সৈকতে উৎসব: নূপুরে নিক্বণে মুগ্ধ কক্সবাজার

  হক ফারুক আহমেদ, কক্সবাজার থেকে ২৩ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

চার দিনের আন্তর্জাতিক দ্বিবার্ষিক-বার্ষিক নৃত্য উৎসব ‘ওশান ডান্স ফেস্টিভ্যাল-২০১৯’
চার দিনের আন্তর্জাতিক দ্বিবার্ষিক-বার্ষিক নৃত্য উৎসব ‘ওশান ডান্স ফেস্টিভ্যাল-২০১৯’। ছবি: যুগান্তর

নূপুরের নিক্বণে মুগ্ধ পর্যটন শহর কক্সবাজার। সমুদ্রের জলরাশি আর স্নিগ্ধ বাতাসে ভেসে বেড়াল মণিপুরী শিল্পীদের পুঙের তাল। সঙ্গে ছিল বাংলার ঢোলের বাদন। আর এভাবেই শুরু হল চার দিনের আন্তর্জাতিক দ্বিবার্ষিক-বার্ষিক নৃত্য উৎসব ‘ওশান ডান্স ফেস্টিভ্যাল-২০১৯’।

‘দূরত্বের সেতুবন্ধ’ প্রতিপাদ্যে উৎসবে নৃত্যকলার মধ্য দিয়ে সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও অর্থনৈতিক সেতু স্থাপনের ধারণাটি তুলে ধরা হবে।

শুক্রবার সকালে কক্সবাজারের মারমেড ইকো রিসোর্টে শুরু হয় চার দিনের আন্তর্জাতিক নৃত্য উৎসব। ওয়ার্ল্ড ডান্স অ্যালায়েন্স, এশিয়া প্যাসিফিকের (ডব্লিউডিএ, এপি) বাংলাদেশ শাখা নৃত্যযোগ প্রথমবারের মতো দেশে আয়োজন করেছে এমন একটি উৎসবের।

উদ্বোধনী আয়োজনে বক্তব্য দেন ডব্লিউডিএ, এপির সভাপতি ঊর্মিমালা সরকার, সহসভাপতি লুবনা মারিয়াম, সাবেক সভাপতি তাইওয়ানের ইউনি ওয়াং এবং ডব্লিউডিএ ও এপির বাংলাদেশ শাখা নৃত্যযোগের সভাপতি আনিসুল ইসলাম হিরু। এ সময় ওশান ড্যান্স ফেস্টিভ্যালের নির্বাহী কমিটির সদস্য লায়লা হাসান, বেলায়েত হোসেন খান, সোমা মমতাজ, মুনমুন আহমেদ, তাবাসসুম আহমেদ, তামান্না রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ঊর্মিমালা সরকার বলেন, এ উৎসব দীর্ঘ সাধনার ফসল। বাংলাদেশে বার্ষিক সভা করার পাশাপাশি এ উৎসবের আয়োজন করতে পারাটা আমাদের জন্য একাধারে আনন্দের এবং গর্বের।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর বড় পর্দায় চলে আকরাম খানের ভিডিও বক্তৃতায় দলবেঁধে শিল্পীদের নৃত্য। এদিন উৎসব উপলক্ষে সেমিনারে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ফাহমিদা সুলতানা তানজী ও লতিফা ইয়াসমিন। সমসাময়িক নৃত্যের কর্মশালা পরিচালনা করেন জার্মান থেকে আসা নৃত্যশিল্পী ও শিক্ষক টমাস বুঙ্গার।

বিকালে কক্স কার্নিভ্যাল মিলনায়তনে শুরু হয় প্রথমদিনের নৃত্য পরিবেশনার মূল আয়োজন। প্রধান অতিথি হিসেবে পরিবেশনার উদ্বোধন করেন সংস্কৃতিবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ। তিনি বলেন, এ উৎসব দেশ ও সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের জন্য আনন্দের। এটা যেন নিয়মিত হয় আমরা সবাই মিলে সেই চেষ্টা করব।

অনুষ্ঠান শুরুতেই ত্রিকোণ কানেকটিভিটিজ পরিবেশনা দিয়ে মাতিয়ে রাখে যুক্তরাষ্ট্রের অনন্যা ডান্স থিয়েটার। এরপর বাংলাদেশের সাধনার শিল্পীরা পরিবেশন করেন আয় আমাদের অঙ্গনে শীর্ষক পরিবেশনা।

এরপর একে একে পরিবেশনা নিয়ে আসেন তাইওয়ানের হুয়াং ইয়ু তিং, ভারতের মেঘনা ভরদ্বাজ, বাংলাদেশের সাধনা কল্পতরু, জুয়েইরিয়াহ মৌলি, আনন্দিতা খান ও মৌমিতা জয়া। যৌথ পরিবেশনা মাতিয়ে রাখেন লিথুনিয়া ও ভারতের ক্রিস্টিনা ডলিনিনা এবং কানাডীয় শিল্পী সাশার জারিফ।

নির্বাচিত শিল্পীদের মধ্যে নাচ করেন ভাবনা, নন্দন কলাকেন্দ্র, তৃণা মজুমদার, প্রদীপ চন্দ্র নাহা, ফিফা চাকমা ও দীপা খন্দকার। ডব্লিউডিএ, এপির বার্ষিক সাধারণ সভা এ বছর বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ উপলক্ষে প্রতিদিনই রয়েছে কর্মশালা, সেমিনার ও প্রবন্ধ পাঠ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×