রাফিকে পুড়িয়ে হত্যা: অধ্যক্ষসহ সব আসামির নির্দোষ দাবি

  ফেনী প্রতিনিধি ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

নুসরাত জাহান রাফি
নুসরাত জাহান রাফি। ফাইল ছবি

ফেনীর সোনাগাজীতে মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা মামলায় অভিযুক্ত ১৬ আসামি আদালতে আত্মপক্ষ সমর্থন করে নিজ নিজ বক্তব্য উপস্থাপন করেছেন।

সোমবার ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদ আসামিদের নিজ নিজ বক্তব্য উপস্থাপন করতে বলেন। একই সঙ্গে আসামিদের পক্ষ থেকে কোনো সাফাই সাক্ষ্য দেয়া হবে কিনা, তা জানতে চান।

কিন্তু আসামিরা সাফাই সাক্ষ্য দেবে না জানিয়ে নিজ মুখে বক্তব্য রাখতে এবং তাদের লিখিত বক্তব্য জমা নিতে অনুমতি প্রার্থনা করেন। বিচারক তাদের আবেদন আমলে নেন।

বিচারকের আদেশের পর প্রধান আসামি সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ্দৌলাকে দিয়ে বক্তব্য শুরু হয়। এ সময় সিরাজ উদ্দৌলা জানান, তিনি ঘটনার সঙ্গে জড়িত নন। এছাড়া তিনি আদালতে কম্পোজ করা সাত পৃষ্ঠার বক্তব্য জমা দেন।

পরে নূর উদ্দিন, শাহাদাত হোসেন শামীম, সোনাগাজী পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাকসুদ আলম ওরফে মোকসুদ কাউন্সিলর, সাইফুর রহমান মোহাম্মদ জোবায়ের, জাবেদ হোসেন ওরফে সাখাওয়াত হোসেন, হাফেজ আবদুল কাদের, আবছার উদ্দিন, কামরুন নাহার মনি, উম্মে সুলতানা ওরফে পপি ওরফে তুহিন ওরফে চম্পা/শম্পা, আবদুর রহিম শরীফ, ইফতেখার উদ্দিন রানা, ইমরান হোসেন ওরফে মামুন, সোনাগাজী উপজেলা আওয়াম লীগের সভাপতি ও মাদ্রাসার সাবেক সহসভাপতি রুহুল আমিন, মহিউদ্দিন শাকিল ও মোহাম্মদ শামীম বক্তব্য রাখার পাশাপাশি লিখিত বক্তব্য জমা দেন। বক্তব্যে সবাই নিজেদের নির্দোষ দাবি করেন।

এদিন আদালতে মামলার বাদী রাফির ভাই নোমান ও তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) কর্মকর্তা মো. শাহ আলমকে পুনরায় জেরা করেন আসামি পক্ষের আইনজীবী গিয়াস উদ্দিন নান্নু।

গত ২৭ মার্চ সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে যৌন নিপীড়নের দায়ে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ্দৌলাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। রাফি ৬ এপ্রিল ওই মাদ্রাসা কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে গেলে অধ্যক্ষের লোকজন তাকে সাইক্লোন শেল্টারের ছাদে নিয়ে মামলা তুলে নেয়ার জন্য চাপ দেয়। রাজি না হলে তারা রাফির শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। পাঁচ দিন পর রাফি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়।

এ ঘটনায় রাফির বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান বাদী হয়ে অধ্যক্ষ সিরাজ উদ্দৌলাসহ আটজনের নাম উল্লেখ করে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা করেন। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) তদন্ত করে অধ্যক্ষ সিরাজসহ ১৬ জনের সর্বোচ্চ শাস্তির সুপারিশ করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে।

এ মামলায় মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ্দৌলা, নূর উদ্দিন, শাহাদাত হোসেন শামীম, উম্মে সুলতানা পপি, কামরুন নাহার মনি, জাবেদ হোসেন, আবদুর রহিম ওরফে শরীফ, হাফেজ আবদুল কাদের ও জোবায়ের আহমেদ, এমরান হোসেন মামুন, ইফতেখার হোসেন রানা ও মহিউদ্দিন শাকিল আদালতে হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন।

ঘটনাপ্রবাহ : পরীক্ষা কেন্দ্রে ছাত্রীর গায়ে আগুন

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×