চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন প্রণব মুখার্জি
jugantor
চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন প্রণব মুখার্জি

  কৃষ্ণকুমার দাস, কলকাতা  

১৫ আগস্ট ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

প্রণব মুখার্জি
প্রণব মুখার্জি। ফাইল ছবি

নয়াদিল্লির আর্মি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে এবং তিনি চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন। চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলার পর শুক্রবার টুইট করে এ কথা জানিয়েছেন প্রণব মুখার্জির ছেলে অভিজিৎ মুখার্জি। আর সেনা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পৃথক মেডিকেল বুলেটিনে জানিয়েছে, সাবেক রাষ্ট্রপতির শরীরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্যারামিটারের অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। এদিকে সাবেক রাষ্ট্রপতি চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন- এ খবরে ভারত ও বাংলাদেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে কিছুটা স্বস্তি ফিরে এসেছে।

শুক্রবার দুপুরে অভিজিৎ মুখার্জি টুইটারে লেখেন, ‘৯৬ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণের সময়কাল আজই শেষ হচ্ছে। বাবার শারীরিক অবস্থা (ভাইটাল প্যারামিটার্স) স্থিতিশীল এবং উনি চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন। বাবা সবসময় বলতেন, দেশকে আমি যতটা দিয়েছি, দেশবাসীর কাছ থেকে তার চেয়ে অনেক পেশি পেয়েছি। ওর জন্য প্রার্থনা করুন।’

প্রণব মুখার্জির মেয়ে কংগ্রেস নেত্রী শর্মিষ্ঠা মুখার্জি লেখেন, ‘চিকিৎসার পরিভাষায় না গিয়ে, গত দু’দিনে আমি যতটুকু বুঝেছি তা হল, বাবার অবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটজনক হলেও পরিস্থিতির অবনতি হয়নি। বরং চোখে আলো পড়লে উনি সাড়া দিচ্ছেন। সকলের সম্মিলিত প্রার্থনা শক্তির উপর আমার আস্থা রয়েছে। এই কঠিন সময়ে যারা আমাদের পাশে রয়েছেন, তাদের সকলকে কৃতজ্ঞতা জানাই। আপনাদের কাছে অনুরোধ, প্রার্থনা করে যান।’

সর্বভারতীয় ইংরেজি দৈনিক ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’কে অভিজিৎ মুখার্জি বলেন, আমি বাবার জন্য কাঁঠাল আনতে কলকাতা থেকে আমাদের গ্রাম মীরাটি গিয়েছিলাম। ২৫ কেজির একটি ফল নিয়ে আসি। ৩ আগস্ট দিল্লিগামী একটি ট্রেনে কাঠাল নিয়ে বাবার সঙ্গে দেখা করি। সে দিনই তিনি কিছু কাঁঠাল খান। সৌভাগ্যবশত তাতে তার সুগার বাড়েনি। তিনি দারুণ আনন্দ পেয়েছিলেন... তখনও তিনি অসুস্থ ছিলেন না। এক সপ্তাহ না যেতেই বাবার এই অবস্থা হবে- ভাবতেই কষ্ট হয়।

চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন প্রণব মুখার্জি

 কৃষ্ণকুমার দাস, কলকাতা 
১৫ আগস্ট ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
প্রণব মুখার্জি
প্রণব মুখার্জি। ফাইল ছবি

নয়াদিল্লির আর্মি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে এবং তিনি চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন। চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলার পর শুক্রবার টুইট করে এ কথা জানিয়েছেন প্রণব মুখার্জির ছেলে অভিজিৎ মুখার্জি। আর সেনা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পৃথক মেডিকেল বুলেটিনে জানিয়েছে, সাবেক রাষ্ট্রপতির শরীরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্যারামিটারের অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। এদিকে সাবেক রাষ্ট্রপতি চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন- এ খবরে ভারত ও বাংলাদেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে কিছুটা স্বস্তি ফিরে এসেছে।

শুক্রবার দুপুরে অভিজিৎ মুখার্জি টুইটারে লেখেন, ‘৯৬ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণের সময়কাল আজই শেষ হচ্ছে। বাবার শারীরিক অবস্থা (ভাইটাল প্যারামিটার্স) স্থিতিশীল এবং উনি চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন। বাবা সবসময় বলতেন, দেশকে আমি যতটা দিয়েছি, দেশবাসীর কাছ থেকে তার চেয়ে অনেক পেশি পেয়েছি। ওর জন্য প্রার্থনা করুন।’

প্রণব মুখার্জির মেয়ে কংগ্রেস নেত্রী শর্মিষ্ঠা মুখার্জি লেখেন, ‘চিকিৎসার পরিভাষায় না গিয়ে, গত দু’দিনে আমি যতটুকু বুঝেছি তা হল, বাবার অবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটজনক হলেও পরিস্থিতির অবনতি হয়নি। বরং চোখে আলো পড়লে উনি সাড়া দিচ্ছেন। সকলের সম্মিলিত প্রার্থনা শক্তির উপর আমার আস্থা রয়েছে। এই কঠিন সময়ে যারা আমাদের পাশে রয়েছেন, তাদের সকলকে কৃতজ্ঞতা জানাই। আপনাদের কাছে অনুরোধ, প্রার্থনা করে যান।’

সর্বভারতীয় ইংরেজি দৈনিক ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’কে অভিজিৎ মুখার্জি বলেন, আমি বাবার জন্য কাঁঠাল আনতে কলকাতা থেকে আমাদের গ্রাম মীরাটি গিয়েছিলাম। ২৫ কেজির একটি ফল নিয়ে আসি। ৩ আগস্ট দিল্লিগামী একটি ট্রেনে কাঠাল নিয়ে বাবার সঙ্গে দেখা করি। সে দিনই তিনি কিছু কাঁঠাল খান। সৌভাগ্যবশত তাতে তার সুগার বাড়েনি। তিনি দারুণ আনন্দ পেয়েছিলেন... তখনও তিনি অসুস্থ ছিলেন না। এক সপ্তাহ না যেতেই বাবার এই অবস্থা হবে- ভাবতেই কষ্ট হয়।