তাইওয়ানের পার্লামেন্টে হাতাহাতি হট্টগোল
jugantor
তাইওয়ানের পার্লামেন্টে হাতাহাতি হট্টগোল

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৮ নভেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্র থেকে মাংস আমদানিকে কেন্দ্র করে তুলকালাম কাণ্ড ঘটেছে তাইওয়ানের পার্লামেন্টে। তুমুল হাতাহাতির একপর্যায়ে ক্ষমতাসীনদের ওপর শূকরের নাড়িভুঁড়ি ছুড়ে মারেন বিরোধী দলের সদস্যরা। শুক্রবার এ ঘটনা ঘটেছে। খবর বিবিসি।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে শূকর ও গরু আমদানি নিয়ে তাইওয়ানে উত্তেজনা চলছে কয়েকদিন ধরেই। বিষয়টি নিয়ে শুক্রবার আলোচনা হওয়ার কথা পার্লামেন্টে। কিন্তু বিতর্ক বন্ধ করার দাবি তোলে বিরোধীরা। একপর্যায়ে প্রধানমন্ত্রী-স্পিকারসহ ক্ষমতাসীনদের দিকে শূকরের নাড়িভুঁড়ি ছুড়ে মারে তারা। পরে দফায় দফায় হাতাহাতি হয় দুই পক্ষের মধ্যে।

বিরোধীদের অভিযোগ, যুক্তরাষ্ট্র থেকে যে শূকরের মাংস আমদানির অনুমতি দেয়া হয়েছে তাতে র‌্যাক্টোপামিন রয়েছে। স্বাস্থ্যের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় তাইওয়ানের সাবেক সরকার ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন এই উপাদানযুক্ত মাংস আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছিল।

অবশ্য বর্তমান ক্ষমতাসীন দল অভিযোগ অস্বীকার করেছে এবং তারা এই ইস্যুতে পার্লামেন্টে যুক্তিপূর্ণ বিতর্কের আহ্বান জানিয়েছে।

বিবিসি জানায়, শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী সু তিসেং-চ্যাং পার্লামেন্টে প্রশ্নোত্তর পর্বে জবাব দিচ্ছিলেন। এ সময় প্রধান বিরোধী দল কুওমিনতাংয়ের সদস্যরা তাকে লক্ষ্য করে এক বালতি শূকরের নাড়িভুঁড়ি ছুড়ে মারেন। বেশ কয়েক জন সদস্য তাইওয়ান স্টেটবিল্ডিং পার্টির নেতাকে চেন ওপা-উইকে ঘুষিও মারেন। ক্ষমতাসীন ডেমোক্রেটিক প্রোগ্রেসিভ পার্টি এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেছে, ‘এটি জঘন্য প্রতিবাদ।’

তাইওয়ানের পার্লামেন্টে হাতাহাতি হট্টগোল

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৮ নভেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্র থেকে মাংস আমদানিকে কেন্দ্র করে তুলকালাম কাণ্ড ঘটেছে তাইওয়ানের পার্লামেন্টে। তুমুল হাতাহাতির একপর্যায়ে ক্ষমতাসীনদের ওপর শূকরের নাড়িভুঁড়ি ছুড়ে মারেন বিরোধী দলের সদস্যরা। শুক্রবার এ ঘটনা ঘটেছে। খবর বিবিসি।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে শূকর ও গরু আমদানি নিয়ে তাইওয়ানে উত্তেজনা চলছে কয়েকদিন ধরেই। বিষয়টি নিয়ে শুক্রবার আলোচনা হওয়ার কথা পার্লামেন্টে। কিন্তু বিতর্ক বন্ধ করার দাবি তোলে বিরোধীরা। একপর্যায়ে প্রধানমন্ত্রী-স্পিকারসহ ক্ষমতাসীনদের দিকে শূকরের নাড়িভুঁড়ি ছুড়ে মারে তারা। পরে দফায় দফায় হাতাহাতি হয় দুই পক্ষের মধ্যে।

বিরোধীদের অভিযোগ, যুক্তরাষ্ট্র থেকে যে শূকরের মাংস আমদানির অনুমতি দেয়া হয়েছে তাতে র‌্যাক্টোপামিন রয়েছে। স্বাস্থ্যের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় তাইওয়ানের সাবেক সরকার ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন এই উপাদানযুক্ত মাংস আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছিল।

অবশ্য বর্তমান ক্ষমতাসীন দল অভিযোগ অস্বীকার করেছে এবং তারা এই ইস্যুতে পার্লামেন্টে যুক্তিপূর্ণ বিতর্কের আহ্বান জানিয়েছে।

বিবিসি জানায়, শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী সু তিসেং-চ্যাং পার্লামেন্টে প্রশ্নোত্তর পর্বে জবাব দিচ্ছিলেন। এ সময় প্রধান বিরোধী দল কুওমিনতাংয়ের সদস্যরা তাকে লক্ষ্য করে এক বালতি শূকরের নাড়িভুঁড়ি ছুড়ে মারেন। বেশ কয়েক জন সদস্য তাইওয়ান স্টেটবিল্ডিং পার্টির নেতাকে চেন ওপা-উইকে ঘুষিও মারেন। ক্ষমতাসীন ডেমোক্রেটিক প্রোগ্রেসিভ পার্টি এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেছে, ‘এটি জঘন্য প্রতিবাদ।’