বগুড়ায় মাদ্রাসা পরিচালককে গুলি করে হত্যা
jugantor
বগুড়ায় মাদ্রাসা পরিচালককে গুলি করে হত্যা

  বগুড়া ব্যুরো  

০৫ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বগুড়ায় মোটরবাইকে আসা দুর্বৃত্তরা প্রকাশ্যে সিএনজিচালিত অটোরিকশা থামিয়ে মোজাফফর হোসেন (৫২) নামে এক মাদ্রাসা পরিচালককে গুলি করে হত্যা করেছে। মঙ্গলবার সকালে শাজাহানপুর উপজেলায় বগুড়া-নাটোর মহাসড়কের জোড়া কৃষি কলেজ এলাকায় এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। তিনি এলাকায় বাবা হুজুর নামে পরিচিত। শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল মামুন এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে এ হত্যার ব্যাপারে স্পষ্ট করে কিছু বলতে পারেননি।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, মোজাফফর হোসেন নাটোরের সিংড়া উপজেলার সুকাশ ইউনিয়নের সুকাশ নওদাপাড়া গ্রামের মৃত সায়েদ মণ্ডলের ছেলে। তার দুই স্ত্রী ও দুটি মেয়ে রয়েছে। তিনি দ্বিতীয় স্ত্রী নিয়ে বগুড়া শহরের নিশিন্দারা এলাকায় বসবাস করতেন। সেখান ‘দারুল হেদায়াহ’ নামে একটি কওমি মাদ্রাসা পরিচালনা করতেন। নন্দীগ্রাম স্ট্যান্ড থেকে মঙ্গলবার সকালে সিএনজিচালিত একটি অটোরিকশা মোজাফফর হোসেনসহ কয়েকজন যাত্রী নিয়ে বগুড়া শহরের দিকে আসছিল। সাড়ে ৯টার দিকে অটোরিকশাটি শাজাহানপুরের আশেকপুর ইউনিয়নের জোড়া কৃষি কলেজ এলাকায় পৌঁছলে দুটি মোটরবাইকে আসা দুর্বৃত্তরা অস্ত্রের মুখে এর পথরোধ করে। দুজন বাইক থেকে নেমে মোজাফফর হোসেনের বুকে দুটি গুলি করে বীরদর্পে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। অটোরিকশায় থাকা এক নারীসহ তিন যাত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

নাটোরের সিংড়া থানার ওসি নূর-এ-আলম সিদ্দিকী জানান, মোজাফফর হোসেন মাদ্রাসা পরিচালনার পাশাপাশি কবিরাজি করতেন। মাঝেমধ্যে গ্রামের বাড়িতে আসতেন। পুলিশ কর্মকর্তার ধারণা, বগুড়ার কোনো বিরোধে তিনি খুন হয়েছেন।

দুপুরে বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) ফয়সাল মাহমুদ জানান, দুর্বৃত্তরা ছোট কোনো আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে মোজাফফর হোসেনকে হত্যা করেছে। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে। তাৎক্ষণিকভাবে এ হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ বগুড়া শহিদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বগুড়ায় মাদ্রাসা পরিচালককে গুলি করে হত্যা

 বগুড়া ব্যুরো 
০৫ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বগুড়ায় মোটরবাইকে আসা দুর্বৃত্তরা প্রকাশ্যে সিএনজিচালিত অটোরিকশা থামিয়ে মোজাফফর হোসেন (৫২) নামে এক মাদ্রাসা পরিচালককে গুলি করে হত্যা করেছে। মঙ্গলবার সকালে শাজাহানপুর উপজেলায় বগুড়া-নাটোর মহাসড়কের জোড়া কৃষি কলেজ এলাকায় এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। তিনি এলাকায় বাবা হুজুর নামে পরিচিত। শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল মামুন এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে এ হত্যার ব্যাপারে স্পষ্ট করে কিছু বলতে পারেননি।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, মোজাফফর হোসেন নাটোরের সিংড়া উপজেলার সুকাশ ইউনিয়নের সুকাশ নওদাপাড়া গ্রামের মৃত সায়েদ মণ্ডলের ছেলে। তার দুই স্ত্রী ও দুটি মেয়ে রয়েছে। তিনি দ্বিতীয় স্ত্রী নিয়ে বগুড়া শহরের নিশিন্দারা এলাকায় বসবাস করতেন। সেখান ‘দারুল হেদায়াহ’ নামে একটি কওমি মাদ্রাসা পরিচালনা করতেন। নন্দীগ্রাম স্ট্যান্ড থেকে মঙ্গলবার সকালে সিএনজিচালিত একটি অটোরিকশা মোজাফফর হোসেনসহ কয়েকজন যাত্রী নিয়ে বগুড়া শহরের দিকে আসছিল। সাড়ে ৯টার দিকে অটোরিকশাটি শাজাহানপুরের আশেকপুর ইউনিয়নের জোড়া কৃষি কলেজ এলাকায় পৌঁছলে দুটি মোটরবাইকে আসা দুর্বৃত্তরা অস্ত্রের মুখে এর পথরোধ করে। দুজন বাইক থেকে নেমে মোজাফফর হোসেনের বুকে দুটি গুলি করে বীরদর্পে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। অটোরিকশায় থাকা এক নারীসহ তিন যাত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

নাটোরের সিংড়া থানার ওসি নূর-এ-আলম সিদ্দিকী জানান, মোজাফফর হোসেন মাদ্রাসা পরিচালনার পাশাপাশি কবিরাজি করতেন। মাঝেমধ্যে গ্রামের বাড়িতে আসতেন। পুলিশ কর্মকর্তার ধারণা, বগুড়ার কোনো বিরোধে তিনি খুন হয়েছেন।

দুপুরে বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) ফয়সাল মাহমুদ জানান, দুর্বৃত্তরা ছোট কোনো আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে মোজাফফর হোসেনকে হত্যা করেছে। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে। তাৎক্ষণিকভাবে এ হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ বগুড়া শহিদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন