চেইনম্যান নজরুল ও তার স্ত্রীর ব্যাংক হিসাবে লেনদেন ১০ কোটি টাকা

ফ্ল্যাট গাড়ি বাড়িসহ অঢেল সম্পদ দুদকের মামলা

  চট্টগ্রাম ব্যুরো ২২ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

চেইনম্যান নজরুল ও তার স্ত্রীর ব্যাংক হিসাবে লেনদেন ১০ কোটি টাকা

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের চেইনম্যান (সংযুক্তিতে ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে কর্মরত) নজরুল ইসলাম ও তার স্ত্রী আনোয়ারা বেগমের ব্যাংক হিসাবে ৯ কোটি ৭৮ লাখ টাকা জমা দেয়ার চিত্র পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক।

এর মধ্যে তোলা হয়েছে আট কোটি ৪৫ লাখ ৭৩ হাজার ১৭৮ টাকা। ২-১৫ এপ্রিল পর্যন্ত মাত্র ১৪ দিনে তাদের নামে থাকা তিনটি হিসাবে জমা হয়েছে ৮৪ লাখ টাকা।

এছাড়া ৩-২০ জুন পর্যন্ত ১৮ দিনে চারটি হিসাবে জমা হয় এক কোটি ২৬ লাখ ২৫ হাজার টাকা। এই টাকার কোনো সুনির্দিষ্ট উৎস পাওয়া যায়নি। মাত্র ১৬ হাজার টাকা বেতনের একজন চেইনম্যান ও তার গৃহবধূ স্ত্রীর নামে এত বিশাল পরিমাণ টাকার লেনদেন দেখে দুদকও বিস্মিত। এছাড়া তাদের নামে বেশ কিছু সম্পদ অর্জনের তথ্যও পাওয়া গেছে।

এদিকে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ ও অর্থ অর্জনে নজরুল ইসলাম ও তার স্ত্রীর নামে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন। বৃহস্পতিবার দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয়-২ এর উপসহকারী পরিচালক মো. রিয়াজ উদ্দিন এ মামলা করেন। মামলায় চেইনম্যান নজরুল ইসলামকে ১ নম্বর আসামি ও তার স্ত্রী আনোয়ারা বেগমকে ২ নম্বর আসামি করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, নজরুলের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম পেশায় গৃহিণী। কোনো পেশা না থাকলেও তার নামে রয়েছে অঢেল সম্পদ। তার সম্পদের মধ্যে রয়েছে নগরীর ওআর নিজাম রোডের জুমাইরা পয়েন্ট নামে অভিজাত ভবনে একটি ফ্ল্যাট। যার নম্বর ৪০৪। এটির বর্তমান বাজারমূল্য ৫০ লাখ টাকা।

চিটাগাং শপিং সেন্টারে দ্বিতীয়তলায় ইয়ানা নামে রয়েছে একটি শোরুম। যেটি ২০১৮ সালে নজরুল ইসলাম তার ৮৫ লাখ টাকায় স্ত্রীর নামে কেনেন। চট্টগ্রাম শপিং কমপ্লেক্সের দ্বিতীয়তলায় আনুকা নামে একটি শোরুম (দোকান নম্বর ২২) রয়েছে।

শোরুমটি কেনা হয় ২০০১-২০০২ অর্থবছরে। তখন দোকানটি কেনা হয় ছয় লাখ ৫০ হাজার টাকা দিয়ে। বর্তমানে শোরুমটির বাজারমূল্য কোটি টাকার কাছাকাছি। একই মার্কেটের প্রথম তলায় আনোয়ারা বেগমের রয়েছে ‘ফ্যামিলি ফেয়ার’ নামে আরও একটি দোকান।

দোকানটিও ২০০১-২০০২ অর্থবছরে কেনা হয়। দোকানটির কেনা মূল্য দেখানো হয়েছে তিন লাখ ৭০ হাজার টাকা। কিন্তু বর্তমান বাজারে এ দামের চেয়ে কয়েকগুণ বেশি। এ ছাড়া চেইনম্যান নজরুল ইসলামের স্ত্রী আনোয়ারা বেগমের নামে রয়েছে একটি প্রাইভেট কার। যার নম্বর চট্ট মেট্রো-গ ১৩-২০১৫। যেটি কেনা হয়েছে ২২ লাখ পঞ্চাশ হাজার টাকা দিয়ে।

নজরুলের নামে হাটহাজারীতে ৩০ লাখ টাকা দামের ডুপ্লেক্স বাড়ি আছে। বর্তমানে তাদের দু’জনের নামে ৫টি ব্যাংক হিসেবে বর্তমানে জমা বা স্থিতি রয়েছে এক কোটি ৩১ লাখ ৬২ হাজার ৭৯৮ টাকা।

৭ নভেম্বর নগরীর শপিং কমপ্লেক্সে নিজের মালিকানাধীন একটি শোরুমে অভিযান চালিয়ে নগদ ৮ লাখ টাকা ও প্রায় কোটি টাকার কমিশনের চেকসহ নজরুল ইসলামকে গ্রেফতার করে দুদক। একই সঙ্গে জেলা প্রশাসনের গোপনীয় শাখার অফিস সহকারী তছলিম উদ্দিনকেও গ্রেফতার করা হয়েছিল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×