নোয়াখালীর নতুন পাগলকে পাবনায় পাঠানো উচিত
jugantor
নোয়াখালীর নতুন পাগলকে পাবনায় পাঠানো উচিত
-নিক্সন চৌধুরী

  ভাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি  

১৯ জানুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সংসদ সদস্য ও আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মজিবর রহমান চৌধুরী নিক্সন বলেছেন, নোয়াখালীর জনৈক পাগল নেতা (আবদুল কাদের মির্জা) বলছেন, ভোট ডাকাতি করে নাকি আমি ফরিদপুর-৪ আসনে এমপি হয়েছি। নতুন ওই পাগলকে পাবনায় পাঠানো উচিত। রোববার সন্ধ্যায় পৌর এলাকার ৭নং ওয়ার্ড রায়পাড়া স্কুল মাঠে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

নিক্সন চৌধুরী বলেন, আমি ওই পাগলকে চ্যালেঞ্জ করে বলব, দুবারই জনগণ উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিয়ে আমাকে এমপি বানিয়েছে। এখানকার জনগণ নৌকার বিপক্ষে নয়। দুর্নীতিবাজ কাজী জাফরউল্লাহর বিরুদ্ধে ভোট দিয়ে জনগণ আমাকে জয়যুক্ত করেছে। নোয়াখালীর ওই নেতাকে বলব, আপনি কীভাবে জানলেন, ভোট চুরি হয়েছে। কথায় আছে না- ‘পুরান পাগলে ভাত পায় না, নতুন পাগলের আমদানি।’ আপনার দশা হয়েছে তাই। বেফাঁস কথা বলে ভাইরাল হয়ে নেতা হতে চাইছেন। এসব পাগলামি ছাড়ুন, নয়তো জনগণ এমন ধোলাই দেবে আপনার চেহারা চেনা যাবে না।

তিনি আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে বিশ্বদরবারে উন্নয়নের রোল মডেল হিসাবে পরিচিত করিয়েছেন। ফরিদপুর-৪ আসনে নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে আমি ব্যাপক উন্নয়ন করে যাচ্ছি।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম হাবিবুর রহমান, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফাইজুর রহমান, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ লুৎফর রহমান, ভাঙ্গা বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ আবু জাফর মুন্সী, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাপোলো নওরোজ, যুবলীগ নেতা জাহিদ মুন্সী প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বাকি মাতুব্বার নিক্সন চৌধুরীর হাতে নৌকা তুলে দিয়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেন।

নোয়াখালীর নতুন পাগলকে পাবনায় পাঠানো উচিত

-নিক্সন চৌধুরী
 ভাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি 
১৯ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সংসদ সদস্য ও আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মজিবর রহমান চৌধুরী নিক্সন বলেছেন, নোয়াখালীর জনৈক পাগল নেতা (আবদুল কাদের মির্জা) বলছেন, ভোট ডাকাতি করে নাকি আমি ফরিদপুর-৪ আসনে এমপি হয়েছি। নতুন ওই পাগলকে পাবনায় পাঠানো উচিত। রোববার সন্ধ্যায় পৌর এলাকার ৭নং ওয়ার্ড রায়পাড়া স্কুল মাঠে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

নিক্সন চৌধুরী বলেন, আমি ওই পাগলকে চ্যালেঞ্জ করে বলব, দুবারই জনগণ উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিয়ে আমাকে এমপি বানিয়েছে। এখানকার জনগণ নৌকার বিপক্ষে নয়। দুর্নীতিবাজ কাজী জাফরউল্লাহর বিরুদ্ধে ভোট দিয়ে জনগণ আমাকে জয়যুক্ত করেছে। নোয়াখালীর ওই নেতাকে বলব, আপনি কীভাবে জানলেন, ভোট চুরি হয়েছে। কথায় আছে না- ‘পুরান পাগলে ভাত পায় না, নতুন পাগলের আমদানি।’ আপনার দশা হয়েছে তাই। বেফাঁস কথা বলে ভাইরাল হয়ে নেতা হতে চাইছেন। এসব পাগলামি ছাড়ুন, নয়তো জনগণ এমন ধোলাই দেবে আপনার চেহারা চেনা যাবে না।

তিনি আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে বিশ্বদরবারে উন্নয়নের রোল মডেল হিসাবে পরিচিত করিয়েছেন। ফরিদপুর-৪ আসনে নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে আমি ব্যাপক উন্নয়ন করে যাচ্ছি।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম হাবিবুর রহমান, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফাইজুর রহমান, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ লুৎফর রহমান, ভাঙ্গা বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ আবু জাফর মুন্সী, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাপোলো নওরোজ, যুবলীগ নেতা জাহিদ মুন্সী প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বাকি মাতুব্বার নিক্সন চৌধুরীর হাতে নৌকা তুলে দিয়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেন।