করোনায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু
jugantor
করোনায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত এক দিনে আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা সাত হাজার ৯৮১ দাঁড়িয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে আরও ৬১৯ জন। এ পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছে পাঁচ লাখ ৩০ হাজার ৮৯০ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে গত এক দিনে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ৪৮৭ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। সব মিলে চার লাখ ৭৫ হাজার ৫৬১ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি গেছেন। শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সবশেষ এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ১১৬টি আরটি-পিসিআর ল্যাব, ২৮টি জিন-এক্সপার্ট ল্যাব ও ৫৬টি র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ল্যাবে ১৪ হাজার ৮৪৬টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এ পর্যন্ত পরীক্ষা হয়েছে ৩৫ লাখ ৩০ হাজার ২৭৪টি নমুনা। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ২৭ লাখ ৬৯ হাজার ৮৭ এবং বেসরকারিভাবে হয়েছে সাত লাখ ৬১ হাজার ১৮৭টি। ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ৪ দশমিক ১৭ শতাংশ, মোট শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ০৪ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৯ দশমিক ৫৮ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫০ শতাংশ।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত এক দিনে যারা মারা গেছেন, তাদের মধ্যে ১০ জন পুরুষ আর নারী পাঁচজন। তাদের সবাই হাসপাতালে মারা গেছেন। এদের ছয়জনের বয়স ছিল ৬০ বছরের বেশি, তিনজন করে মোট ৯ জনের বয়স ৫১ থেকে ৬০, ৪১ থেকে ৫০ ও ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ছিল। মৃতদের মধ্যে আটজন ঢাকা বিভাগের, চারজন চট্টগ্রাম বিভাগের এবং একজন করে মোট তিনজন রাজশাহী, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন।

করোনায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৩ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত এক দিনে আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা সাত হাজার ৯৮১ দাঁড়িয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে আরও ৬১৯ জন। এ পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছে পাঁচ লাখ ৩০ হাজার ৮৯০ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে গত এক দিনে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ৪৮৭ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। সব মিলে চার লাখ ৭৫ হাজার ৫৬১ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি গেছেন। শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সবশেষ এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ১১৬টি আরটি-পিসিআর ল্যাব, ২৮টি জিন-এক্সপার্ট ল্যাব ও ৫৬টি র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ল্যাবে ১৪ হাজার ৮৪৬টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এ পর্যন্ত পরীক্ষা হয়েছে ৩৫ লাখ ৩০ হাজার ২৭৪টি নমুনা। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ২৭ লাখ ৬৯ হাজার ৮৭ এবং বেসরকারিভাবে হয়েছে সাত লাখ ৬১ হাজার ১৮৭টি। ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ৪ দশমিক ১৭ শতাংশ, মোট শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ০৪ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৯ দশমিক ৫৮ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫০ শতাংশ।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত এক দিনে যারা মারা গেছেন, তাদের মধ্যে ১০ জন পুরুষ আর নারী পাঁচজন। তাদের সবাই হাসপাতালে মারা গেছেন। এদের ছয়জনের বয়স ছিল ৬০ বছরের বেশি, তিনজন করে মোট ৯ জনের বয়স ৫১ থেকে ৬০, ৪১ থেকে ৫০ ও ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ছিল। মৃতদের মধ্যে আটজন ঢাকা বিভাগের, চারজন চট্টগ্রাম বিভাগের এবং একজন করে মোট তিনজন রাজশাহী, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন