৮০ কোটি মানুষকে বিনামূল্যে খাদ্য দেয়ার ঘোষণা মোদির

  যুগান্তর ডেস্ক ০১ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাভাইরাস মোকাবেলার অংশ হিসেবে আগামী নভেম্বর পর্যন্ত ভারতের ৮০ কোটি মানুষকে বিনামূল্যে খাদ্য সহায়তা অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রধানমন্ত্রীর ‘গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনা’ নামের প্রকল্পের আওতায় দরিদ্রতম পরিবারগুলোকে মাথাপিছু পাঁচ কেজি চাল অথবা গম এবং এক কেজি ডাল সহায়তা দেয়া হবে। মঙ্গলবার জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে এ ঘোষণার পাশাপাশি লকডাউন প্রত্যাহারের সময় দেশবাসীকে আরও সতর্ক থাকার আহ্বান জানান মোদি। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়া ও আনন্দবাজারসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের।

ভারতে করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকলেও আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে দ্বিতীয় ধাপে লকডাউনের বিধিনিষেধ শিথিল করা হবে। তবে বন্ধ থাকছে ট্রেন, মেট্রো সেবাসহ আন্তর্জাতিক ফ্লাইট।

ভাষণে মোদি বলেন, আনলক ওয়ান শুরু হতেই দেখছি সাবধানতা উধাও। দায়িত্বজ্ঞানহীনতা বেড়ে গিয়েছে। উধাও হয়ে যাচ্ছে মাস্ক পরা, দু’গজ দূরত্বের বিধি। কিন্তু এখন যখন আমাদের আরও বেশি সতর্ক থাকতে হবে, সেই সময় এই সতর্কতা কমে যাওয়া অত্যন্ত উদ্বেগের বিষয়।

তিনি বলেন, লকডাউনের সময় নিয়মকানুন কঠোরভাবে মেনে চলেছি। এখন সরকার ও স্থানীয় প্রশাসনসহ দেশের সাধারণ মানুষকে ফের সেই একই রকম (লকডাউনের সময়ের মতো) সাবধান হতে হবে। বিশেষ করে কন্টেনমেন্ট জোনের ওপর আমাদের অত্যন্ত কড়া নজর রাখতে হবে। যেসব মানুষ নিয়ম মানছেন না, তাদের আটকাতে হবে, বোঝাতে হবে।

সবাইকে মাস্ক পরতে ও সামজিক দূরত্ববিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে মোদি বলেন, আপনারা খবরে শুনে থাকবেন, সম্প্রতি একটি দেশের প্রধানমন্ত্রী মাস্ক না পরে বের হওয়ায় তাকে ১৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ভারতেও স্থানীয় প্রশাসনকে এ উদ্যমের সঙ্গে কাজ করতে হবে।

এটা ১৩০ কোটি দেশবাসীকে রক্ষা করার প্রশ্ন। পঞ্চায়েত প্রধান হোক বা প্রধানমন্ত্রী, আইন সবার জন্য সমান।

ভাষণে মোদি বলেন, কৃষিক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি কাজকর্ম শুরু হয় জুলাই মাস থেকে। এ সময়ে অন্যান্য শিল্পক্ষেত্রে কাজের পরিমাণ কিছুটা কম থাকে। তাছাড়া উৎসব মৌসুমও কার্যত জুলাই থেকে শুরু হচ্ছে। এ সময়ে মানুষের প্রয়োজন ও খরচ বাড়ে। এসব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর অন্ন যোজনার মেয়াদ জুন থেকে নভেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হল। এর ফলে নভেম্বর পর্যন্ত দেশের প্রায় ৮০ কোটি মানুষ বিনামূল্যে খাদ্যশস্য পাবেন।

খাদ্য সহায়তার এ প্রকল্পে কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন করে ৯০ হাজার কোটি রুপি খরচ হবে বলে জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এর আগে জুন পর্যন্ত গত ছয় মাস ধরে এ প্রকল্প চালানো হয়েছে। সেই ব্যয় হিসাবে আনলে এ প্রকল্পের মোট খরচ দাঁড়াবে প্রায় দেড় লাখ কোটি রুপি।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত