পত্রিকায় প্রকাশিত তথ্য কতটা ঠিক জানি না
jugantor
প্রতিবেদন প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
পত্রিকায় প্রকাশিত তথ্য কতটা ঠিক জানি না
সিনহা হত্যা মামলা

  যুগান্তর রিপোর্ট  

১০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, মেজর (অব.) সিনহা হত্যার ঘটনায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন নিয়ে পত্রিকায় কী এসেছে এবং তথ্য কতটা ঠিক আমার জানা নেই। ঘটনাটি তাৎক্ষণিকভাবে ওই কমিটি তদন্ত করে।

সম্প্রতি তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনটি পেয়েছি। আদালত চাইলে আমরা প্রতিবেদনটি দেব। আদালতের নির্দেশেও ঘটনাটির তদন্ত চলছে। বুধবার সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কামাল আরও বলেন, প্রতিবেদনটি কীভাবে পত্রিকায় প্রকাশ হল সেটা আমার জানা নেই। যিনি প্রকাশ করেছেন ও তথ্য সরবরাহ করেছেন তিনি কাজটি ঠিক করেননি। বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি। আর ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের ঘটনা না ঘটে আমরা তা দেখব। তিনি বলেন, এ নিয়ে আমরা কোনো রকমের মন্তব্য করব না। এটাও বলেছি আদালত চাইলে আদালতকে প্রতিবেদনটি দেব। যাতে নিরপেক্ষ একটি প্রতিবেদন বিচারকদের কাছে যায়। এজন্য যত ধরনের প্রচেষ্টা নেয়া দরকার, আমরা সেটা নেব। আদালতের নির্দেশে চলা র‌্যাবের তদন্ত প্রভাবিত হোক তা আমরা চাই না। এটা বিচারকরাও চান না।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, সম্প্রতি তদন্ত প্রতিবেদনটি আমরা পেয়েছি। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে একটি কমিটি প্রতিবেদনটি পর্যালোচনা করবে। এ ব্যাপারে কী করা হবে সে বিষয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তিনি বলেন, প্রতিবেদনটি কীভাবে প্রকাশ পেল সেটা আমার জানা নেই। এটা কতখানি সত্য বা কতখানি সত্য নয়, তা এখন বলতে পারব না। প্রতিবেদনটি পড়লে সত্য জানা যাবে।

প্রতিবেদনটি প্রকাশকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কামাল বলেন, এখনও চিন্তা করিনি। একটি স্বনামধন্য পত্রিকায় প্রসঙ্গটা প্রকাশ পেয়েছে। দেখব এর সত্যতা কতখানি এবং কার মাধ্যমে পেয়েছে। এছাড়া বিচারের আগেই কেন প্রকাশ করা হল তাও জানার বিষয় থাকবে। আদালত তো পত্রিকার কাছে প্রতিবেদন চাইবে না, আদালত চাইবে আমাদের কাছে। আমরা প্রতিবেদন পাঠিয়ে দেব। ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের ঘটনা না ঘটে সেজন্য তদন্তের প্রতিবেদনটি আমরা পর্যালোচনা করব। তাদের সুপারিশগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের কাছে প্রতিবেদনটি জমা দেন তদন্ত কমিটির প্রধান চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন কমিটির সদস্য লে. কর্নেল এসএম সাজ্জাদ হোসেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গঠিত চার সদস্যের তদন্ত কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন- কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শাহজাহান আলী ও পুলিশের অতিরিক্ত উপ-মহাপরিদর্শক জাকির হোসেন খান।

প্রতিবেদন প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

পত্রিকায় প্রকাশিত তথ্য কতটা ঠিক জানি না

সিনহা হত্যা মামলা
 যুগান্তর রিপোর্ট 
১০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, মেজর (অব.) সিনহা হত্যার ঘটনায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন নিয়ে পত্রিকায় কী এসেছে এবং তথ্য কতটা ঠিক আমার জানা নেই। ঘটনাটি তাৎক্ষণিকভাবে ওই কমিটি তদন্ত করে।

সম্প্রতি তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনটি পেয়েছি। আদালত চাইলে আমরা প্রতিবেদনটি দেব। আদালতের নির্দেশেও ঘটনাটির তদন্ত চলছে। বুধবার সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কামাল আরও বলেন, প্রতিবেদনটি কীভাবে পত্রিকায় প্রকাশ হল সেটা আমার জানা নেই। যিনি প্রকাশ করেছেন ও তথ্য সরবরাহ করেছেন তিনি কাজটি ঠিক করেননি। বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি। আর ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের ঘটনা না ঘটে আমরা তা দেখব। তিনি বলেন, এ নিয়ে আমরা কোনো রকমের মন্তব্য করব না। এটাও বলেছি আদালত চাইলে আদালতকে প্রতিবেদনটি দেব। যাতে নিরপেক্ষ একটি প্রতিবেদন বিচারকদের কাছে যায়। এজন্য যত ধরনের প্রচেষ্টা নেয়া দরকার, আমরা সেটা নেব। আদালতের নির্দেশে চলা র‌্যাবের তদন্ত প্রভাবিত হোক তা আমরা চাই না। এটা বিচারকরাও চান না।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, সম্প্রতি তদন্ত প্রতিবেদনটি আমরা পেয়েছি। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে একটি কমিটি প্রতিবেদনটি পর্যালোচনা করবে। এ ব্যাপারে কী করা হবে সে বিষয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তিনি বলেন, প্রতিবেদনটি কীভাবে প্রকাশ পেল সেটা আমার জানা নেই। এটা কতখানি সত্য বা কতখানি সত্য নয়, তা এখন বলতে পারব না। প্রতিবেদনটি পড়লে সত্য জানা যাবে।

প্রতিবেদনটি প্রকাশকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কামাল বলেন, এখনও চিন্তা করিনি। একটি স্বনামধন্য পত্রিকায় প্রসঙ্গটা প্রকাশ পেয়েছে। দেখব এর সত্যতা কতখানি এবং কার মাধ্যমে পেয়েছে। এছাড়া বিচারের আগেই কেন প্রকাশ করা হল তাও জানার বিষয় থাকবে। আদালত তো পত্রিকার কাছে প্রতিবেদন চাইবে না, আদালত চাইবে আমাদের কাছে। আমরা প্রতিবেদন পাঠিয়ে দেব। ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের ঘটনা না ঘটে সেজন্য তদন্তের প্রতিবেদনটি আমরা পর্যালোচনা করব। তাদের সুপারিশগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের কাছে প্রতিবেদনটি জমা দেন তদন্ত কমিটির প্রধান চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন কমিটির সদস্য লে. কর্নেল এসএম সাজ্জাদ হোসেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গঠিত চার সদস্যের তদন্ত কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন- কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শাহজাহান আলী ও পুলিশের অতিরিক্ত উপ-মহাপরিদর্শক জাকির হোসেন খান।

 

ঘটনাপ্রবাহ : মেজর সিনহার মৃত্যু