সর্বোচ্চ বৃষ্টির রেকর্ড

টেকনাফে পাহাড় ধস ও পানিতে ডুবে ৪ শিশুর মৃত্যু

  টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

অতিবৃষ্টিতে টেকনাফে তলিয়ে যাওয়া একটি বাড়ি
অতিবৃষ্টিতে টেকনাফে তলিয়ে যাওয়া একটি বাড়ি। ছবি-সংগৃহীত

টেকনাফে অতিবৃষ্টিতে পাহাড় ধস ও পানিতে ডুবে চার শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এ সময় ১০ জন আহত হন। পৌরসভার পুরনো পল্লানপাড়ায় পাহাড় ধসে মেহেদি হাসান (১০) ও আলিফা আলমের (৫) মৃত্যু হয়েছে।

অপরদিকে সদর ইউনিয়নের নতুন পল্লানপাড়ায় পানিতে ডুবে মোহাম্মদ হারিছ (১০) এবং লবণ মাঠের জমানো পানিতে পড়ে মো. ইরফানের মৃত্যু হয়েছে।

জানা গেছে, মেহেদি পৌরসভার পুরনো পল্লানপাড়ার রবিউল আলমের ছেলে এবং আলিফা একই এলাকার মো. আলমের মেয়ে। সদর ইউনিয়নের পল্লানপাড়ার আবদুল গফুরের ছেলে হারিছ স্থানীয় মাদ্রাসায় হেফজ বিভাগের তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ত। আর ইরফান নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আমান উল্লাহর ছেলে।

মঙ্গলবার ভোরে পৌরসভার কুয়েত মসজিদ সংলগ্ন এলাকায় রবিউল ও আলমের বাড়ির উপর পাহাড় ধসে পড়লে ঘুমন্ত অবস্থায় দুই শিশু মেহেদি ও আলিফার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে উপজেলা সিপিপি (ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি) স্বেচ্ছাসেবক ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা দুর্গতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। এ সময় চিকিৎসকরা দুইজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রবিউল হাসান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি জানান, অতিবৃষ্টির কারণে পাহাড় ধসে হতাহতের এ ঘটনা ঘটেছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহতদের পরিবারকে আর্থিক সহায়তার ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

এছাড়া উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পানিবন্দি ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে তাৎক্ষণিক শুকনো খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। পাহাড় ধস ও পানিবন্দি পরিবারগুলোর জন্য টেকনাফ বার্মিজ প্রাইমারি ও পাইলট হাইস্কুলে জরুরি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

পাহাড়ি এলাকা থেকে সরে যেতে বারবার প্রচার চালানো হলেও বসবাসকারীরা না সরায় হতাহতের এ ঘটনা ঘটে।

টেকনাফ আবহাওয়া অফিসের কর্মকর্তা শফিউল আলম জানান, সোমবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় টেকনাফে ৪২২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে, যা চলতি বছরের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতের রেকর্ড।

পল্লানপাড়ার বাসিন্দা আবদুল ফারুক জানান, মঙ্গলবার দুপুরের দিকে কয়েকটি শিশু খেলতে বের হয়। এ সময় বিলের পানির স্রোতে হারিছ ভেসে যায়। তাকে উদ্ধার করে দ্রুত হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আমান উল্লাহর ছেলে মো. ইরফান লবণ মাঠের জমানো পানিতে পড়ে মারা গেছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×