই দিন ধার্য করেন।

আদালত সূত্র জানায়, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাজী জহিরুল ইসলাম ২০১৬ সালের ৩০ আগস্ট খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে এ মামলাটি করেন। অভিযোগে বলা হয়, খালেদা জিয়ার বিভিন্ন মাধ্যমে তার পাঁচটি জন্মদিন পাওয়া গেলেও কোথাও ১৫ আগস্ট জন্মদিন পাওয়া যায়নি। তিনি পাঁচটি জন্মদিনের একটিও পালন না করে ১৯৯৬ সাল থেকে ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শাহাদতবার্ষিকীর জাতীয় শোকদিবসে আনন্দ উৎসব করে জন্মদিন পালন করে আসছেন। শুধু বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সুনাম ক্ষুণ্ণ করার জন্য তিনি ওইদিন জন্মদিন পালন করেন।

হরতাল-অবরোধে ৪২ জনকে পুড়িয়ে হত্যা মামলার প্রতিবেদন ২৫ মার্চ : সারা দেশে হরতাল-অবরোধে ৪২ জনকে পুড়িয়ে হত্যা ও রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে করা মামলায় খালেদা জিয়াসহ চার আসামির বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ২৫ মার্চ দিন ধার্য করেছেন আদালত। রোববার মামলার প্রতিবেদন দেয়ার দিন ধার্য ছিল। এদিন গুলশান থানা পুলিশ তা দাখিল না করায় ঢাকা মহানগর হাকিম মো. খুরশীদ আলম প্রতিবেদন দাখিলের ওই দিন ধার্য করেন। মামলার অপর আসামিরা হলেন- বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ড. এমাজউদ্দীন আহমদ, ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী ও স্থায়ী কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম মিয়া।

আদালত সূত্র জানায়, ২০১৫ সালের ২ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এবি সিদ্দিকী মামলাটি করেন। বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের চলমান অবরোধ ও হরতালে ২০১৫ সালের ৫ জানুয়ারি থেকে ২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ৪২ জনকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে বিভিন্ন পত্রিকার উদ্ধৃতি দিয়ে মামলার অভিযোগে বলা হয়।

pran
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
bestelectronics

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter