মাসে ১ কোটি টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
jugantor
মাসে ১ কোটি টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৬ জুলাই ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

দেশে প্রতি মাসে ১ কোটি মানুষকে করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, আমাদের ৮ কোটি টিকা রাখার সক্ষমতা আছে। আগামীতে প্রতি মাসে ১ কোটি মানুষকে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা প্রণয়নে কাজ চলছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) কনভেনশন সেন্টারে নির্মাণাধীন ফিল্ড হাসপাতাল পরিদর্শনে গিয়ে রোববার দুপুরে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। জাহিদ মালেক বলেন, যেভাবে রোগী বাড়ছে তাতে হাসপাতালে শয্যা সংকট দেখা দিতে পারে। ইতোমধ্যে ৮০ শতাংশ শয্যায় রোগী ভর্তি হয়ে আছে। এ ফিল্ড হাসপাতালের কার্যক্রম ৭ দিনের মধ্যে চালু করতে পারব। উপাচার্যের সঙ্গে কথা বলেছি, আশা করছি শনিবার থেকে আমরা রোগী ভর্তি করতে পারব।

টিকা ব্যবস্থাপনা নিয়ে আজই স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে বৈঠক হয়েছে উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা যাচাই করেছি আগামী দিনগুলোতে কোন দেশ থেকে কত ভ্যাকসিন পাব। সব মিলিয়ে আমাদের হিসাবে ২১ কোটির মতো টিকার ব্যবস্থা করা আছে। এ ২১ কোটি টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা, রাখার ব্যবস্থা এবং জনবলের যে ব্যবস্থা, সেই পরিকল্পনা আমরা করেছি। দেশে সব মিলিয়ে ৮ কোটি ডোজ টিকা সংরক্ষণের সক্ষমতা রয়েছে। তাপমাত্রা সংবেদনশীল টিকাও প্রায় ৩০ লাখ সংরক্ষণের ব্যবস্থা আছে। আরও কিছু ফ্রিজের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেগুলো এলে এ তাপমাত্রা সেনসিটিভ টিকা সংরক্ষণের ব্যবস্থাও সব মিলিয়ে কোটির কাছে চলে যাবে।

এ সময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলম, বিএসএমএমইউর উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শরফুদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

মাসে ১ কোটি টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৬ জুলাই ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।
স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। ফাইল ছবি

দেশে প্রতি মাসে ১ কোটি মানুষকে করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, আমাদের ৮ কোটি টিকা রাখার সক্ষমতা আছে। আগামীতে প্রতি মাসে ১ কোটি মানুষকে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা প্রণয়নে কাজ চলছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) কনভেনশন সেন্টারে নির্মাণাধীন ফিল্ড হাসপাতাল পরিদর্শনে গিয়ে রোববার দুপুরে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। জাহিদ মালেক বলেন, যেভাবে রোগী বাড়ছে তাতে হাসপাতালে শয্যা সংকট দেখা দিতে পারে। ইতোমধ্যে ৮০ শতাংশ শয্যায় রোগী ভর্তি হয়ে আছে। এ ফিল্ড হাসপাতালের কার্যক্রম ৭ দিনের মধ্যে চালু করতে পারব। উপাচার্যের সঙ্গে কথা বলেছি, আশা করছি শনিবার থেকে আমরা রোগী ভর্তি করতে পারব।

টিকা ব্যবস্থাপনা নিয়ে আজই স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে বৈঠক হয়েছে উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা যাচাই করেছি আগামী দিনগুলোতে কোন দেশ থেকে কত ভ্যাকসিন পাব। সব মিলিয়ে আমাদের হিসাবে ২১ কোটির মতো টিকার ব্যবস্থা করা আছে। এ ২১ কোটি টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা, রাখার ব্যবস্থা এবং জনবলের যে ব্যবস্থা, সেই পরিকল্পনা আমরা করেছি। দেশে সব মিলিয়ে ৮ কোটি ডোজ টিকা সংরক্ষণের সক্ষমতা রয়েছে। তাপমাত্রা সংবেদনশীল টিকাও প্রায় ৩০ লাখ সংরক্ষণের ব্যবস্থা আছে। আরও কিছু ফ্রিজের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেগুলো এলে এ তাপমাত্রা সেনসিটিভ টিকা সংরক্ষণের ব্যবস্থাও সব মিলিয়ে কোটির কাছে চলে যাবে।

এ সময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলম, বিএসএমএমইউর উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শরফুদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন