ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনে ভোটগ্রহণ আজ
jugantor
ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনে ভোটগ্রহণ আজ
সুষ্ঠু ভোট নিয়ে বিএনপিতে শঙ্কা উৎসবমুখর আ’লীগ

  যুগান্তর রিপোর্ট  

১২ নভেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনে উপনির্বাচনে আজ ভোট। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ চলবে। দুটি আসনেই ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট নেয়া হবে। বুধবার ভোট কেন্দ্রগুলোয় নির্বাচনী সরঞ্জাম পাঠানো হয়েছে। নির্বাচনের প্রস্তুতি শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। তবে সুষ্ঠু ভোটগ্রহণ নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিএনপির প্রার্থীরা। অপরদিকে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটগ্রহণ হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থীরা। ২৮ সেপ্টেম্বর এ দুটি আসনের তফসিল ঘোষণা করে ইসি।
ঢাকা-১৮ আসনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টিসহ ছয়টি রাজনৈতিক দলের ছয়জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। অপরদিকে সিরাজগঞ্জ-১ আসনে লড়ছেন শুধু আওয়ামী লীগ ও বিএনপি প্রার্থী। ভোটগ্রহণ উপলক্ষে শুধু নির্বাচনসংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। বাকি সব অফিস খোলা থাকবে। তবে ভোটারদের ভোট দেয়ার সুযোগ দিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। এছাড়া যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞাও শিথিল করা হয়েছে। বুধবার মধ্যরাত থেকে ভোটের দিন মধ্যরাত পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী এলাকায় ট্রাক ও পিকআপ চলাচল বন্ধ থাকবে। মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে শুক্রবার মধ্যরাত পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।
আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সাহারা খাতুন ৯ জুলাই মারা যাওয়ায় ঢাকা-১৮ আসন এবং মোহাম্মদ নাসিম ১৩ জুন মারা গেলে সিরাজগঞ্জ-১ আসন শূন্য ঘোষণা করে জাতীয় সংসদ। এ আসন দুটিতে উপনির্বাচন হতে যাচ্ছে। নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর যুগান্তরকে জানিয়েছেন, ভোটের প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। ভোট কেন্দ্রে মালামাল পাঠানো হয়েছে। আশা করি, সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হবে। নির্বাচন উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বাড়তি সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।
ঢাকা-১৮ আসনে সুষ্ঠু ভোটগ্রহণ নিয়ে পাল্টাপাল্টি বক্তব্য দিয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোহাম্মদ হাবিব হাসান ও বিএনপির এসএম জাহাঙ্গীর হোসেন। সুষ্ঠু ভোট নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করে বিএনপি প্রার্থী এসএম জাহাঙ্গীর হোসেন অভিযোগ করেছেন, সরকারি দলের নেতাকর্মীরা কেন্দ্র দখল করে সন্ত্রাস চালাতে পারে।
তবে ভোটারদের উদ্দেশে তিনি বলেন, যতই বাধা আসুক ভোট কেন্দ্রে যাবেন। নির্ভয়ে ভোট দেবেন। ক্ষমতাসীনদের সন্ত্রাস, দুর্নীতি-দুঃশাসনের বিরুদ্ধে ভোট দেবেন। বিএনপির পোলিং এজেন্টরা প্রতিটি বুথে থাকবেন। নেতাকর্মীরাও কেন্দ্রের আশপাশে থাকবেন। বুধবার দুপুরে উত্তরার নিজ নির্বাচনী কার্যালয়ে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।
অপরদিকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী হাবিব হাসান বলেন, বহিরাগতদের নিয়ে বিএনপিই নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করছে। মানুষ উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দেয়ার জন্য মুখিয়ে আছে। সিরাজগঞ্জ-১ আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী প্রকৌশলী তানভীর শাকিল স্থানীয় চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আমার দাদা ও বাবা এ আসনের জন্য যে অবদান রেখেছেন তাতে নৌকার বিজয় নিশ্চিত। বিএনপি নিশ্চিত পরাজয় জেনে নির্বাচনী প্রক্রিয়া প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা চালাচ্ছে।
ঢাকা-১৮ আসনটি ঢাকা উত্তর সিটির ১, ১৭, ৪৩ থেকে ৫৪ নম্বর ওয়ার্ড ও বিমানবন্দর এলাকা নিয়ে গঠিত। ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ২১৭টি এবং ভোটকক্ষের সংখ্যা ১৩৫৩টি। ভোটার ৫ লাখ ৭৭ হাজার ১৮৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২ লাখ ৯৬ হাজার ১৩৫ এবং নারী ভোটার ২ লাখ ৮১ হাজার ৫৩ জন। এ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৬ জন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগের মোহাম্মদ হাবিব হাসান, বিএনপির এসএম জাহাঙ্গীর হোসেন, জাতীয় পার্টির নাসির উদ্দিন সরকার, বাংলাদেশ কংগ্রেসের ওমর ফারুক, গণফ্রন্টের কাজী মো. শহীদুল্লাহ ও পিডিপির মহিববুল্লা বাহার। সিরাজগঞ্জের কাজীপুর, সদরের একাংশ ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত সিরাজগঞ্জ-১ আসন। এখানে আওয়ামী লীগের প্রার্থী তানভীর শাকিল জয় এবং বিএনপির প্রার্থী সেলিম রেজা লড়ছেন। মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৪৫ হাজার ৬০৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৭১ হাজার ৬৪১ জন এবং নারী ভোটার ১ লাখ ৭৩ হাজার ৯৬২ জন। ১৬৮টি কেন্দ্রে ভোটাররা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনে ভোটগ্রহণ আজ

সুষ্ঠু ভোট নিয়ে বিএনপিতে শঙ্কা উৎসবমুখর আ’লীগ
 যুগান্তর রিপোর্ট 
১২ নভেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনে উপনির্বাচনে আজ ভোট। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ চলবে। দুটি আসনেই ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট নেয়া হবে। বুধবার ভোট কেন্দ্রগুলোয় নির্বাচনী সরঞ্জাম পাঠানো হয়েছে। নির্বাচনের প্রস্তুতি শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। তবে সুষ্ঠু ভোটগ্রহণ নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিএনপির প্রার্থীরা। অপরদিকে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটগ্রহণ হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থীরা। ২৮ সেপ্টেম্বর এ দুটি আসনের তফসিল ঘোষণা করে ইসি।
ঢাকা-১৮ আসনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টিসহ ছয়টি রাজনৈতিক দলের ছয়জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। অপরদিকে সিরাজগঞ্জ-১ আসনে লড়ছেন শুধু আওয়ামী লীগ ও বিএনপি প্রার্থী। ভোটগ্রহণ উপলক্ষে শুধু নির্বাচনসংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। বাকি সব অফিস খোলা থাকবে। তবে ভোটারদের ভোট দেয়ার সুযোগ দিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। এছাড়া যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞাও শিথিল করা হয়েছে। বুধবার মধ্যরাত থেকে ভোটের দিন মধ্যরাত পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী এলাকায় ট্রাক ও পিকআপ চলাচল বন্ধ থাকবে। মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে শুক্রবার মধ্যরাত পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।
আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সাহারা খাতুন ৯ জুলাই মারা যাওয়ায় ঢাকা-১৮ আসন এবং মোহাম্মদ নাসিম ১৩ জুন মারা গেলে সিরাজগঞ্জ-১ আসন শূন্য ঘোষণা করে জাতীয় সংসদ। এ আসন দুটিতে উপনির্বাচন হতে যাচ্ছে। নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর যুগান্তরকে জানিয়েছেন, ভোটের প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। ভোট কেন্দ্রে মালামাল পাঠানো হয়েছে। আশা করি, সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হবে। নির্বাচন উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বাড়তি সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। 
ঢাকা-১৮ আসনে সুষ্ঠু ভোটগ্রহণ নিয়ে পাল্টাপাল্টি বক্তব্য দিয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোহাম্মদ হাবিব হাসান ও বিএনপির এসএম জাহাঙ্গীর হোসেন। সুষ্ঠু ভোট নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করে বিএনপি প্রার্থী এসএম জাহাঙ্গীর হোসেন অভিযোগ করেছেন, সরকারি দলের নেতাকর্মীরা কেন্দ্র দখল করে সন্ত্রাস চালাতে পারে।
তবে ভোটারদের উদ্দেশে তিনি বলেন, যতই বাধা আসুক ভোট কেন্দ্রে যাবেন। নির্ভয়ে ভোট দেবেন। ক্ষমতাসীনদের সন্ত্রাস, দুর্নীতি-দুঃশাসনের বিরুদ্ধে ভোট দেবেন। বিএনপির পোলিং এজেন্টরা প্রতিটি বুথে থাকবেন। নেতাকর্মীরাও কেন্দ্রের আশপাশে থাকবেন। বুধবার দুপুরে উত্তরার নিজ নির্বাচনী কার্যালয়ে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।
অপরদিকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী হাবিব হাসান বলেন, বহিরাগতদের নিয়ে বিএনপিই নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করছে। মানুষ উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দেয়ার জন্য মুখিয়ে আছে। সিরাজগঞ্জ-১ আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী প্রকৌশলী তানভীর শাকিল স্থানীয় চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আমার দাদা ও বাবা এ আসনের জন্য যে অবদান রেখেছেন তাতে নৌকার বিজয় নিশ্চিত। বিএনপি নিশ্চিত পরাজয় জেনে নির্বাচনী প্রক্রিয়া প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা চালাচ্ছে। 
ঢাকা-১৮ আসনটি ঢাকা উত্তর সিটির ১, ১৭, ৪৩ থেকে ৫৪ নম্বর ওয়ার্ড ও বিমানবন্দর এলাকা নিয়ে গঠিত। ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ২১৭টি এবং ভোটকক্ষের সংখ্যা ১৩৫৩টি। ভোটার ৫ লাখ ৭৭ হাজার ১৮৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২ লাখ ৯৬ হাজার ১৩৫ এবং নারী ভোটার ২ লাখ ৮১ হাজার ৫৩ জন। এ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৬ জন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগের মোহাম্মদ হাবিব হাসান, বিএনপির এসএম জাহাঙ্গীর হোসেন, জাতীয় পার্টির নাসির উদ্দিন সরকার, বাংলাদেশ কংগ্রেসের ওমর ফারুক, গণফ্রন্টের কাজী মো. শহীদুল্লাহ ও পিডিপির মহিববুল্লা বাহার। সিরাজগঞ্জের কাজীপুর, সদরের একাংশ ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত সিরাজগঞ্জ-১ আসন। এখানে আওয়ামী লীগের প্রার্থী তানভীর শাকিল জয় এবং বিএনপির প্রার্থী সেলিম রেজা লড়ছেন। মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৪৫ হাজার ৬০৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৭১ হাজার ৬৪১ জন এবং নারী ভোটার ১ লাখ ৭৩ হাজার ৯৬২ জন। ১৬৮টি কেন্দ্রে ভোটাররা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন