আফগান ধাঁধার উত্তর মেলালেন সাকিব : বাংলাদেশ ৪ উইকেটে জয়ী

  স্পোর্টস ডেস্ক ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জয়ী

ত্রিদেশীয় টি ২০ সিরিজের ফাইনালের লাইনআপ ঠিক হয়ে গেছে আগেই। মঙ্গলবার মিরপুরে শিরোপাযুদ্ধে নামবে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান। শনিবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে প্রাথমিক পর্বের শেষ ম্যাচটি ছিল সেই ফাইনালের মহড়া।

নিয়মরক্ষার ম্যাচ হলেও ফাইনালের আগে আফগান ধাঁধার উত্তর মেলাতে উন্মুখ ছিল বাংলাদেশ। ২০১৪ সালে টি ২০তে দু’দলের প্রথম দেখায় জিতেছিল বাংলাদেশ। এরপর টানা চার হার।

খুদে ক্রিকেটে বাংলাদেশের জন্য আতঙ্ক হয়ে ওঠা আফগানদের শেষ পর্যন্ত মাটিতে নামিয়ে ফাইনালের আগে আত্মবিশ্বাসের জ্বালানি পেয়ে গেল বাংলাদেশ। অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের দুর্দান্ত ফিফটিতে কাল আফগানিস্তানকে চার উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ।

আফগানিস্তানকে সাত উইকেটে ১৩৮ রানে বেঁধে রেখে অর্ধেক কাজ সেরে রেখেছিলেন বোলাররা। ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের শুরুটা ভালো না হলেও ৪৫ বলে অপরাজিত ৭০ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলে এক ওভার বাকি থাকতেই বাংলাদেশকে জয়ের ঠিকানায় পৌঁছে দেন সাকিব।

লক্ষ্যটা নাগালের মধ্যে থাকার পরও রান তাড়ার শুরুতেই পথ হারিয়েছিল বাংলাদেশ। ১২ রানের মধ্যে বিদায় নেন দুই ওপেনার লিটন দাস ও নাজমুল হোসেন শান্ত। পাওয়ার প্লের প্রথম ছয় ওভারে বাংলাদেশ তুলতে পারে মাত্র ২৮ রান।

তৃতীয় উইকেটে অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিমের ৫৮ রানের জুটিতে সেই ধাক্কা প্রায় সামলে উঠেছিল স্বাগতিকরা। সরে গিয়েছিল চেপে বসা ফাঁস। তখন প্রয়োজন ছিল ঠাণ্ডা মাথার ব্যাটিং।

কিন্তু ১১তম ওভারে অকারণে বড় শট খেলতে গিয়ে নিজের উইকেটটি বিলিয়ে দিয়ে আসেন মুশফিক (২৬)। এরপর আরেকটি ধস। আগের ম্যাচের ব্যাটিং হিরো মাহমুদউল্লাহ ছয় রানেই আউট।

সাব্বির রহমান ও আফিফ হোসেনও বিদায় নেন দ্রুত। ১০৪ রানে নেই ছয় উইকেট। একপ্রান্ত আগলে রাখা সাকিব এর মধ্যেই তুলে নেন টি ২০ ক্যারিয়ারের নবম ফিফটি।

শেষ পর্যন্ত মোসাদ্দেক হোসেনকে নিয়ে সাকিবই দলকে এনে দেন পরম আরাধ্য জয়। সাকিব আট চার ও এক ছক্কায় ৪৫ বলে ৭০ ও মোসাদ্দেক ১২ বলে ১৯ রানে অপরাজিত থাকেন।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে দারুণ শুরুর পর ইনিংসের মাঝপথে পথ হারায় আফগানিস্তান। বোলারদের দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তনে আফগানদের ১৩৮ রানে আটকে ফেলে বাংলাদেশ। শুরুতেই অবশ্য ধাক্কা খেতে পারত আফগানিস্তান।

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে শফিউল ইসলামকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দিয়েছিলেন রাহমানউল্লাহ গুরবাজ। কিন্তু সহজ ক্যাচ ফেলে দেন মাহমুদউল্লাহ। তার দেয়া এ উপহার কাজে লাগিয়ে উদ্বোধনী জুটিতেই নয় ওভারে ৭৫ রান তুলে ফেলেছিল আফগানিস্তান।

এরপরই ছন্দপতন। দশম ওভারে আক্রমণে এসে উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন আফিফ হোসেন। তাকে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে নিজের মৃত্যু ডেকে আনেন ৩৫ বলে ৪৭ রান করা হজরতউল্লাহ জাজাই। এক বল পর আসগর আফগানকেও ফিরিয়ে দেন আফিফ।

৭৫ রানে দুই উইকেট হারানো আফগানিস্তান আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। ১১তম ওভারে ফিরতি ক্যাচে গুরবাজকে (২৯) থামান মোস্তাফিজুর রহমান। দারুণ ফর্মে থাকা মোহাম্মদ নবীকে এলবিডব্লুর ফাঁদে ফেলেন অধিনায়ক সাকিব।

একটু পর রানআউট গুলবাদিন নাইব। ১৬ ও ১৭তম ওভারে নাজিবউল্লাহ জাদরান ও করিম জানাতকে ফিরিয়ে দিয়ে আফগানদের ওপর চাপ আরও বাড়ান সাইফউদ্দিন ও শফিউল।

১১৪ রানে সাত উইকেট হারানো আফগানিস্তান ১৩৮ পর্যন্ত যেতে পারে শফিকউল্লাহ শফিক (২৩*) ও অধিনায়ক রশিদ খানের (১১*) ব্যাটে। বাংলাদেশের মূল বোলারদের সবাই দারুণ বোলিং করেছেন। তবে তিন ওভারে নয় রানে দুই উইকেট নিয়ে সবচেয়ে সফল আফিফ।

আফগানিস্তান ১৩৮/৭, ২০ বাংলাদেশ

১৩৯/৬, ১৯

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×