বন্দিকে নির্যাতন জেলারসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা
jugantor
চট্টগ্রাম কারাগার
বন্দিকে নির্যাতন জেলারসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

  চট্টগ্রাম ব্যুরো  

০৫ মার্চ ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপার, জেলারসহ চারজনের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম আদালতে মামলা হয়েছে। রুপম কান্তি নাথ নামে এক বন্দিকে বৈদ্যুতিক শক ও বিষাক্ত ইনজেকশন পুশ করে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে বৃহস্পতিবার এ মামলা করা হয়। চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালতে মামলাটি করেন নগরীর পাহাড়তলীর বাসিন্দা কারাবন্দি রুপম কান্তি নাথের স্ত্রী ঝর্ণা রানী দেবনাথ। এদিকে বুধবার মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালত ১০ হাজার টাকা বন্ডে রুপম কান্তি নাথকে জামিন দেন। কিন্তু যথাসময়ে জামিননামা দাখিল না করায় বৃহস্পতিবার জামিন বাতিল করা হয়।

বাদীর আইনজীবী অ্যাডভোকেট ভুলন লাল ভৌমিক বলেন, আদালত মামলাটি গ্রহণ করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)-কে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

এজাহারে ঝর্ণা রানী দেবনাথ উল্লেখ করেন, পূর্ব পরিচিত রতন ভট্টাচার্যের দায়ের করা জিআর মামলায় অভিযোগকারীর স্বামী রুপম কান্তি নাথ ১৫ ডিসেম্বর জেলহাজতে যান। ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি তারিখ পর্যন্ত যে কোন সময়ে রুপমকে কারাগারে হত্যার উদ্দেশ্যে আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে বৈদ্যুতিক শক দেয় ও রক্তাক্ত জখমসহ দুই হাতে নেশা ও বিষাক্ত জাতীয় ইনজেকশন পুশ করে। পরে রুপম কান্তি নাথের উন্নত চিকিৎসার জন্য ২৫ ফেব্রুয়ারি আদালতে আবেদন করলে আসামিরা নিজেদের অপরাধ থেকে রক্ষার জন্য চমেক হাসপাতালে পাঠায়। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এর আগে সোমবার মামলাটি চট্টগ্রাম চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দায়েরের আবেদন করেন রুপম কান্তি নাথের স্ত্রী। মঙ্গলবার চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট হোসেন মোহাম্মদ রেজার আদালত উপযুক্ত আদালতে মামলা করতে আবেদনটি ফেরত পাঠান।

মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট মো. ফখরুদ্দিন চৌধুরী বলেন, আদালত রুপম কান্তি নাথের স্ত্রীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন। এরপর মামলাটি পিবিআইকে তদন্তের আদেশ দেন।

চট্টগ্রাম কারাগার

বন্দিকে নির্যাতন জেলারসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

 চট্টগ্রাম ব্যুরো 
০৫ মার্চ ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপার, জেলারসহ চারজনের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম আদালতে মামলা হয়েছে। রুপম কান্তি নাথ নামে এক বন্দিকে বৈদ্যুতিক শক ও বিষাক্ত ইনজেকশন পুশ করে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে বৃহস্পতিবার এ মামলা করা হয়। চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালতে মামলাটি করেন নগরীর পাহাড়তলীর বাসিন্দা কারাবন্দি রুপম কান্তি নাথের স্ত্রী ঝর্ণা রানী দেবনাথ। এদিকে বুধবার মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালত ১০ হাজার টাকা বন্ডে রুপম কান্তি নাথকে জামিন দেন। কিন্তু যথাসময়ে জামিননামা দাখিল না করায় বৃহস্পতিবার জামিন বাতিল করা হয়।

বাদীর আইনজীবী অ্যাডভোকেট ভুলন লাল ভৌমিক বলেন, আদালত মামলাটি গ্রহণ করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)-কে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

এজাহারে ঝর্ণা রানী দেবনাথ উল্লেখ করেন, পূর্ব পরিচিত রতন ভট্টাচার্যের দায়ের করা জিআর মামলায় অভিযোগকারীর স্বামী রুপম কান্তি নাথ ১৫ ডিসেম্বর জেলহাজতে যান। ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি তারিখ পর্যন্ত যে কোন সময়ে রুপমকে কারাগারে হত্যার উদ্দেশ্যে আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে বৈদ্যুতিক শক দেয় ও রক্তাক্ত জখমসহ দুই হাতে নেশা ও বিষাক্ত জাতীয় ইনজেকশন পুশ করে। পরে রুপম কান্তি নাথের উন্নত চিকিৎসার জন্য ২৫ ফেব্রুয়ারি আদালতে আবেদন করলে আসামিরা নিজেদের অপরাধ থেকে রক্ষার জন্য চমেক হাসপাতালে পাঠায়। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এর আগে সোমবার মামলাটি চট্টগ্রাম চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দায়েরের আবেদন করেন রুপম কান্তি নাথের স্ত্রী। মঙ্গলবার চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট হোসেন মোহাম্মদ রেজার আদালত উপযুক্ত আদালতে মামলা করতে আবেদনটি ফেরত পাঠান।

মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট মো. ফখরুদ্দিন চৌধুরী বলেন, আদালত রুপম কান্তি নাথের স্ত্রীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন। এরপর মামলাটি পিবিআইকে তদন্তের আদেশ দেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন