জামায়াত নেতা শাহজাহান চৌধুরী ৩ দিনের রিমান্ডে
jugantor
হেফাজত তাণ্ডবে সম্পৃক্ততার অভিযোগ
জামায়াত নেতা শাহজাহান চৌধুরী ৩ দিনের রিমান্ডে

  চট্টগ্রাম ব্যুরো  

১৭ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

হাটহাজারীতে হেফাজতে ইসলামের সহিংসতায় সম্পৃক্ততার অভিযোগে গ্রেফতার জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নেতা ও সাবেক সংসদ-সদস্য শাহজাহান চৌধুরীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনদিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে চট্টগ্রামের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শাহরিয়ার ইকবালের আদালত এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে হাটহাজারী থানায় করা সহিংসতার তিন মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে শাহজাহান চৌধুরীকে আদালতে হাজির করা হয়। একটি মামলায় তার সাতদিনের রিমান্ডের আবেদন জানায় পুলিশ।

চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আবদুল্লাহ আল মাসুম বলেন, জামায়াত নেতা শাহজাহান চৌধুরীকে হাটহাজারী থানার তিন মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। এর মধ্যে এক মামলায় তার সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। আদালত শুনানি শেষে তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তিনি হেফাজতের সহিংসতায় ইন্ধন জুগিয়েছিলেন বলে আমাদের কাছে তথ্য রয়েছে। সাতকানিয়া পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ছমদরপাড়া দুই নম্বর গলি এলাকার বাসভবন থেকে শুক্রবার গভীর রাতে শাহজাহান চৌধুরীকে আটক করে সাতকানিয়া থানা পুলিশ। পরে তাকে হাটহাজারী থানার তিন মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়। এর আগে ২০১৮ সালের ৩ আগস্ট নগরীর খুলশী এলাকা থেকে জামায়াতের এই নেতাকে নাশকতা পরিকল্পনার অভিযোগে পুলিশ গ্রেফতার করেছিল। পরে তিনি জামিনে মুক্তি পান। জামায়াতের মজলিশে শূরা সদস্য শাহজাহান ১৯৯১ ও ২০০১ সালের নির্বাচনে চট্টগ্রামের সাতকানিয়া থেকে সংসদ-সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।

গত ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনকে ঘিরে হাটহাজারীতে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ করে হেফাজতে ইসলাম। এ সময় হাটহাজারী ভূমি অফিসে আগুন দেওয়া হয়। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে মারা যায় ৪ জন। হেফাজত তাদের নিজেদের কর্মী বলে দাবি করে। এ ঘটনায় পরে হেফাজতের বিলুপ্ত কমটির আমির ও বর্তমান আহ্বায়ক জুনায়েদ বাবুনগরীসহ হেফাজত, জামায়াত ও বিএনপির নেতাকর্মীদের আসামি করে হাটহাজারী থানায় পৃথক তিনটি মামলা করে পুলিশ।

হেফাজত তাণ্ডবে সম্পৃক্ততার অভিযোগ

জামায়াত নেতা শাহজাহান চৌধুরী ৩ দিনের রিমান্ডে

 চট্টগ্রাম ব্যুরো 
১৭ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

হাটহাজারীতে হেফাজতে ইসলামের সহিংসতায় সম্পৃক্ততার অভিযোগে গ্রেফতার জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নেতা ও সাবেক সংসদ-সদস্য শাহজাহান চৌধুরীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনদিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে চট্টগ্রামের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শাহরিয়ার ইকবালের আদালত এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে হাটহাজারী থানায় করা সহিংসতার তিন মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে শাহজাহান চৌধুরীকে আদালতে হাজির করা হয়। একটি মামলায় তার সাতদিনের রিমান্ডের আবেদন জানায় পুলিশ।

চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আবদুল্লাহ আল মাসুম বলেন, জামায়াত নেতা শাহজাহান চৌধুরীকে হাটহাজারী থানার তিন মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। এর মধ্যে এক মামলায় তার সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। আদালত শুনানি শেষে তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তিনি হেফাজতের সহিংসতায় ইন্ধন জুগিয়েছিলেন বলে আমাদের কাছে তথ্য রয়েছে। সাতকানিয়া পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ছমদরপাড়া দুই নম্বর গলি এলাকার বাসভবন থেকে শুক্রবার গভীর রাতে শাহজাহান চৌধুরীকে আটক করে সাতকানিয়া থানা পুলিশ। পরে তাকে হাটহাজারী থানার তিন মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়। এর আগে ২০১৮ সালের ৩ আগস্ট নগরীর খুলশী এলাকা থেকে জামায়াতের এই নেতাকে নাশকতা পরিকল্পনার অভিযোগে পুলিশ গ্রেফতার করেছিল। পরে তিনি জামিনে মুক্তি পান। জামায়াতের মজলিশে শূরা সদস্য শাহজাহান ১৯৯১ ও ২০০১ সালের নির্বাচনে চট্টগ্রামের সাতকানিয়া থেকে সংসদ-সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।

গত ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনকে ঘিরে হাটহাজারীতে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ করে হেফাজতে ইসলাম। এ সময় হাটহাজারী ভূমি অফিসে আগুন দেওয়া হয়। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে মারা যায় ৪ জন। হেফাজত তাদের নিজেদের কর্মী বলে দাবি করে। এ ঘটনায় পরে হেফাজতের বিলুপ্ত কমটির আমির ও বর্তমান আহ্বায়ক জুনায়েদ বাবুনগরীসহ হেফাজত, জামায়াত ও বিএনপির নেতাকর্মীদের আসামি করে হাটহাজারী থানায় পৃথক তিনটি মামলা করে পুলিশ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন