পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবস আজ, ‘কালো দিবস’ পালন করবে এমকিউএম
jugantor
পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবস আজ, ‘কালো দিবস’ পালন করবে এমকিউএম

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৪ আগস্ট ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবস আজ। মুত্তাহিদা কওমি মুভমেন্ট (এমকিউএম) এই দিনটিকে ‘কালো দিবস’ হিসেবে পালন করবে।

মহাজির, সিন্ধি, বালুচ, পশতুন ও অন্যান্য জাতিগোষ্ঠী ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর রাষ্ট্রীয় নিপীড়নের প্রতিবাদে তারা এই কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। খবর এএনআই’র।

আলতাফ হোসেন প্রতিষ্ঠিত এমকিউএমের যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, জার্মানি, অস্ট্রেলিয়া এবং অন্যান্য বিদেশি ইউনিট এদিন গাড়ি র‌্যালি করবে। কর্মসূচি বাস্তবায়নের প্রস্তুতি ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে।

এ লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় প্রস্তুতি কমিটির সভায় বিভিন্ন উপ-কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এমকিউএমের বিদেশি চ্যাপ্টারের সংগঠকরা জানিয়েছেন, পাকিস্তানের সেনাবাহিনী, প্যারা-মিলিটারি রেঞ্জার্স, সীমান্তরক্ষী এবং অন্যান্য নিরপত্তাবাহিনী মহাজির, সিন্ধি, বালুচ, পশতুন, অন্যান্য জাতি ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন চালাচ্ছে।

এছাড়া বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড, অন্যায়ভাবে গ্রেফতার, আটক ও নিখোঁজ করার মতো মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা নিত্যদিনের রুটিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই রাষ্ট্রীয় নিপীড়নের বিরুদ্ধে তাদের বিক্ষোভ অব্যাহত থাকবে।

পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবস আজ, ‘কালো দিবস’ পালন করবে এমকিউএম

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৪ আগস্ট ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবস আজ। মুত্তাহিদা কওমি মুভমেন্ট (এমকিউএম) এই দিনটিকে ‘কালো দিবস’ হিসেবে পালন করবে।

মহাজির, সিন্ধি, বালুচ, পশতুন ও অন্যান্য জাতিগোষ্ঠী ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর রাষ্ট্রীয় নিপীড়নের প্রতিবাদে তারা এই কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। খবর এএনআই’র।

আলতাফ হোসেন প্রতিষ্ঠিত এমকিউএমের যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, জার্মানি, অস্ট্রেলিয়া এবং অন্যান্য বিদেশি ইউনিট এদিন গাড়ি র‌্যালি করবে। কর্মসূচি বাস্তবায়নের প্রস্তুতি ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে।

এ লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় প্রস্তুতি কমিটির সভায় বিভিন্ন উপ-কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এমকিউএমের বিদেশি চ্যাপ্টারের সংগঠকরা জানিয়েছেন, পাকিস্তানের সেনাবাহিনী, প্যারা-মিলিটারি রেঞ্জার্স, সীমান্তরক্ষী এবং অন্যান্য নিরপত্তাবাহিনী মহাজির, সিন্ধি, বালুচ, পশতুন, অন্যান্য জাতি ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন চালাচ্ছে।

এছাড়া বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড, অন্যায়ভাবে গ্রেফতার, আটক ও নিখোঁজ করার মতো মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা নিত্যদিনের রুটিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই রাষ্ট্রীয় নিপীড়নের বিরুদ্ধে তাদের বিক্ষোভ অব্যাহত থাকবে।