চট্টল পরিবারের উন্নয়নে নিজেকে উজাড় করে দেব
jugantor
চট্টল পরিবারের উন্নয়নে নিজেকে উজাড় করে দেব
-রেজাউল

  চট্টগ্রাম ব্যুরো  

১৪ জানুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরী বলেছেন, মেয়র নির্বাচিত হয়ে চট্টল পরিবারের উন্নয়নে নিজেকে উজাড় করে দিতে চাই। আপনাদের সন্তান হিসাবে সেবার দায়িত্ব নিতে চাই। চট্টগ্রাম মহানগরীতে বসবাসকারী আমরা সবাই একটি পরিবার। সিটি করর্পোরেশন এ পরিবারের সেবামূলক কাজ করে।

আমি সুখে-দুঃখে সবার সঙ্গে ছিলাম, আছি, থাকব। বহদ্দারহাট, বলিরহাট, ঘাসিয়াপাড়া, খাজা রোড এলাকায় বুধবার হেঁটে বাড়ি বাড়ি গিয়ে গণসংযোগ ও নির্বাচনী প্রচারণার সময় তিনি এসব কথা বলেন। নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত আওয়ামী লীগের পাঠানটুলি ওয়ার্ডের কর্মী আজগর আলী বাবুলের বাড়িতেও যান রেজাউল। নিহতের পরিবারকে সান্ত্বনা দিয়ে বলেন, বাবুল সারা জীবন আওয়ামী লীগের রাজনীতি করে গেছেন। তার খুনিদের কেউ রক্ষা করতে পারবে না। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বহদ্দারহাট এলাকায় প্রচারণায় রেজাউল করিমের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আবদুস শুক্কুর, ৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি শামসুল আলম, কাউন্সিলর প্রার্থী আশরাফুল আলম, লালখান বাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল হাসনাত মো. বেলাল, রফিকুল হায়দার রফি, খলিলুর রহমান নাহিদ, খায়রুল আলম প্রমুখ। এ সময় তারা নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়ে লিফলেট বিতরণ করেন।

বিভিন্ন পথসভায় রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, আমি মেয়র নির্বাচিত হলে সিটি করপোরেশনের দুয়ার সবার জন্য খোলা থাকবে। আধুনিক প্রযুক্তি ও হটলাইন সেবার মাধ্যমে সর্বোচ্চ নাগরিকসেবা নিশ্চিত করতে দিনরাত ২৪ ঘণ্টা মানুষের সঙ্গে সংযুক্ত থাকবে করপোরেশন। বঙ্গবন্ধুকন্যা আমাকে আপনাদের সেবার দায়িত্ব দিতে চান। তাই নৌকা মার্কায় ভোট চাইতে আপনাদের কাছে পাঠিয়েছেন।

আমি বীর চট্টলার সন্তান। এর ধুলোমাটির ঋণ আমি চট্টগ্রামের মানুষের সেবা করে ও চট্টগ্রামকে অধিকতর সমৃদ্ধ করার মধ্য দিয়ে শোধ করতে চাই। আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক ও শেখ হাসিনার কর্মী। আমি মানুষ ভালোবাসি। আমি মানুষের কাছে যাই। যে কোনো সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে মানুষ যে কোনো সময় আমার কাছে আসতে পারেন, কথা বলতে পারেন।

এ গণসংযোগের সময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী।

চট্টল পরিবারের উন্নয়নে নিজেকে উজাড় করে দেব

-রেজাউল
 চট্টগ্রাম ব্যুরো 
১৪ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরী বলেছেন, মেয়র নির্বাচিত হয়ে চট্টল পরিবারের উন্নয়নে নিজেকে উজাড় করে দিতে চাই। আপনাদের সন্তান হিসাবে সেবার দায়িত্ব নিতে চাই। চট্টগ্রাম মহানগরীতে বসবাসকারী আমরা সবাই একটি পরিবার। সিটি করর্পোরেশন এ পরিবারের সেবামূলক কাজ করে।

আমি সুখে-দুঃখে সবার সঙ্গে ছিলাম, আছি, থাকব। বহদ্দারহাট, বলিরহাট, ঘাসিয়াপাড়া, খাজা রোড এলাকায় বুধবার হেঁটে বাড়ি বাড়ি গিয়ে গণসংযোগ ও নির্বাচনী প্রচারণার সময় তিনি এসব কথা বলেন। নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত আওয়ামী লীগের পাঠানটুলি ওয়ার্ডের কর্মী আজগর আলী বাবুলের বাড়িতেও যান রেজাউল। নিহতের পরিবারকে সান্ত্বনা দিয়ে বলেন, বাবুল সারা জীবন আওয়ামী লীগের রাজনীতি করে গেছেন। তার খুনিদের কেউ রক্ষা করতে পারবে না। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বহদ্দারহাট এলাকায় প্রচারণায় রেজাউল করিমের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আবদুস শুক্কুর, ৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি শামসুল আলম, কাউন্সিলর প্রার্থী আশরাফুল আলম, লালখান বাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল হাসনাত মো. বেলাল, রফিকুল হায়দার রফি, খলিলুর রহমান নাহিদ, খায়রুল আলম প্রমুখ। এ সময় তারা নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়ে লিফলেট বিতরণ করেন।

বিভিন্ন পথসভায় রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, আমি মেয়র নির্বাচিত হলে সিটি করপোরেশনের দুয়ার সবার জন্য খোলা থাকবে। আধুনিক প্রযুক্তি ও হটলাইন সেবার মাধ্যমে সর্বোচ্চ নাগরিকসেবা নিশ্চিত করতে দিনরাত ২৪ ঘণ্টা মানুষের সঙ্গে সংযুক্ত থাকবে করপোরেশন। বঙ্গবন্ধুকন্যা আমাকে আপনাদের সেবার দায়িত্ব দিতে চান। তাই নৌকা মার্কায় ভোট চাইতে আপনাদের কাছে পাঠিয়েছেন।

আমি বীর চট্টলার সন্তান। এর ধুলোমাটির ঋণ আমি চট্টগ্রামের মানুষের সেবা করে ও চট্টগ্রামকে অধিকতর সমৃদ্ধ করার মধ্য দিয়ে শোধ করতে চাই। আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক ও শেখ হাসিনার কর্মী। আমি মানুষ ভালোবাসি। আমি মানুষের কাছে যাই। যে কোনো সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে মানুষ যে কোনো সময় আমার কাছে আসতে পারেন, কথা বলতে পারেন।

এ গণসংযোগের সময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী।

 

ঘটনাপ্রবাহ : চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন ২০২০

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০