অর্থনীতি নিয়ে মিথ্যাচার করছে সরকার
jugantor
অর্থনীতি নিয়ে মিথ্যাচার করছে সরকার

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০১ নভেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দেশের অর্থনীতি ও জিডিপি প্রবৃদ্ধি নিয়ে সরকার ‘মিথ্যাচার’ করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, আজকে ভারত স্বীকার করে যে, তাদের প্রবৃদ্ধি ১০ শতাংশ কমে গেছে। আর এরা (বাংলাদেশ সরকার) বলছে মিথ্যা কথা। জাস্ট ইমাজিন। একটা সরকার কতটা দায়িত্বজ্ঞানহীন হলে জনগণের সঙ্গে মিথ্যা কথা বলে।

জাতীয় প্রেস ক্লাবে শুক্রবার এক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন। এগ্রিকালচারিস্টস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (এ্যাব) উদ্যোগে ‘কোভিড-১৯ এর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাংলাদেশের কৃষি সেক্টরে কৌশল নির্ধারণ’ শীর্ষক এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

সরকারের তথ্যমতে, গত অর্থবছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৫ দশমিক ২৪ শতাংশ হয়েছে, যা আগের অর্থবছর ছিল ৮ দশমিক ১৫ শতাংশ। এ প্রসঙ্গ টেনে ফখরুল বলেন, বর্তমান সরকার সম্পূর্ণভাবে জনবিচ্ছিন্ন বলেই সঠিক তথ্য দেয়ার দায়িত্বশীলতা তাদের নেই। প্রতিটি ক্ষেত্রে তারা মিথ্যাচার করছে। প্রণোদনা নিয়ে আমরা প্রথমেই বলেছিলাম এটা শুভংকরের ফাঁকি। এটা তারা দিচ্ছে ব্যাংক থেকে। যারা সরকার ও ব্যাংকের সঙ্গে বিভিন্ন লেনদেনে সম্পৃক্ত নয়, তারা কিন্তু এই প্রণোদনা পাচ্ছে না।

দেশের অপ্রাতিষ্ঠানিক খাত ও গ্রামীণ অর্থনীতি ‘ভয়াবহ’ অবস্থায় পড়লেও সরকার বিষয়টি ঢেকে রাখছে বলে মন্তব্য করেন বিএনপি মহাসচিব। তিনি বলেন, আমার কাছে মনে হয় সচেতনভাবে তারা এদেশের অর্থনীতিকে নষ্ট করে দেয়ার জন্য এসব করছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, বর্তমান সরকারের সময় চারদিকে দুর্নীতি ছাড়া কিছু নেই। এমনকি স্বাস্থ্য খাত নিয়েও সরকার সঠিক তথ্য দেয় না। সরকারি যে ভাষ্য দেয় তার সঙ্গে বাস্তবতার কোনো মিল নেই।

বিএনপিকে নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, আমার কাছে ইন্টারেস্টিং লাগে, তারা যখন বলেন বিএনপি নেই, বিএনপি নাকি একেবারে শেষ হয়ে গেছে, নিঃশেষ হয়ে গেছে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের প্রত্যেকদিন শুধু একটাই কাজ, বিএনপির বিরুদ্ধে কথা বলা। ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশে তিনি বলেন, দেশের অর্থনীতি বা আপনার দলকে কীভাবে এগিয়ে নেবেন- সেসব কথা না বলে আপনি তো শুধু দুইটা কথা বলেন। একটা হচ্ছে শেখ হাসিনা, আরেকটা হচ্ছে বিএনপির বিরুদ্ধে। দ্যাট মিনস বিএনপি এত বেশি করে আছে, এত প্রবলভাবে আছে যে আপনাকে প্রত্যেক দিন এই কথা বলতে হচ্ছে।

সেমিনারে ময়মনসিংহের বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের পশুপালন অনুষদের ডিন অধ্যাপক একে ফজলুল হক ভূঁইয়া সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। এ্যাবের আহ্বায়ক রাশিদুল হাসান হারুনের সভাপতিত্বে ও কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীমের পরিচালনায় সেমিনারে আরও বক্তব্য দেন- কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের সাবেক মহাপরিচালক অধ্যাপক ইব্রাহিম খলিল, অধ্যাপক জিকেএম মোস্তাফিজুর রহমান, অধ্যাপক গোলাম হাফিজ কেনেডি, অধ্যাপক মো. আবদুল করিম, অধ্যাপক শামসুল আলম ভূঁইয়া, অধ্যাপক শওকত আলী, বিএনপির স্বনির্ভরবিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, সহ-কৃষিবিষয়ক সম্পাদক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল ফারুক প্রমুখ।

অর্থনীতি নিয়ে মিথ্যাচার করছে সরকার

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০১ নভেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দেশের অর্থনীতি ও জিডিপি প্রবৃদ্ধি নিয়ে সরকার ‘মিথ্যাচার’ করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, আজকে ভারত স্বীকার করে যে, তাদের প্রবৃদ্ধি ১০ শতাংশ কমে গেছে। আর এরা (বাংলাদেশ সরকার) বলছে মিথ্যা কথা। জাস্ট ইমাজিন। একটা সরকার কতটা দায়িত্বজ্ঞানহীন হলে জনগণের সঙ্গে মিথ্যা কথা বলে।

জাতীয় প্রেস ক্লাবে শুক্রবার এক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন। এগ্রিকালচারিস্টস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (এ্যাব) উদ্যোগে ‘কোভিড-১৯ এর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাংলাদেশের কৃষি সেক্টরে কৌশল নির্ধারণ’ শীর্ষক এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

সরকারের তথ্যমতে, গত অর্থবছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৫ দশমিক ২৪ শতাংশ হয়েছে, যা আগের অর্থবছর ছিল ৮ দশমিক ১৫ শতাংশ। এ প্রসঙ্গ টেনে ফখরুল বলেন, বর্তমান সরকার সম্পূর্ণভাবে জনবিচ্ছিন্ন বলেই সঠিক তথ্য দেয়ার দায়িত্বশীলতা তাদের নেই। প্রতিটি ক্ষেত্রে তারা মিথ্যাচার করছে। প্রণোদনা নিয়ে আমরা প্রথমেই বলেছিলাম এটা শুভংকরের ফাঁকি। এটা তারা দিচ্ছে ব্যাংক থেকে। যারা সরকার ও ব্যাংকের সঙ্গে বিভিন্ন লেনদেনে সম্পৃক্ত নয়, তারা কিন্তু এই প্রণোদনা পাচ্ছে না।

দেশের অপ্রাতিষ্ঠানিক খাত ও গ্রামীণ অর্থনীতি ‘ভয়াবহ’ অবস্থায় পড়লেও সরকার বিষয়টি ঢেকে রাখছে বলে মন্তব্য করেন বিএনপি মহাসচিব। তিনি বলেন, আমার কাছে মনে হয় সচেতনভাবে তারা এদেশের অর্থনীতিকে নষ্ট করে দেয়ার জন্য এসব করছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, বর্তমান সরকারের সময় চারদিকে দুর্নীতি ছাড়া কিছু নেই। এমনকি স্বাস্থ্য খাত নিয়েও সরকার সঠিক তথ্য দেয় না। সরকারি যে ভাষ্য দেয় তার সঙ্গে বাস্তবতার কোনো মিল নেই।

বিএনপিকে নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, আমার কাছে ইন্টারেস্টিং লাগে, তারা যখন বলেন বিএনপি নেই, বিএনপি নাকি একেবারে শেষ হয়ে গেছে, নিঃশেষ হয়ে গেছে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের প্রত্যেকদিন শুধু একটাই কাজ, বিএনপির বিরুদ্ধে কথা বলা। ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশে তিনি বলেন, দেশের অর্থনীতি বা আপনার দলকে কীভাবে এগিয়ে নেবেন- সেসব কথা না বলে আপনি তো শুধু দুইটা কথা বলেন। একটা হচ্ছে শেখ হাসিনা, আরেকটা হচ্ছে বিএনপির বিরুদ্ধে। দ্যাট মিনস বিএনপি এত বেশি করে আছে, এত প্রবলভাবে আছে যে আপনাকে প্রত্যেক দিন এই কথা বলতে হচ্ছে।

সেমিনারে ময়মনসিংহের বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের পশুপালন অনুষদের ডিন অধ্যাপক একে ফজলুল হক ভূঁইয়া সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। এ্যাবের আহ্বায়ক রাশিদুল হাসান হারুনের সভাপতিত্বে ও কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীমের পরিচালনায় সেমিনারে আরও বক্তব্য দেন- কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের সাবেক মহাপরিচালক অধ্যাপক ইব্রাহিম খলিল, অধ্যাপক জিকেএম মোস্তাফিজুর রহমান, অধ্যাপক গোলাম হাফিজ কেনেডি, অধ্যাপক মো. আবদুল করিম, অধ্যাপক শামসুল আলম ভূঁইয়া, অধ্যাপক শওকত আলী, বিএনপির স্বনির্ভরবিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, সহ-কৃষিবিষয়ক সম্পাদক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল ফারুক প্রমুখ।