নুরুল ইসলাম ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মক্তব প্রকল্প চালু
jugantor
নুরুল ইসলাম ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মক্তব প্রকল্প চালু

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২০ জুলাই ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

যমুনা গ্রুপের প্রয়াত চেয়ারম্যান, বিশিষ্ট শিল্পপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে গণশিক্ষা ও মসজিদভিত্তিক মক্তব প্রকল্প চালু হয়েছে সোমবার থেকে। নুরুল ইসলাম ফাউন্ডেশনের অধীনে পরিচালিত এসব মক্তবে সব বয়সিদের বিশুদ্ধভাবে পবিত্র কুরআন শরিফ, দোয়া-দরুদ, নামাজ-কালাম ও দ্বীনের প্রয়োজনীয় মাসআলা মাসায়িল শেখানোর পাশাপাশি কুরআনের অর্থ ও মর্ম বুঝতে বিশেষভাবে সহযোগিতা করা হবে। পাশাপাশি দেশের নিরক্ষর নাগরিকদের অক্ষর জ্ঞানদানের কার্যক্রমও চালাবে নুরুল ইসলাম ফাউন্ডেশন।

এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সোমবার সকালে এসব প্রতিষ্ঠানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান সাবেক মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি। তিনি বলেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম, মানবতার ধর্ম। কুরআনে শান্তি ও সম্প্রীতির কথা বলা হয়েছে। সমাজে কুরআন চর্চা বাড়লে শান্তি, সম্প্রীতি, সহমর্মিতা, ভ্রাতৃত্ববোধ ও দায়িত্ববোধ জাগ্রত হবে। ইসলামের প্রকৃত শিক্ষা ও আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে এ কঠিন সময়ে দেশ ও মানুষের পাশে দাঁড়ানোর বিকল্প নেই। ফাউন্ডেশনের প্রকল্প পরিচালক মুফতি মাওলানা তোফায়েল গাজালি বলেন, সমাজের বহু মানুষ ধর্মের মৌলিক শিক্ষা থেকে বঞ্চিত। অনেকে ধর্মীয় শিক্ষা অর্জনের সময়-সুযোগ পান না। তারা যাতে অতি সহজে অল্প সময়ে পবিত্র কুরআন শরিফ বিশুদ্ধভাবে শিখে তার মর্ম বুঝে সে অনুযায়ী নিজেকে গড়তে পারেন, এ জন্যই নুরুল ইসলাম ফাউন্ডেশন মসজিদভিত্তিক মক্তব প্রকল্প চালু করেছে। আমরা দেশের প্রতিটি পাড়া ও মহল্লায় এ মক্তব শিক্ষা কার্যক্রম ছড়িয়ে দেওয়ার স্বপ্ন দেখি।

নুরুল ইসলাম ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মক্তব প্রকল্প চালু

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২০ জুলাই ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

যমুনা গ্রুপের প্রয়াত চেয়ারম্যান, বিশিষ্ট শিল্পপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে গণশিক্ষা ও মসজিদভিত্তিক মক্তব প্রকল্প চালু হয়েছে সোমবার থেকে। নুরুল ইসলাম ফাউন্ডেশনের অধীনে পরিচালিত এসব মক্তবে সব বয়সিদের বিশুদ্ধভাবে পবিত্র কুরআন শরিফ, দোয়া-দরুদ, নামাজ-কালাম ও দ্বীনের প্রয়োজনীয় মাসআলা মাসায়িল শেখানোর পাশাপাশি কুরআনের অর্থ ও মর্ম বুঝতে বিশেষভাবে সহযোগিতা করা হবে। পাশাপাশি দেশের নিরক্ষর নাগরিকদের অক্ষর জ্ঞানদানের কার্যক্রমও চালাবে নুরুল ইসলাম ফাউন্ডেশন।

এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সোমবার সকালে এসব প্রতিষ্ঠানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান সাবেক মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি। তিনি বলেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম, মানবতার ধর্ম। কুরআনে শান্তি ও সম্প্রীতির কথা বলা হয়েছে। সমাজে কুরআন চর্চা বাড়লে শান্তি, সম্প্রীতি, সহমর্মিতা, ভ্রাতৃত্ববোধ ও দায়িত্ববোধ জাগ্রত হবে। ইসলামের প্রকৃত শিক্ষা ও আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে এ কঠিন সময়ে দেশ ও মানুষের পাশে দাঁড়ানোর বিকল্প নেই। ফাউন্ডেশনের প্রকল্প পরিচালক মুফতি মাওলানা তোফায়েল গাজালি বলেন, সমাজের বহু মানুষ ধর্মের মৌলিক শিক্ষা থেকে বঞ্চিত। অনেকে ধর্মীয় শিক্ষা অর্জনের সময়-সুযোগ পান না। তারা যাতে অতি সহজে অল্প সময়ে পবিত্র কুরআন শরিফ বিশুদ্ধভাবে শিখে তার মর্ম বুঝে সে অনুযায়ী নিজেকে গড়তে পারেন, এ জন্যই নুরুল ইসলাম ফাউন্ডেশন মসজিদভিত্তিক মক্তব প্রকল্প চালু করেছে। আমরা দেশের প্রতিটি পাড়া ও মহল্লায় এ মক্তব শিক্ষা কার্যক্রম ছড়িয়ে দেওয়ার স্বপ্ন দেখি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন