রংপুরে স্বাস্থ্য খাতের ৩ ঠিকাদারের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদের মামলা

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রংপুর মেডিকেলসহ অন্যান্য সরকারি হাসপাতালে বিভিন্ন ধরনের সামগ্রী সরবরাহে যুক্ত তিন ঠিকাদারের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে পৃথক তিনটি মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বুধবার দুদকের প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. সাইদুজ্জামান দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-১ এ মামলাগুলো করেন। তিন আসামির বাড়িই রংপুরে।

কমিশনে দাখিল করা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এমএইচ ফার্মার মালিক মোসাদ্দেক হোসেন সম্পদ বিবরণীতে এক কোটি ৬৪ লাখ ৪০ হাজার টাকা মূল্যের সম্পদের তথ্য গোপন করেন। তার গোপন করা সম্পদসহ অবৈধ উপায়ে অর্জিত জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদের পরিমাণ দুই কোটি ৮৭ লাখ ৬৫ হাজার টাকা।

মামলায় আরও বলা হয়, এই পরিমাণ মূল্যের স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদ তার নিজ নামে অর্জন করেছেন। মোসাদ্দেক হোসেন দুর্নীতি দমন কমিশনে দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে অর্জিত সম্পদ সম্পর্কে তথ্য গোপন করে ও জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ নিজ দখলে রেখে ২০০৪ সালের দুর্নীতি দমন কমিশন আইনে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন।

দ্বিতীয় মামলায় অভি ড্রাগসের মালিক মো. জয়নাল আবেদীনকে আসামি করা হয়। তিনি কমিশনে দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে এক কোটি ৭৩ লাখ ৬৫ হাজার টাকা মূল্যের সম্পদের তথ্য গোপন করেছেন। গোপন করা সম্পদসহ তার অবৈধ উপায়ে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদের পরিমাণ দুই কোটি ৭৯ লাখ ৫১ হাজার টাকা।

এই পরিমাণ মূল্যের স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদ তার নিজ নামে অর্জন করেছেন। জয়নাল আবেদীন দুর্নীতি দমন কমিশনে দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে অর্জিত সম্পদ সম্পর্কে তথ্য গোপন ও জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগটি দুর্নীতি দমন কমিশন আইনে শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এই অপরাধে মামলাটি করা হয়।

তৃতীয় মামলায় আলবিরা ফার্মেসির মো. আলমগীর হোসেনকে আসামি করা হয়। তিনি দুর্নীতি দমন কমিশনে দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে ৯৫ লাখ, ৫০ হাজার টাকা মূল্যের সম্পদের তথ্য গোপন করেছেন। তার গোপন করা সম্পদসহ অবৈধ উপায়ে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদের পরিমাণ এক কোটি ২৬ লাখ ১২ হাজার টাকা। মামলায় বলা হয়, এই পরিমাণ মূল্যের স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদ তার নিজ নামে দখলে রেখেছেন।

আলমগীর হোসেন দুর্নীতি দমন কমিশনে দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে অর্জিত সম্পদ সম্পর্কে তথ্য গোপন করে ও জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন আইনে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেন।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত