ডেঙ্গুতে আরও তিন শিশুর মৃত্যু

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রাজধানীতে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সোনিয়া, তারিন, যূথী নামে আরও তিন শিশুর মৃত্যু ঘটেছে। এ নিয়ে ১ আগস্ট থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত যুগান্তরের অনুসন্ধানে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ১৫১ জনে।

তবে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইন্সটিটিউটে (আইইডিসিআর) ডেঙ্গু সন্দেহে এ পর্যন্ত ২০৩ জনের মৃত্যুর তথ্য এসেছে। এর মধ্যে ১১৬ মৃত ব্যক্তির তথ্য পর্যালোচনা করে ৬৮ জনের ডেঙ্গুজনিত মৃত্যু নিশ্চিত করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

এদিকে ২৪ ঘণ্টায় (সোমবার সকাল ৮টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত) নতুন করে আরও ৬১৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকায় ১৯৮ জন এবং ঢাকার বাইরে ৪১৭ জন ভর্তি হয়েছেন।

অর্থাৎ ঢাকার তুলনায় ঢাকার বাইরে রোগীর সংখ্যা দ্বিগুণেরও বেশি। স্বাস্থ্য অধিদফতরের সহকারী পরিচালক ‘হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম’ ডা. আয়শা আক্তার জানান, ১ জানুয়ারি থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত ৮২ হাজার ৪৫৪ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে ৭৯ হাজার ৭৬৬ জন ছাড়পত্র নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতলে ১ হাজার ৪৮৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। যার মধ্যে ঢাকার ৪১টি সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ৯৯৩ জন এবং অন্যান্য বিভাগে ১৪৯২ জন।

এদিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে তারিন (১১) নামে পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা পৌনে ৩টায় ঢামেক আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তারিনের ফুপু শাহিদা আক্তার জানান, গত মাসের শেষের দিকে সে জ্বরে আক্রান্ত হয়।

পরে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হলেও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় ১২ সেপ্টেম্বর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখানেই তার মৃত্যু হয়। তার গ্রামের বাড়ি শরীয়তপুরের গোসাইরহাট থানার পূর্ব মাছুয়াখালী।

রাজধানীতে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সোনিয়া (৯) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সোনিয়া রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকার অধিবাসী। মঙ্গলবার ঢাকা শিশু হাসপাতালের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবদুল হাকিম এ তথ্যটি নিশ্চিত করেন। কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে যূথী (১১) নামে ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার বিকাল ৪টার দিকে তার মৃত্যু হয়। যূথী ভেড়ামারা উপজেলার ধরমপুর ইউনিয়নের নবগাঙ্গা গ্রামের জয়নাল আলীর মেয়ে।

জেলার সিভিল সার্জন ডা. রওশন আরা জানান, যূথী ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ১৩ সেপ্টেম্বর কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়। তবে চিকিৎসা শেষ না হতেই পরিবারের সদস্যরা তাকে বাড়ি নিয়ে যায়।

মঙ্গলবার দুপুরে যূথীর অবস্থার অবনতি হলে তাকে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। কিন্তু রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

ঘটনাপ্রবাহ : ভয়ংকর ডেঙ্গু

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত