ওয়াশিংটন পোস্ট ও ওয়ালস্ট্রিট জার্নালে সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন চুক্তি মিয়ানমারের মেনে চলা উচিত

  বাসস ০১ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রোহিঙ্গা
রোহিঙ্গা। ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষা নিশ্চিত করে প্রত্যাবাসনের বিষয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে ইতোপূর্বে সম্পাদিত চুক্তি বাস্তবায়ন করতে মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের সাইড লাইনে চলতি সপ্তাহে নিউইয়র্কের ওয়ালস্ট্রিট জার্নালের সাংবাদিক ড্যান কিলেরকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানান।

রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরে যেতে বাধ্য করার বিষয় বিবেচনা করবেন কিনা জানতে চাইলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অবশ্যই তাদের নিজ দেশে তাদেরকে ফিরে যেতে হবে। ওয়ালস্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশ সেটা করতে বল প্রয়োগ করবে, তা আমি মনে করি না।

তিনি আরও বলেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় দৃশ্যত রোহিঙ্গাদের ফেরত নেয়ার বিষয়ে মিয়ানমারকে রাজি করাতে ব্যর্থ হচ্ছে। কিন্তু আমি কাউকে এজন্য দোষারোপ করতে পারি না, কেননা, মিয়ানমার কারও কথাই শুনছে না। শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ উদ্বাস্তুদের রাখবে কিন্তু তাদের উপস্থিতি বাংলাদেশের জন্য ক্ষতির কারণ হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমাদের ভূখণ্ড মাত্র ১ লাখ ৪৭ হাজার বর্গ কিলোমিটারের এবং আমাদের ১৬ কোটি জনসংখ্যা রয়েছে, কাজেই এত বিপুলসংখ্যক মানুষকে কীভাবে আমরা দীর্ঘসময় ধরে আশ্রয় দিয়ে রাখতে পারি?

আমাদের স্থানীয় জনগণের কষ্ট হচ্ছে, তারা যেখানে বাস করছে সেখানে আমাদের বনভূমির একটি বড় অংশ ইতিমধ্যে উজাড় হয়ে গেছে। প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের বিষয়ে মিয়ানমারের কাছ থেকে আরও বেশি সহযোগিতার আহ্বান জানান।

সংকটের শান্তিপূর্ণ সমাধান চাই- ওয়াশিংটন পোস্টকে প্রধানমন্ত্রী : এদিকে সোমবার ওয়াশিংটন পোস্টের সাপ্তাহিক সাময়িকী টুডে’স ওয়ার্ল্ডভিউকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমি কারও সঙ্গে লড়াইয়ে জড়াতে চাই না। আমি এই পরিস্থিতির শান্তিপূর্ণ একটি সমাধান চাই। কারণ, তারা (মিয়ানমার) আমার নিকটতম প্রতিবেশী।

তিনি বলেন, কিন্তু যদি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় মনে করে, মিয়ানমারের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞায় কাজ হবে, তাহলে তো খুবই চমৎকার। তবে আমি এই পরামর্শ দিতে পারি না

।২০১৬ সালে মিয়ানমারের অং সান সু চির সঙ্গে এক বৈঠকের উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি এই পরিস্থিতির জন্য দেশটির সামরিক বাহিনীকে দায়ী করেন। তিনি আমাকে বলেছেন, সেনাবাহিনী তার কথা খুব একটা শোনে না। এখন আমি দেখতে পাচ্ছি যে তিনি (সু চি) তার অবস্থান থেকে সরে এসেছেন।

প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎকার নিয়ে ওয়াশিংটন পোস্টের প্রকাশিত প্রতিবেদনে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের বক্তব্যও তুলে ধরা হয়। তিনি বলেন, আমরা হতাশ। কারণ আমরা জানি, মিয়ানমারে আসলে গণহত্যা চলছে।

ঘটনাপ্রবাহ : রোহিঙ্গা বর্বরতা

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×