সেই প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ
jugantor
বোন জামাইয়ের নামে ঠিকাদারি ব্যবসা
সেই প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৯ এপ্রিল ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সুনামগঞ্জের সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জহিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি গঠন করে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন সড়ক, যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী মো. আব্দুস সবুরকে সরাসরি ফোন করে মন্ত্রী বলেন, যুগান্তরে প্রকাশিত সংবাদে যেসব অভিযোগ উত্থাপিত হয়েছে সবগুলোই তদন্ত করতে হবে। এ বিষয়ে সৎ, দক্ষ কর্মকর্তার সমন্বয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করার বিষয়েও নির্দেশনা দেন ওবায়দুল কাদের। বৃহস্পতিবার সেতু বিভাগের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা শেখ ওয়ালিদ ফায়েজ যুগান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে সড়ক ও জনপথ বিভাগে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, যশোর-ঝিনাইদহ ৬ লেন প্রকল্পের পরিচালক ও তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মহিবুল হককে আহ্বায়ক ও নির্বাহী প্রকৌশলী তালিমুল ইসলামকে সদস্য করে দুই সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। প্রধান প্রকৌশলী আব্দুস সবুর বৃহস্পতিবার এই তদন্ত কমিটি করেন।কমিটিকে ১০ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। প্রসঙ্গত, ৬ এপ্রিল যুগান্তরে ‘বোন জামাইয়ের নামে ঠিকাদারি লাইসেন্স, একচেটিয়া কাজ হাতিয়ে নিচ্ছেন নির্বাহী প্রকৌশলী’ শিরোনামে একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন ছাপা হয়। সংবাদটি মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায়।

বোন জামাইয়ের নামে ঠিকাদারি ব্যবসা

সেই প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৯ এপ্রিল ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সুনামগঞ্জের সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জহিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি গঠন করে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন সড়ক, যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী মো. আব্দুস সবুরকে সরাসরি ফোন করে মন্ত্রী বলেন, যুগান্তরে প্রকাশিত সংবাদে যেসব অভিযোগ উত্থাপিত হয়েছে সবগুলোই তদন্ত করতে হবে। এ বিষয়ে সৎ, দক্ষ কর্মকর্তার সমন্বয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করার বিষয়েও নির্দেশনা দেন ওবায়দুল কাদের। বৃহস্পতিবার সেতু বিভাগের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা শেখ ওয়ালিদ ফায়েজ যুগান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে সড়ক ও জনপথ বিভাগে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, যশোর-ঝিনাইদহ ৬ লেন প্রকল্পের পরিচালক ও তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মহিবুল হককে আহ্বায়ক ও নির্বাহী প্রকৌশলী তালিমুল ইসলামকে সদস্য করে দুই সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। প্রধান প্রকৌশলী আব্দুস সবুর বৃহস্পতিবার এই তদন্ত কমিটি করেন।কমিটিকে ১০ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। প্রসঙ্গত, ৬ এপ্রিল যুগান্তরে ‘বোন জামাইয়ের নামে ঠিকাদারি লাইসেন্স, একচেটিয়া কাজ হাতিয়ে নিচ্ছেন নির্বাহী প্রকৌশলী’ শিরোনামে একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন ছাপা হয়। সংবাদটি মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন