আ জ ম নাছির নুরুল ইসলাম বিএসসি ফরম নিলেন
jugantor
চসিক নির্বাচনে আ’লীগের মেয়র প্রার্থী
আ জ ম নাছির নুরুল ইসলাম বিএসসি ফরম নিলেন
৫টি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে ফরম নিয়েছেন ৩২ জন

  যুগান্তর রিপোর্ট  

১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম কিনেছেন বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

মঙ্গলবার তিনি আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমণ্ডির কার্যালয় থেকে এ ফরম সংগ্রহ করেন।

এর আগে সোমবার সাবেক প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী এবং নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নুরুল ইসলাম বিএসসি ও তার ছেলে মুজিবুর রহমান একই পদে মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। পাশাপাশি আরও চারজন মেয়র পদে দলীয় ফরম সংগ্রহ করেন।

এছাড়া চসিকে কাউন্সিলর পদে দলীয় আবেদন ফরম নিয়েছেন ২৩৪ জন। আর শূন্য হওয়া ৫টি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন ৩২ জন।

এর মধ্যে মঙ্গলবার ঢাকা-১০ আসনের জন্য ফরম কিনেছেন এফবিসিসিআই’র সাবেক সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া যুগান্তরকে উল্লিখিত সব তথ্য নিশ্চিত করেন।

চসিক নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহকারী অন্যরা হলেন- নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খোরশেদ আলম সুজন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম চৌধুরী, চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আলতাফ হোসেন চৌধুরী ও আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ ইউনূস।

এদিকে মঙ্গলবার দুপুরে দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মেয়র নাছির বলেন, মেয়র হিসেবে আমি সফল হয়েছি। আমার সর্বোচ্চটা দিয়ে কাজ করেছি। আমি আবারও দলীয় মনোনয়ন চাই। মনোনয়ন দেয়ার ক্ষেত্রে আমাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে সিদ্ধান্ত নেবেন তা মেনে নেব।

জানতে চাইলে মুজিবুর রহমান বলেন, এর আগে জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও আমাদের নেত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলাম। তখন আমাদের বলা হয়েছিল, সামনে আরও অনেক সুযোগ আছে। তোমাদের নতুনদের সেখানে ‘প্রোভাইড’ করা হবে।

সে কারণে আমি এবার চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছি। আমি রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান। আমার বাবাও মন্ত্রী ছিলেন। দল যদি আমাকে মনোনয়ন দেয়, তাহলে বিজয়ী হয়ে নগরবাসীর জন্য কাজ করতে পারব।

এর আগে শনিবার সকালে দলীয় সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে তফসিল ঘোষিত তিন আসনের (গাইবান্ধা-৩, ঢাকা-১০ ও বাগেরহাট-৪) উপনির্বাচনের ফরম বিক্রি শুরু করে আওয়ামী লীগ।

এর একদিন পর সোমবার সকাল থেকে শূন্য হওয়া অন্য দুটি সংসদীয় আসন (যশোর-৬, বগুড়া-১) এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছে ফরম বিক্রি শুরু করে ক্ষমতাসীনরা।

ঢাকা-১০ আসনের উপনির্বাচনকে সামনে রেখে বিকালে শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিনের পক্ষে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএর সাবেক সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান।

সিদ্দিকুর রহমান সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, নেত্রী (শেখ হাসিনা) মনোনয়ন দিলে আমরা জয় লাভ করে মুজিববর্ষের প্রথম উপহার দিতে চাই।

আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার পর্যন্ত প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ফরম কেনা ও জমা দেয়া যাবে। মেয়র পদে মনোনয়ন ফরমের দাম ২৫ হাজার ও কাউন্সিলর পদে ১০ হাজার টাকা রাখা হচ্ছে।

১৫ ফেব্রুয়ারি শনিবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে।

চসিক নির্বাচনে আ’লীগের মেয়র প্রার্থী

আ জ ম নাছির নুরুল ইসলাম বিএসসি ফরম নিলেন

৫টি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে ফরম নিয়েছেন ৩২ জন
 যুগান্তর রিপোর্ট 
১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম কিনেছেন বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

মঙ্গলবার তিনি আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমণ্ডির কার্যালয় থেকে এ ফরম সংগ্রহ করেন।

এর আগে সোমবার সাবেক প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী এবং নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নুরুল ইসলাম বিএসসি ও তার ছেলে মুজিবুর রহমান একই পদে মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। পাশাপাশি আরও চারজন মেয়র পদে দলীয় ফরম সংগ্রহ করেন।

এছাড়া চসিকে কাউন্সিলর পদে দলীয় আবেদন ফরম নিয়েছেন ২৩৪ জন। আর শূন্য হওয়া ৫টি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন ৩২ জন।

এর মধ্যে মঙ্গলবার ঢাকা-১০ আসনের জন্য ফরম কিনেছেন এফবিসিসিআই’র সাবেক সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া যুগান্তরকে উল্লিখিত সব তথ্য নিশ্চিত করেন।

চসিক নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহকারী অন্যরা হলেন- নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খোরশেদ আলম সুজন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম চৌধুরী, চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আলতাফ হোসেন চৌধুরী ও আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ ইউনূস।

এদিকে মঙ্গলবার দুপুরে দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মেয়র নাছির বলেন, মেয়র হিসেবে আমি সফল হয়েছি। আমার সর্বোচ্চটা দিয়ে কাজ করেছি। আমি আবারও দলীয় মনোনয়ন চাই। মনোনয়ন দেয়ার ক্ষেত্রে আমাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে সিদ্ধান্ত নেবেন তা মেনে নেব।

জানতে চাইলে মুজিবুর রহমান বলেন, এর আগে জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও আমাদের নেত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলাম। তখন আমাদের বলা হয়েছিল, সামনে আরও অনেক সুযোগ আছে। তোমাদের নতুনদের সেখানে ‘প্রোভাইড’ করা হবে।

সে কারণে আমি এবার চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছি। আমি রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান। আমার বাবাও মন্ত্রী ছিলেন। দল যদি আমাকে মনোনয়ন দেয়, তাহলে বিজয়ী হয়ে নগরবাসীর জন্য কাজ করতে পারব।

এর আগে শনিবার সকালে দলীয় সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে তফসিল ঘোষিত তিন আসনের (গাইবান্ধা-৩, ঢাকা-১০ ও বাগেরহাট-৪) উপনির্বাচনের ফরম বিক্রি শুরু করে আওয়ামী লীগ।

এর একদিন পর সোমবার সকাল থেকে শূন্য হওয়া অন্য দুটি সংসদীয় আসন (যশোর-৬, বগুড়া-১) এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছে ফরম বিক্রি শুরু করে ক্ষমতাসীনরা।

ঢাকা-১০ আসনের উপনির্বাচনকে সামনে রেখে বিকালে শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিনের পক্ষে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএর সাবেক সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান।

সিদ্দিকুর রহমান সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, নেত্রী (শেখ হাসিনা) মনোনয়ন দিলে আমরা জয় লাভ করে মুজিববর্ষের প্রথম উপহার দিতে চাই।

আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার পর্যন্ত প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ফরম কেনা ও জমা দেয়া যাবে। মেয়র পদে মনোনয়ন ফরমের দাম ২৫ হাজার ও কাউন্সিলর পদে ১০ হাজার টাকা রাখা হচ্ছে।

১৫ ফেব্রুয়ারি শনিবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন