গাছচাপায় ইজিবাইকের ৫ যাত্রী নিহত

  ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি ১০ মার্চ ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

দুর্ঘটনা। প্রতীকী ছবি

ঢাকার ধামরাইয়ে দুটি ইজিবাইকের ওপর গাছ পড়ে ৫ যাত্রী নিহত ও ৭ জন আহত হয়েছেন। সোমবার দুপুরে উপজেলার কালামপুর-বালিয়া-মির্জাপুর আঞ্চলিক মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে। অভিযোগ উঠেছে, নিরাপত্তা বলয় তৈরি না করেই সড়ক ও জনপথ বিভাগের (সওজ) গাছ কাটা হচ্ছিল।

নিহতরা হলেন- উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের কামারপাড়া গ্রামের মৃত ফজলুল হক গাদুলীর বাকপ্রতিবন্ধী ছেলে মো. শামসুল আলম (৪৫), মো. রমজান আলীর স্ত্রী মাজেদা বেগম (৬৫), বাইচাইল গ্রামের সরকারপাড়ার মো. কোমর আলী সরকারের ছেলে মো. আমিরুল ইসলাম নুরা সরকার (৬৫), তার স্ত্রী জাহানারা বেগম (৫৫) ও তেলীগ্রামের মো. মোহন মিয়ার স্ত্রী আয়েশা বেগম (৪৫)।

এ ঘটনায় চালকসহ আহত হয়েছেন আরও ৭ জন। তারা হলেন- মো. হযরত আলী (৫৫), মর্জিনা আক্তার (৩৫), শেফালী আক্তার (৪৭), হুচেন আলী (৫২), কুব্বত আলী (৬২), নেছার আলী (৫৪) ও কেরামত আরী (৫৬)।

এদের মধ্যে হযরত আলী ও শেফালী বেগমের অবস্থা আশঙ্কাজনক। আহতদের ঢাকার অর্থোপেডিক হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় থেকে বয়স্ক ভাতার টাকা নিয়ে দুটি ইজিবাইকে ফিরছিলেন হতাহতরা। পথে কালামপুর-বালিয়া-মির্জাপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের মাদারপুর মিলগেট এলাকায় পৌঁছলে গাছ পড়ে দুটি ইজিবাইক দুমড়ে-মুচড়ে যায়।

এতে ঘটনাস্থলেই একটি গাড়ির ৫ জন নিহত হন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠান। এলাকাবাসীর অভিযোগ, রাস্তা প্রশস্ত করতে সওজের গাছ কাটার অভিযান চলছিল। তবে এজন্য তাদের কোনো নিরাপত্তা বলয় ছিল না।

দুর্ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থল থেকে দৌড়ে পালিয়ে যান সওজের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের লোকজন। কাওয়ালীপাড়া বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. রাসেল মোল্লা বলেন, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের লোকদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এ ব্যাপারে সওজের উপ-প্রকৌশলী মো. কামাল উদ্দিন খান বলেন, আঞ্চলিক মহাসড়কের সংস্কারে দু’পাশের মেহগনি গাছ দরপত্র আহ্বানের মাধ্যমে বিক্রি করা হয়েছে। একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গাছগুলো তাদের দায়িত্বে কেটে নিচ্ছে।

তবে নিরাপত্তা বলয় না গড়ে অসাবধানতাবশত গাছ কাটায় তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, ওই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত