বিশ্বে একদিনেই শনাক্ত ২ লাখ ২৩ হাজার

ভারতে ফের রেকর্ড সংক্রমণ * করোনার উৎস সন্ধানে চীনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তদন্ত দল * স্পেনে ৭৩ স্থানে ফের সংক্রমণ * লাতিন আমেরিকায় সাড়ে ৪ কোটি মানুষ দরিদ্র হতে পারে : জাতিসংঘ

  যুগান্তর ডেস্ক ১১ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিশ্বজুড়ে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। কোনো কোনো দেশে দেখা দিয়েছে মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ। আগের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে এবার একদিনেই বিশ্বে ২ লাখ ২৩ হাজার রোগী শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৬১ হাজার আক্রান্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। এছাড়া ব্রাজিলে ৪২ হাজার এবং ভারতে রেকর্ড ২৬ হাজার রোগী শনাক্ত হয়েছে।

এদিকে নভেল করোনাভাইরাসের উৎসের সন্ধানে চীনে গেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার একটি অগ্রগামী দল। স্পেনে ৭৩টি স্থানে আবারও করোনা সংক্রমণ দেখা দিয়েছে, এতে দেশটিতে আতঙ্ক বিরাজ করছে। জাতিসংঘ বলছে, মহামারীর কারণে লাতিন আমেরিকায় সাড়ে ৪ কোটি মানুষ দরিদ্র হতে পারে। খবর বিবিসি, গার্ডিয়ান ও এএফপিসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের।

বাংলাদেশ সময় শুক্রবার রাত সাড়ে ৭টা পর্যন্ত ওয়ার্ল্ডওমিটারসের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ২৪ লাখ ৩০ হাজার ৬১৭ জন। মারা গেছেন ৫ লাখ ৫৮ হাজার ৩২৫ জন। অবস্থা আশঙ্কাজনক ৫৮ হাজার ৮০৬ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৭২ লাখ ৫২ হাজার ১২৮ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ২৩ হাজার ২৩০, মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৪১২ জনের। যা আগের ২৪ ঘণ্টায় ছিল যথাক্রমে ২ লাখ ১৩ হাজার ২৭৯ ও ৫ হাজার ৫১৮ জন।

বিশ্ব তালিকায় শীর্ষে থাকা যুক্তরাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় ৬১ হাজার ৬৭ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন, মৃত্যু হয়েছে ৯৬০ জনের। এ নিয়ে সেখানে মোট আক্রান্ত ৩২ লাখ ২১ হাজার ৯৩৮ জন, মারা গেছেন ১ লাখ ৩৫ হাজার ৮৬৯ জন। তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা ব্রাজিলে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪২ হাজার ৯০৭ জন, মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ১৯৯ জনের। এ নিয়ে দেশটিতে মোট রোগীর সংখ্যা ১৭ লাখ ৬২ হাজার ২৬৩ জন, মৃত্যু হয়েছে ৬৯ হাজার ৩১৬ জনের।

তৃতীয় স্থানে থাকা ভারতে একদিনেই প্রায় ২৬ হাজারের বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। দেশটিতে এটাই সর্বোচ্চ দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৭ লাখ ৯৮ হাজার ১৬১ জন, মৃত্যু হয়েছে ২১ হাজার ৬৫৬ জনের। ভারতে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, দিল্লি, গুজরাট, উত্তরপ্রদেশ, কর্নাটক ও তেলেঙ্গায়। মহারাষ্ট্রে আক্রান্ত ২ লাখ ৩০ হাজার ৫৯৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৯ হাজার ৬৬৭ জনের।

তামিলনাড়ুতে আক্রান্ত ১ লাখ ২৬ হাজার ৫৮১, মারা গেছে ১ হাজার ৭৬৫ জন। আক্রান্ত ও মৃত্যুতে তৃতীয় স্থানে রাজধানী দিল্লি। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ৭ হাজার ৫১ জন আর মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ২৫৮ জনের।

বৈশ্বিক তালিকায় চতুর্থ স্থানে থাকা রাশিয়ায় মোট রোগীর সংখ্যা ৭ লাখ ১৩ হাজার ৯৩৬ জন, মৃত্যু হয়েছে ১১ হাজার ১৭ জনের। পঞ্চম স্থানে থাকা পেরুতে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ১৬ হাজার ৪৪৮ জন, মারা গেছেন ১১ হাজার ৩১৪ জন। স্পেনকে ছাড়িয়ে ষষ্ঠ স্থানে উঠে আসা চিলিতে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ৬ হাজার ২১৬ জন, মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ৬৮২ জনের। স্পেনে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ১৩৬ জন, মৃত্যু হয়েছে ২৮ হাজার ৪০১ জনের।

চীনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তদন্ত দল : নভেল করোনাভাইরাসের উৎস সম্পর্কে জানতে চীনে গেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার একটি অগ্রগামী তদন্ত দল। শুক্রবার সংস্থার এক মুখপাত্র এ তথ্য জানিয়েছেন।

এক প্রেস ব্রিফিংয়ে মুখপাত্র মারগারেট হ্যারিস বলেন, এই তদন্ত দলে দু’জন বিশেষজ্ঞ রয়েছেন। এদের একজন প্রাণিবিজ্ঞান এবং অন্যজন মহামারী বিশেষজ্ঞ। তারা করোনাভাইরাসের উৎস সন্ধানে চীনা বিজ্ঞানীদের সঙ্গে কাজ করবেন।

স্পেনে ৭৩ স্থানে ফের সংক্রমণ : স্পেনে জরুরি অবস্থা উঠিয়ে নেয়ার ২০ দিনের মাথায় নতুন করে আবারও সক্রিয় হয়ে উঠেছে করোনাভাইরাস। দেশটির ৭৩ স্থানে প্রাণঘাতী কোভিড-১০ ছড়িয়ে পড়েছে। এসব জায়গায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৫৪৩ জন। এ সময় মারা গেছেন অন্তত ৫ জন। এ খবরে অনেকটা স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসা স্প্যানিশদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

অক্সফোর্ডের করোনা ভ্যাকসিন আসতে আরও ৬ মাস : যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি ও ফার্মাসিউটিক্যাল জায়ান্ট অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি করোনাভাইরাসের সম্ভাব্য ভ্যাকসিনের তৃতীয় ধাপের ট্রায়াল চলছে। সম্প্রতি অক্সফোর্ডের এ ভ্যাকসিন উৎপাদনের জন্য চুক্তি হয়েছে সিরাম ইন্সটিটিউট অব ইন্ডিয়ার সঙ্গে। এর উৎপাদন হবে ব্রাজিলেও।

বৃহস্পতিবার ভ্যাকসিন উৎপাদক সংস্থাটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এখনও বিশ্বের ‘সবচেয়ে নিরাপদ’ করোনা ভ্যাকসিন হাতে পেতে আরও অন্তত ছয় মাস অপেক্ষা করতে হবে।

ক্যান্সার রোগীদের বিশেষ ভ্যাকসিন কানাডার : ক্যান্সার রোগীদের করোনা থেকে বাঁচাতে, শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে এবং সংক্রমণ-প্রতিরোধী ক্ষমতা গড়ে তোলার জন্য বিশেষ ভ্যাকসিনের ট্রায়াল চলছে কানাডায়।

বিশ্বে প্রথমবারের মতো ক্যান্সার রোগীদের ওপর আএমএম-১০১ ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল করছেন কানাডার ওট্টাওয়া হাসপাতালের সার্জিকাল অনকোলিস্ট এবং ওট্টাওয়া ইউনিভার্সিটির গবেষক-অধ্যাপক ডক্টর রেবেকা আওয়ার।

লাতিন আমেরিকায় সাড়ে ৪ কোটি লোক দরিদ্র হতে পারে : জাতিসংঘ বলছে, লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবীয় অঞ্চলে ৪ কোটি ৫০ লাখ লোককে মধ্যবিত্ত থেকে দরিদ্রের দিকে ঠেলে দিতে পারে করোনা মহামারী। ইতোমধ্যেই এই অর্থনৈতিক সংকট দেখা দিয়েছে।

জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস এক বিবৃতিতে বলেছেন, ইতোমধ্যেই বৈষম্য বাড়ছে, বেকারত্বের সংখ্যা সর্বোচ্চ, স্বাস্থ্যসেবার ভঙ্গুর অবস্থায় সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ জনসংখ্যা পুনরায় আরও কঠিন সংকটে পড়েছে। সংস্থাটি বলেছে, এই অঞ্চলে দরিদ্র ৭ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে মোট দারিদ্রের সংখ্যা দাঁড়াবে ২৩ কোটি।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত