বাইডেন-কমলাকে বিশ্বনেতাদের অভিনন্দন
jugantor
বাইডেন-কমলাকে বিশ্বনেতাদের অভিনন্দন

  যুগান্তর ডেস্ক  

২২ জানুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বিশ্বনেতারা। একাধিক নেতা টুইট করে তাদের অভিনন্দন জানান। বুধবার বাইডেন ও কমলা শপথ নেন। খবর বিবিসি ও সিএনএনের।

যুক্তরাষ্ট্রের নবনিযুক্ত প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্টকে অভিনন্দন জানিয়ে টুইট করেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। টুইট বার্তায় প্যারিস চুক্তি হিসাবে পরিচিত বিশ্ব জলবায়ু চুক্তিতে যুক্তরাষ্ট্রের ফিরে আসাকে তিনি স্বাগত জানিয়েছেন। ম্যাক্রোঁ বলেন, আমরা একসঙ্গে আছি। আমাদের সময়ে আসা সব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আমরা আরও শক্তিশালী হব। নিজেদের ভবিষ্যৎ গড়তে এবং বিশ্বকে রক্ষায় আমরা আরও শক্তিশালী হব। এমন বিশেষ দিনে আমেরিকার মানুষের জন্য শুভ কামনা রইল।

এক টুইটবার্তায় কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, আমরা দুই দেশ মিলে ইতিহাসের বড় বড় চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করেছি। যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রশাসনের সঙ্গে এ অংশীদারিত্ব চালিয়ে যাওয়ার প্রত্যাশায় রয়েছি। বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানের প্রশংসা করে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের জন্য বিষয়টি দুর্দান্ত। আমরা নতুন দিনের আশায় রয়েছি। ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) কমিশনার উরসালা বন ডার লেয়ান বলেন, হোয়াইট হাউজে চার বছর পর আবারও ইউরোপের একজন বন্ধু দায়িত্ব নিয়েছেন। ইউরোপ নতুন একটি শুরুর জন্য মুখিয়ে আছে। যুক্তরাষ্ট্র আমাদের সবচেয়ে পুরনো ও বিশ্বস্ত অংশীদার। এ নতুন ভোরের মুহূর্তটির জন্য আমরা অপেক্ষা করছিলাম।

ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু লিখেছেন, জো বাইডেন ও কমলা হ্যারিস-ঐতিহাসিক এ অভিষেক দিবসে আপনাদের অভিনন্দন। বাইডেনের উদ্দেশে তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট বাইডেন আপনার সঙ্গে আমার কয়েক দশকের ব্যক্তিগত বন্ধুত্ব রয়েছে। তবে বাইডেনের শপথ নেওয়ার আগে সদ্য বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকেও স্মরণ করে টুইট করেন নেতানিয়াহু। সেই টুইটবার্তায় তিনি বলেন, ট্রাম্প ইসরাইলের জন্য আপনি যা করেছেন সেজন্য আপনাকে ধন্যবাদ। বিশেষ করে জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসাবে স্বীকৃতি দেওয়ার ঐতিহাসিক ঘোষণা এবং ইসরাইলের সঙ্গে আরব বিশ্বের শান্তি চুক্তির ব্যাপারে আপনার নেওয়া পদক্ষেপ। বাইডেনের উদ্দেশে লেখা এক চিঠিতে ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস বলেন, এ অঞ্চল ও সারা বিশ্বে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা করতে আমরা একসঙ্গে কাজ করব বলে প্রত্যাশা করছি। ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম ওয়াফার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

স্থানীয় সময় বুধবার দুপুরে যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিমকোর্টের প্রধান বিচারপতি জন রবার্টসের কাছে প্রেসিডেন্ট বাইডেন শপথ নেন। আর বিচারপতি সোনিয়া সোটোমেওরের কাছে কমলা হ্যারিস শপথ নেন। নজিরবিহীন নিরাপত্তার মধ্যে শপথ অনুষ্ঠান হয়। প্রথা ভেঙে নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দেননি বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শপথের আগে তিনি হোয়াইট হাউজ ছেড়ে ফ্লোরিডায় পাড়ি জমান। ট্রাম্প না থাকলেও বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দেন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স। শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, বিল ক্লিনটন ও জর্জ ডব্লিউ বুশ। তাদের সঙ্গে ছিলেন সাবেক ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন।

বাইডেন-কমলাকে বিশ্বনেতাদের অভিনন্দন

 যুগান্তর ডেস্ক 
২২ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বিশ্বনেতারা। একাধিক নেতা টুইট করে তাদের অভিনন্দন জানান। বুধবার বাইডেন ও কমলা শপথ নেন। খবর বিবিসি ও সিএনএনের।

যুক্তরাষ্ট্রের নবনিযুক্ত প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্টকে অভিনন্দন জানিয়ে টুইট করেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। টুইট বার্তায় প্যারিস চুক্তি হিসাবে পরিচিত বিশ্ব জলবায়ু চুক্তিতে যুক্তরাষ্ট্রের ফিরে আসাকে তিনি স্বাগত জানিয়েছেন। ম্যাক্রোঁ বলেন, আমরা একসঙ্গে আছি। আমাদের সময়ে আসা সব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আমরা আরও শক্তিশালী হব। নিজেদের ভবিষ্যৎ গড়তে এবং বিশ্বকে রক্ষায় আমরা আরও শক্তিশালী হব। এমন বিশেষ দিনে আমেরিকার মানুষের জন্য শুভ কামনা রইল।

এক টুইটবার্তায় কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, আমরা দুই দেশ মিলে ইতিহাসের বড় বড় চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করেছি। যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রশাসনের সঙ্গে এ অংশীদারিত্ব চালিয়ে যাওয়ার প্রত্যাশায় রয়েছি। বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানের প্রশংসা করে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের জন্য বিষয়টি দুর্দান্ত। আমরা নতুন দিনের আশায় রয়েছি। ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) কমিশনার উরসালা বন ডার লেয়ান বলেন, হোয়াইট হাউজে চার বছর পর আবারও ইউরোপের একজন বন্ধু দায়িত্ব নিয়েছেন। ইউরোপ নতুন একটি শুরুর জন্য মুখিয়ে আছে। যুক্তরাষ্ট্র আমাদের সবচেয়ে পুরনো ও বিশ্বস্ত অংশীদার। এ নতুন ভোরের মুহূর্তটির জন্য আমরা অপেক্ষা করছিলাম।

ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু লিখেছেন, জো বাইডেন ও কমলা হ্যারিস-ঐতিহাসিক এ অভিষেক দিবসে আপনাদের অভিনন্দন। বাইডেনের উদ্দেশে তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট বাইডেন আপনার সঙ্গে আমার কয়েক দশকের ব্যক্তিগত বন্ধুত্ব রয়েছে। তবে বাইডেনের শপথ নেওয়ার আগে সদ্য বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকেও স্মরণ করে টুইট করেন নেতানিয়াহু। সেই টুইটবার্তায় তিনি বলেন, ট্রাম্প ইসরাইলের জন্য আপনি যা করেছেন সেজন্য আপনাকে ধন্যবাদ। বিশেষ করে জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসাবে স্বীকৃতি দেওয়ার ঐতিহাসিক ঘোষণা এবং ইসরাইলের সঙ্গে আরব বিশ্বের শান্তি চুক্তির ব্যাপারে আপনার নেওয়া পদক্ষেপ। বাইডেনের উদ্দেশে লেখা এক চিঠিতে ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস বলেন, এ অঞ্চল ও সারা বিশ্বে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা করতে আমরা একসঙ্গে কাজ করব বলে প্রত্যাশা করছি। ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম ওয়াফার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

স্থানীয় সময় বুধবার দুপুরে যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিমকোর্টের প্রধান বিচারপতি জন রবার্টসের কাছে প্রেসিডেন্ট বাইডেন শপথ নেন। আর বিচারপতি সোনিয়া সোটোমেওরের কাছে কমলা হ্যারিস শপথ নেন। নজিরবিহীন নিরাপত্তার মধ্যে শপথ অনুষ্ঠান হয়। প্রথা ভেঙে নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দেননি বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শপথের আগে তিনি হোয়াইট হাউজ ছেড়ে ফ্লোরিডায় পাড়ি জমান। ট্রাম্প না থাকলেও বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দেন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স। শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, বিল ক্লিনটন ও জর্জ ডব্লিউ বুশ। তাদের সঙ্গে ছিলেন সাবেক ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন।