এক যুগ পর যুক্তরাজ্য থাকবে না!

  যুগান্তর ডেস্ক ০৯ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

যুক্তরাজ্য
যুক্তরাজ্যের পতাকা। ফাইল ছবি

এক যুগ পর যুক্তরাজ্যের অস্তিত্ব থাকবে না বলে মনে করছে দেশটির অর্ধেক নাগরিক। সম্প্রতি লন্ডনভিত্তিক সামাজিক জরিপ প্রতিষ্ঠান ইপসস মোরির এক ভোটাভুটিতে এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে। শুক্রবার রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ কথা জানানো হয়। ২৫ থেকে ২৮ অক্টোবর ১ হাজার একজন পূর্ণবয়স্ক মানুষের ওপর ইপসস মোরি এ জরিপ চালায়। আশঙ্কার মূল কারণ যুক্তরাজ্য অচিরেই ভেঙে খান খান হয়ে যেতে পারে।

ইপসস মরির ভোটে দেখা যায়, যুক্তরাজ্যের ৫০ শতাংশ মানুষই এখন মনে করে আগামী ১০ বছরের মধ্যে যুক্তরাজ্য বলে কিছু থাকবে না। মাত্র ২৯ শতাংশ মানুষের ধারণা এক যুগ পরেও যুক্তরাজ্য টিকে থাকবে, অথচ ২০১৪ সালে এ ধারণা পোষণ করত ৪৫ শতাংশ মানুষ। অর্থাৎ যুক্তরাজ্য টিকে থাকার ব্যাপারে আশাবাদী মানুষের সংখ্যাও দিন দিন উল্লেখযোগ্য হারে কমেছে। স্কটল্যান্ড শাখার ইপসস মোরি’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর এমিলি গ্রে বলেন, ২০১৪ সালের তুলনায় যুক্তরাজ্যের প্রশ্নে ব্রিটিশরা এখন অনেক বেশি বিভক্ত।

খবরে বলা হয়, ২০১৬ সালে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বেরিয়ে যাওয়ার প্রশ্নে হওয়া গণভোটে যখন ৫২ থেকে ৪৮ শতাংশ নাগরিকের পক্ষে ভোট দেয়। তখনই নাখোশ হয় স্কটল্যান্ড ও উত্তর আয়ারল্যান্ড। তারা চায় ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গেই থেকে যেতে। ফলে ওই গণভোট ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড, ওয়েলস ও উত্তর আয়ারল্যান্ড নিয়ে গঠিত যুক্তরাজ্যের ঐক্যে চিড় ধরায়। আগামী ৩১ জানুয়ারি বেক্সিট কার্যকরের দিকে যুক্তরাজ্য যতই এগিয়ে যাচ্ছে, স্কটল্যান্ডের স্বাধীনতার পক্ষে গণভোটের দাবি ততই জোরালো হয়ে উঠছে। অন্যদিকে উত্তর আয়ারল্যান্ডেও যুক্তরাজ্য থেকে বেরিয়ে রিপাবলিক আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে যোগ দেয়ার পক্ষে গণভোটের দাবি বেড়ে চলেছে। এতে যুক্তরাজ্যের অস্তিত্ব হারানোর শঙ্কা রয়েই যাচ্ছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×