কুষ্টিয়া সরকারি কলেজে ভর্তি হল আবরারের ভাই ফাইয়াজ

  কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

কুষ্টিয়া সরকারি কলেজে ভর্তি হল আবরারের ভাই ফাইয়াজ
ভর্তির কাগজপত্র নিয়ে কুষ্টিয়া সরকারি কলেজে যান আবরার ফাইয়াজের বাবা বরকতউল্লাহ

ছাত্রলীগের নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের ছোট ভাই আবরার ফাইয়াজ কুষ্টিয়া সরকারি কলেজে ভর্তি হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টার দিকে ঢাকা কলেজের ছাড়পত্র ও ভর্তির কাগজপত্র নিয়ে কুষ্টিয়া সরকারি কলেজে যান আবরার ফাইয়াজের বাবা বরকতউল্লাহ।

তিনি কলেজের অধ্যক্ষ কাজী মনজুর কাদিরের কাছে ওই কাগজপত্র জমা দেন। এরপর ফাইয়াজকে কলেজের বিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি করে নেয়া হয়।

ফাইয়াজ শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকায় বাড়িতে বিশ্রাম নিচ্ছে বলে জানান তার বাবা। ফাইয়াজ ঢাকা কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল। সেখান থেকে ছাড়পত্র নিয়ে সে কুষ্টিয়া সরকারি কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি হল।

বড় ভাইয়ের মৃত্যুর পর ঢাকায় আর পড়ালেখা করবে না বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছিল ফাইয়াজ। কেন এমন সিদ্ধান্ত- এই প্রশ্নের জবাবে ফাইয়াজ গণমাধ্যমকর্মীদের বলেছিল, ‘ভাইকে হারিয়ে আমি একা হয়ে পড়েছি। ঢাকায় থাকার এখন কোনো মানে হয় না।’

কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ কাজী মনজুর কাদির বলেন, ‘কলেজের বিজ্ঞান বিভাগে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় আবরার ফাইয়াজকে ভর্তি করা হয়েছে। ফাইয়াজ এখানে ভালোভাবেই থাকতে পারবে।

কারণ তার স্কুলের অনেক বন্ধু এই কলেজে পড়াশোনা করছে। তাকে আমরা বিশেষ কেয়ারে রাখব। তার নিরাপত্তা, পড়াশোনা সংক্রান্ত বিষয়ে সার্বিক সহযোগিতা করব।’ ফাইয়াজের বাবা বরকতউল্লাহ জানান, আবরারের মৃত্যুর পর অজানা শঙ্কায় পুরো পরিবার। বিশেষ করে ওর মা আর কোনোভাবেই চাচ্ছেন না ফাইয়াজ ঢাকাতে পড়ালেখা চালিয়ে যাক। এছাড়া ফাইয়াজেরও ইচ্ছে নেই ঢাকায় থাকার। এ কারণে তাকে কুষ্টিয়াতে ভর্তি করা হয়েছে।’

আবরারের কবর জিয়ারত করলেন ঐক্যফ্রন্ট নেতা জাফরুল্লাহ চৌধুরী : নিহত বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের কবর জিয়ারত করেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। বৃহস্পতিবার দুপুরে ভাসানী অনুসারী পরিষদের নেতাদের নিয়ে তিনি কুষ্টিয়ার রায়ডাঙ্গায় গিয়ে আবরারের কবর জিয়ারত করেন।

জিয়ারত শেষে জাফরুল্লাহ চৌধুরী ও ভাসানী অনুসারী পরিষদ নেতারা আবরারের পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। তারা আবরারের দাদা, চাচা-চাচি ও পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন। আবরারের বাবা-মা বাড়িতে না থাকায় তাদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলেন তারা।

জাফরুল্লাহর সঙ্গে ভাসানী অনুসারী পরিষদের মহাসচিব শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু, প্রেসিডিয়াম সদস্য নঈম জাহাঙ্গীর, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী নজরুল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি ইউনুস মৃধা, ফরিদ উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জাফর, কৃষক দলের সদস্য লায়ন মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার, ভাসানী অনুসারী পরিষদের ঢাকা মহানগর আহ্বায়ক আক্তার হোসেন, সদস্য সচিব রকিবুল ইসলাম প্রমুখ।

ঘটনাপ্রবাহ : বুয়েট ছাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×