চট্টগ্রাম বন্দর

কনটেইনার স্টোর রেন্ট শতভাগ মওকুফের সময় বাড়ানোর দাবি

  চট্টগ্রাম ব্যুরো ২৩ মে ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

চট্টগ্রাম বন্দরে কনটেইনারের স্টোর রেন্ট শতভাগ মওকুফের সময়সীমা ৩০ মে পর্যন্ত বাড়ানোর দাবি জানিয়েছে চট্টগ্রাম কাগজ ও সেলোফিন ব্যবসায়ী গ্রুপ। নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব বরাবর শুক্রবার পাঠানো এক চিঠিতে সংগঠনের পক্ষ থেকে এ দাবি জানানো হয়। গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ বেলাল স্বাক্ষরিত এ চিঠিতে বলা হয়েছে, মহামারীর কারণে সাধারণ ছুটি ঘোষণার পর থেকে ব্যবসা-বাণিজ্যে ধস নেমেছে। ব্যবসায়ীদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে সরকার ২৬ মার্চ থেকে দু’দফায় ১৬ মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটিকালীন যেসব কনটেইনার বন্দরে অবতরণ করেছে সেসব কনটেইনার ডেলিভারির ক্ষেত্রে স্টোর রেন্ট শতভাগ মওকুফ করার ঘোষণা দেয়। এরই মধ্যে সাধারণ ছুটির সময়সীমা তৃতীয় দফা ৩০ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়। কিন্তু চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ ১৯ মে জারি করা এক নোটিশে বলেছে, ১৬ মের মধ্যে যেসব কনটেইনার চট্টগ্রাম বন্দরে অবতরণ করেছে কিন্তু ডেলিভারি নেয়া হয়নি ৩০ মে পর্যন্ত সেসব কনটেইনারের বিপরীতে স্ল্যাব (স্তর) অনুযায়ী ৫০ ভাগ স্টোর রেন্ট প্রযোজ্য হবে। চট্টগ্রাম বন্দরের এমন সিদ্ধান্ত ও নোটিশে ব্যবসায়ীরা অবাক হয়েছেন।

চিঠিতে বলা হয়, করোনাভাইরাস পরিস্থিতি বদলায়নি। বরং করোনার এ আঘাতের মধ্যে সুপার সাইক্লোন আম্পানের কারণে চট্টগ্রাম বন্দরে ৪৮ ঘণ্টা অপারেশনাল কার্যক্রম বন্ধ ছিল। এ ধাক্কাও সামলাতে হচ্ছে ব্যবসায়ীদের। পরিস্থিতি না বদলানোর পরও কীভাবে স্টোর রেন্ট মওকুফ শতভাগের পরিবর্তে ৫০ ভাগে নামিয়ে আনা হল তা তাদের বোধগম্য হচ্ছে না।

নৌ সচিব বরাবরে চিঠি পাঠানোর কথা নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম কাগজ ও সেলোফিন ব্যবসায়ী গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ বেলাল শুক্রবার বিকালে যুগান্তরকে বলেন, ‘মহামারীর জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক ঋণের ২ মাসের সুদ মওকুফ করেছে ও জরিমানা অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপতির আদেশে এ সংক্রান্ত গেজেটও প্রকাশ হয়েছে। কিন্তু চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ স্টোর রেন্ট মওকুফ সংক্রান্ত যে নোটিশ ১৯ মে জারি করেছে তা বিভ্রান্তিকর এবং সরকারের আদেশ ও গেজেটের বিরোধী। আমরা চাই এ নোটিশ প্রত্যাহার করা হোক। ২৬ মার্চ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত চট্টগ্রাম বন্দরে অবতরণ করা সব ধরনের কনটেইনারের স্টোর রেন্ট শতভাগ মওকুফ করা না হলে আপৎকালীন এ সময়ে স্টোর রেন্টের বিষয়ে দুই ধরনের সিদ্ধান্ত ব্যবসায়ীদের ক্ষতিগ্রস্ত করবে।’

চট্টগ্রাম বন্দরের পরিচালকের (ট্রাফিক) স্বাক্ষরে ১৯ মে জারি করা নোটিশে বলা হয়েছে, ‘এর আগে চট্টগ্রাম বন্দরে অবতরণকৃত যেসব কনটেইনার ৪ দিন ফ্রি টাইম অর্থাৎ সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি ২৬ মার্চ শেষ হয়েছে, ওইসব কনটেইনার ডেলিভারির ক্ষেত্রে ১৬ মে পর্যন্ত স্টোর রেন্ট শতভাগ মওকুফযোগ্য হবে। এসব কনটেইনার ১৭ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত সময়ে ডেলিভারি গ্রহণ করা হলে প্রযোজ্য স্ল্যাব অনুযায়ী ৫০ ভাগ মওকুফযোগ্য হবে।’

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত