পশ্চিমবঙ্গে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়

  যুগান্তর ডেস্ক ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে একদল লোক এক বাংলাদেশি ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে ৫০ লাখ রুপি মুক্তিপণ আদায় করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

কলকাতার এক জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তার বরাতে বুধবার এ খবর জানিয়েছে ভারতের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা পিটিআই। এ ঘটনায় গত রোববার কলকাতার এন্টালি থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ওই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, বশির মিয়া নামে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীকে তার পরিচিত একদল লোক উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার হাবড়া এলাকার একটি অপরিচিত স্থানে আটকে রেখে ৫০ লাখ রুপি আদায় করে বলে এজাহারে বলা হয়েছে।

‘স্ত্রীর জন্য কিছু গহনা কিনতে’ ডলার নিয়ে গত সপ্তাহে কলকাতায় পৌঁছার পর ব্যবসায়িক প্রয়োজনে শনিবার শিয়ালদহ এলাকার একটি শপিংমলে কয়েকজন লোকের সঙ্গে দেখা করেন বশির। সেখানে তারা সবাই মিলে দুপুরের খাবার খান। তারপর সবাই ব্যবসায়িক কাজে হাবড়ায় একজনের সঙ্গে দেখা করতে যেতে ট্রেনে ওঠেন।

এজাহারে বলা হয়, বশির হাবড়ায় পৌঁছার পর আসামিরা তাকে অপরিচিত জায়গায় নিয়ে হাত বেঁধে ফেলে ও চোখ ঢেকে দেয়। তাদের চাপে বশির বাংলাদেশে বাবার কাছে ফোন করলে মুক্তিপণের জন্য তিনি প্রায় ৬ লাখ রুপি পাঠান। বশিরের কাছে থাকা ৪৪ লাখ রুপির সমপরিমাণ বিদেশি মুদ্রা অপহরণকারীরা ছিনিয়ে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ।

পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, বশিরকে সীমান্ত পার করানোর জন্য অপহরণকারীরা দুজন দালালও ঠিক করে। কিন্তু বশির বিএসএফ সদস্যদের কাছে ঘটনা প্রকাশের হুমকি দিলে দালালরা তাকে ছেড়ে দেয়। তিনি বলেন, এ ঘটনায় আমরা তদন্ত শুরু করেছি। শপিংমলের ভিডিও ফুটেজ যাচাই করা হচ্ছে। উত্তর চব্বিশ পরগনা পুলিশের সঙ্গেও আমাদের যোগাযোগ হয়েছে।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত