ভোলার ঘটনা রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হতে পারে: হাইকোর্ট

  যুগান্তর রিপোর্ট ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

হাইকোর্ট
হাইকোর্ট। ফাইল ছবি

ভোলার বোরহানউদ্দিনে জনতার সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে চারজন নিহত ও অনেকে আহত হওয়ার ঘটনা রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র হতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন হাইকোর্ট। আদালত বলেন, এ ধরনের ঘটনার পেছনে রাষ্ট্রকে অস্থিতিশীল করার উদ্দেশ্য থাকতে পারে।

সোমবার ভোলার ঘটনা নজরে আসার পর বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এমন মন্তব্য করেন।

ভোলার ওই ঘটনা নিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন আদালতের নজরে আনেন আইনজীবী রনিউল ইসলাম। তিনি বলেন, পুলিশের গুলিতেই হতাহত হয়েছে। তাই পুলিশ দিয়ে তদন্ত করলে নিরপেক্ষ তদন্ত হবে না।

রনিউল ইসলাম ভোলায় ওই ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে আদালতের স্বতঃপ্রণোদিত আদেশ চান। তখন আদালত বলেন, এ ঘটনা সরকার দেখছে। ইতিমধ্যে তদন্তও শুরু হয়েছে।

আমরা এ মুহূর্তে হস্তক্ষেপ করব না। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যদি ব্যর্থ হয় তাহলে আমরা দেখব। পুলিশের তদন্তে ভোলার ঘটনার মূল রহস্য বেরিয়ে আসবে বলে আশা প্রকাশ করেন আদালত।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার। তিনি বলেন, আদালত বলেছেন, ভোলার হতাহতের ঘটনায় প্রশাসন কর্তৃক ব্যবস্থা গ্রহণ, মামলা দায়ের ও তদন্তাধীন থাকায় হস্তক্ষেপ করবে না। পরিস্থিতির সুযোগ যেন কেউ নিতে না পারে এ ব্যাপারে সতর্ক থাকার পরমর্শ দিয়েছেন আদালত।

উল্লেখ্য রোববার ফেসবুকে মহানবীকে (সা.) কটূক্তি করা নিয়ে ভোলায় ‘তৌহিদি জনতা’র বিক্ষোভ সমাবেশকে কেন্দ্র করে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে হয়। এতে চারজন নিহত ও ১০ পুলিশসহ প্রায় দেড় শতাধিক আহত হয়েছেন।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×