রোহিঙ্গা ইস্যুতে সক্রিয় হতে পারে বিমসটেক

  যুগান্তর ডেস্ক ৩০ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রোহিঙ্গা শিশু
রোহিঙ্গা শিশু। ফাইল ছবি

বাংলাদেশ আবেদন জানালে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারের সঙ্গে কূটনৈতিক তৎপরতা শুরু করতে পারে বঙ্গোপসাগর সংলগ্ন সাতটি দেশের সংগঠন বিমসটেক। সংগঠনটির মহাসচিব এম শহিদুল ইসলাম বৃহস্পতিবার ভারতের কলকাতায় এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন।

কলকাতায় ‘নবরূপে বিমসটেক’ শীর্ষক দুই দিনব্যাপী আলোচনা সভায় অংশ নেন সদস্য দেশগুলোর কূটনীতিক ও সাংবাদিকরা।

আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আলোচনা সভায় শহিদুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশ ও মিয়ানমার দুই দেশই বিমসটেকের সদস্য। বাংলাদেশ আনুষ্ঠানিকভাবে প্রস্তাব দিলে বিমসটেক রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে এগোনোর কথা ভাববে।

বাংলাদেশি এই কূটনীতিক আরও বলেন, ঢেলে সাজানোর পর বিমসটেক এখন অনেক গতিশীল। অর্থনৈতিক সহযোগিতা, যোগাযোগ বৃদ্ধি থেকে নিরাপত্তা- নানা ক্ষেত্রে সক্রিয় হয়েছে বিমসটেক। ভারত ও পাকিস্তানের টানাপোড়েনের কারণে অকার্যকর হয়ে পড়েছে দক্ষিণ এশীয় দেশগুলোর সংগঠন সার্ক। এ অবস্থায় বিমসটেকের (বে অব বেঙ্গল ইনিশিয়েটিভ ফর মাল্টি-সেক্টরাল টেকনিক্যাল অ্যান্ড ইকোনমিক কো-অপারেশন) কাজের পরিধি বাড়িয়ে সংগঠনটিকে আরও সক্রিয় করার চেষ্টা চলছে।

এক্ষেত্রে সংগঠনটির সদস্য ভারত, বাংলাদেশ, নেপাল, ভুটান, শ্রীলংকা, থাইল্যান্ড ও মিয়ানমার- প্রত্যেককে এক্ষেত্রে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন বক্তারা।

আলোচনা সভার উদ্যোক্তা অবজারভার রিসার্চ ফাউন্ডেশনের পরিচালক নীলাঞ্জন ঘোষ বলেন, চীন-যুক্তরাষ্ট্র বাণিজ্য যুদ্ধের পরিস্থিতিতে অভিন্ন অর্থনৈতিক ব্ল­ক হিসেবে সাফল্য পেতে পারে বিমসটেক।

বক্তারা বলেন, অভিন্ন সড়ক ও রেল যোগাযোগ নিয়ে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রস্তাব রয়েছে বিমসটেকের। তারপরও সংগঠনটি এতদিন কেন সেভাবে সক্রিয় হয়নি তা বিস্ময়ের। ভারতীয় সাবেক কূটনীতিক পিনাকরঞ্জন চক্রবর্তী বলেন, বড় শক্তি হিসেবে ভারত বেশি লাভবান হবে, ছোট সদস্য দেশগুলোর এমন আশঙ্কাই হয়তো এজন্য দায়ী। এই ভয় দূর করতে বিমসটেককে বদলে ফেলা হয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : রোহিঙ্গা বর্বরতা

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

 
×