চট্টগ্রামে জিয়াদ হত্যা: প্রধান আসামি রাসেল গ্রেফতারের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

  চট্টগ্রাম ব্যুরো ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বন্দুকযুদ্ধ

চট্টগ্রামে জিয়াদ হোসেন হত্যা মামলার প্রধান আসামি মো. রাসেল (২৩) গ্রেফতারের পর পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। নগরীর চান্দগাঁও থানাধীন জেলেপাড়া এলাকায় শুক্রবার রাত ২টায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ জানিয়েছে। এক সপ্তাহ আগে ১৫ সেপ্টেম্বর প্রকাশ্যে দিবালোকে ছুরিকাঘাতে খুন করা হয় জিয়াদ হোসেনকে।

চান্দগাঁও থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ যুগান্তরকে বলেন, হত্যাকাণ্ডের পর রাসেল ঢাকায় পালিয়ে গিয়েছিল। ঢাকা থেকে শুক্রবার তাকে গ্রেফতারের পর থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করি। জিজ্ঞাসাবাদে রাসেল তার কাছে অবৈধ অস্ত্র থাকার কথা স্বীকার করে। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে রাসেলকে নিয়ে দর্জিপাড়ার পাশে জেলেপাড়ায় অস্ত্র উদ্ধারে যায় পুলিশের টিম। সেখানে তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে হামলা করে। পরে দু’পক্ষের গোলাগুলিতে রাসেল গুলিবিদ্ধ হয়। আহত অবস্থায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ জানায়, ১৫ সেপ্টেম্বর চান্দগাঁও থানার সানোয়ারা আবাসিক এলাকার পাশে দর্জিপাড়ায় জাহেদ হোসেন নামে এক ডিশ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে চাঁদা দাবি করে রাসেল ও তার সহযোগীরা।

চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তারা জাহেদকে মারধর করে। জাহেদকে বাঁচাতে এগিয়ে যায় ছোট ভাই জিয়াদ হোসেন। এ সময় হামলাকারীরা জিয়াদকে প্রকাশ্য দিবালোকে ছুরিকাঘাতে খুন করে। রাসেল ওই হত্যা মামলার প্রধান আসামি। জিয়াদকে খুন করার এক সপ্তাহের মাথায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হল তার খুনি রাসেল।

লক্ষ্মীপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবকের মৃত্যু : সদর উপজেলায় দুই দল ডাকাতের মধ্যে কথিত ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ আরিফ হোসেন (২৮) নামে এক যুবক নিহত হয়েছে। শাকচর এলাকার একটি পরিত্যক্ত ইটভাটায় শনিবার ভোর রাতে এ ঘটনা ঘটে বলে জানায় পুলিশ। নিহত আরিফ শকচর গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে। পুলিশ জানায়, ডাকাত দলের গুলির আওয়াজ শুনে টহল পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়।

এ সময় এসআই মোতাহের হোসেন ও কনস্টেবল সোহেল রানা আহত হয়। জীবন বাঁচাতে পুলিশ ৯ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। ডাকাতরা পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত দুই পুলিশ সদস্যকে সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ওসি একেএম আজিজুর রহমান মিয়া বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, আরিফ ডাকাত দলের সদস্য।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×